শিরোনাম:

ভিড় বাড়ছে বইমেলায়

স্টাফ করেসপন্ডেন্ট
প্রকাশিত : শনিবার, ১০ ফেব্রুয়ারী ২০১৮, ০৫:৪৪
অ-অ+
ভিড় বাড়ছে বইমেলায়
ফাইল ফটো

এক দুই করে গুণতে গুণতে দশম দিন পাড়ি দিচ্ছে অমর একুশে গ্রন্থমেলা। প্রতিবছরের মতো এবারও বইমেলা শুরুর প্রথম দু-চার দিন লেখক-পাঠক ও ক্রেতাদের তেমন উপস্থিতি চোখে না পড়লেও শনিবার বিকেলে দর্শক-ক্রেতাদের ভিড় ছিল চোখে পড়ার মতো। কিশোর-কিশোরীদের উপস্থিতিও মেলা প্রাঙ্গণকে যেন আরও রঙ্গিন করে তুলেছে। 

ভাষার মাসজুড়ে প্রাণের এই বইমেলা সবার কাছে এক ভিন্ন আবেদন সৃষ্টি করে। বইপ্রেমীদের পাশাপাশি এই সময়টাতেই দেশি-বিদেশি লেখকরা একমঞ্চে মিলিত হন। মাসব্যাপী চলে বিভিন্ন স্টল পরিদর্শন ও পছন্দের লেখকের বই সংগ্রহ। 

বইমেলাকে ঘিরে দেখে মিলে বিভিন্ন শ্রেণির পাঠকের। কেউ ভালোবাসে কবিতা, উপন্যাস আবার কেউ ভালোবাসে সায়েন্স ফিকশনের বই। আবার কেউ কেউ আসেন পছন্দের লেখকের বই কিনতে। ছোটদের জন্য থাকে শিশুতোষ বইয়ের স্টল। 



এদিকে শনিবার বইমেলায় অনেককেই দেখা যায় প্রিয় লেখকের সঙ্গে দেখা করতে, কথা বলতে। প্রিয় লেখকের সঙ্গে একটু কথা বলা ও তার অটোগ্রাফ নেওয়ার সুযোগ কেউই মিস করতে চায় না। আর তার জন্য প্রিয় লেখক কখন, কবে আসবেন এ খোঁজখবর রাখেন অনেকে। এর মধ্যে অনেক প্রিয় কবি, সাহিত্যিক বা লেখক আমাদের ছেড়ে চলে গেলেও বইমেলায় তাদের অনেকের আবেদনে এতটুকু ভাটা পড়েনি। 

বইমেলায় ঘুরতে আসা কিংবা পছন্দের বই কিনতে আসা এমন একাধিক জনের সঙ্গে কথা হলে তারা জানান, এখনও মেলা শতভাগ জমে ওঠেনি। এখনও সব বই মেলায় আসেনি। তারা পছন্দের কিছু কিছু বই সংগ্রহ করছেন। প্রিয় লেখকের বই হাতে পাওয়ার জন্য অনেকেই অপেক্ষায় আছেন। কেউ কেউ বলছেন, এখনও বই কেনা শুরু করেননি। এখন শুধু স্টলগুলো ঘুরে দেখছেন, কোন লেখকের কি বই এসেছে। 



বইমেলাকে কেন্দ্র করে প্রতিবছরই তরুণ লেখকদের একটা উপস্থিতি থাকে চোখে পড়ার মতো। এবারও তার ব্যতিক্রম নয়। নিজের প্রকাশিত প্রথম বইটি হাতে মেলা প্রাঙ্গণে ঘুরতে দেখা গেছে অনেক তরুণ সাহিত্যিকদের। তারাও পাঠকেরা কাছ থেকে ইতিবাচক সাড়া প্রত্যাশা করছেন। 

এদিকে বিভিন্ন স্টল ঘুরে বিক্রেতাদের সঙ্গে কথা বলে জানা গেছে, পুরোদমে এখনও বেচাবিক্রি শুরু হয়নি। অনেক বই এখনও মেলায় আসেনি। ১৫ ফেব্রুয়ারির পর থেকে বেচাকেনা আরও বাড়বে বলে মনে করছেন তারা। মেলার সার্বিক ব্যবস্থাপনা নিয়ে কিছু অভিযোগ থাকলেও তারা মোটামুটি সন্তুষ্ট। 

ব্রেকিংনিউজ/এমআর