শিরোনাম:

এসআই দেবাশিষকে রিমান্ডে চায় পুলিশ

মিলন খন্দকার, ব্রেকিং নিউজ.কম.বিডি
প্রকাশিত : রবিবার, ১৩ অগাস্ট ২০১৭, ০৩:৪২
অ-অ+
এসআই দেবাশিষকে রিমান্ডে চায় পুলিশ
ছবি: ব্রেকিংনিউজ.কম.বিডি

গাইবান্ধা: স্ত্রী লাবনী সাহাকে আত্মহত্যার প্ররোচনার অভিযোগে দায়ের করা মামলায় গ্রেফতারকৃত এসআই দেবাশিষ সাহাকে তিন দিনের রিমান্ডে নিয়ে জিজ্ঞাসাবাদ করতে চায় পুলিশ। 

রবিবার (১৩ আগষ্ট) দুপুরে বোনাড়পাড়া জিআরপি থানার এসআই মামলার তদন্তকারি কর্মকর্তা নাজমুল হাসান আদালতে দেবাশিষকে জিজ্ঞাসাবাদের জন্য তিন দিনের রিমান্ড আবেদন করেন। তবে বিকাল তিনটায় এ প্রতিবেদন লেখা পর্যন্ত রিমান্ড শুনানি হয়নি বলে জানা গেছে। 

এ প্রসঙ্গে গাইবান্ধার বোনাড়পাড়া রেলওয়ে থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) আতাউর রহমান বলেন, ‘লাবনি সাহার আত্মহত্যার প্ররোচনার অভিযোগ এনে শনিবার লাবনির বাবা গোবিন্দ চন্দ্র সাহা বাদী হয়ে এসআই দেবাশিষ সাহা, তার বাবা নির্ল চন্দ্র সাহা, মা আলোরানী সাহা, বোন প্রিতী সাহা, মামা পুন চন্দ্র সাহা ও ভগ্নিপতি তপন কুমার সাহাসহ ছয়জনের বিরুদ্ধে মামলা করেছেন। এরমধ্য শনিবার রাতে দেবাশিষ ও তার মামা পুন চন্দ্র সাহাকে গ্রেফতার করা হয়েছে। অন্য আসামিদের গ্রেফতারে পুলিশ তৎপর রয়েছে।’ 

তিনি আরও বলেন, ‘এ মামলার প্রধান আসামি দেবাশিষ। তাই তাকে জিজ্ঞাসাবাদের জন্য আদালতে তিনদিনের রিমান্ডের আবেদন করা হয়েছে।’

জানতে চাইলে লাবনির বাবা বলেন, ‘লাবনি উচ্চ শিক্ষিত মেয়ে হয়ে কখনও আত্মহত্যার মত কাজ করতে পারেনা। দেবাশীষ এবং ওর বাবা-মা, মামা, বোন এবং ভগ্নিপতি  লাবনিকে আত্মহত্যা করতে বাধ্য করেছে। তাই তাদের বিরুদ্ধে লাবনিকে আত্মহত্যার প্ররোচনার অভিযোগে মামলা দায়ের করা হয়েছে।’

প্রসঙ্গত, চলতি বছরের মার্চ মাসে কুড়িগ্রাম জেলা শহরের বৈরাগিপাড়া এলাকার নির্মলচন্দ্র সাহার ছেলে দেবাশিষ সাহার সাথে একই জেলার ভুরুঙ্গামাড়ি উপজেলা শহরের গোবিন্দচন্দ্র সাহার মেয়ে লাবনি সাহার পারিবারিক ভাবে বিয়ে হয়। বিয়ের কিছুদিন আগে দেবাশীষ গাইবান্ধা সদর থানায় যোগদান করেন। পরে স্ত্রী লাবনিকে নিয়ে গাইবান্ধা জেলা শহরের পুরাতন হাসপাতাল লেনের ভাড়া বাসায় থাকতেন।
 
বৃহস্পতিবার (১০) আগষ্ট দুপুরে গাইবান্ধা শহরের সান্তাহার-লালমনিরহাট রেলরুটে ট্রেনের নিচে লাফ দিয়ে আত্মহত্যা করে লাবনি সাহা।  

ব্রেকিংনিউজ.কম.বিডি/ এআর