শিরোনাম:

কুবি শিক্ষক তারেককে ছাত্রলীগ কর্মীর হুমকি!

কুবি প্রতিনিধি, ব্রেকিংনিউজ.কম.বিডি
প্রকাশিত : শনিবার, ১৯ অগাস্ট ২০১৭, ০৪:২০
অ-অ+
কুবি শিক্ষক তারেককে ছাত্রলীগ কর্মীর হুমকি!

কুবি: জাতীয় শোক দিবসে ক্লাস নেয়ার অভিযোগ তুলে কুমিল্লা বিশ্ববিদ্যালয় শাখা ছাত্রলীগের দাবির তিন দিনের মাথায় তদন্ত ছাড়াই এক মাসের বাধ্যতামূলক ছুটিতে পাঠানো হয়েছে গণযোগাযোগ ও সাংবাদিকতা বিভাগের সভাপতি মাহবুবুল হক ভুঁইয়া তারেককে। এবার তাকে ফেসবুকে তাকে হত্যার হুমকি দেয়া হয়েছে। এ বিষয়ে থানায় সাধারণ ডায়েরি করেছেন বলেও জানান তিনি।

জানা গেছে, সাদ ইবন সাইদ সাদ (Saad Ibn Sayed Sadd নামক ফেইজবুক আইডি) তার ব্যক্তিগত প্রোফাইলে শাখা ছাত্রলীগের সভাপতি ইলিয়াস হোসেন সবুজকে মেনশন করে ও শাখা ছাত্রলীগের ১৩ জন নেতাকর্মীকে ট্যাগ করে ওই শিক্ষককে আলবদর উল্লেখ করে স্ট্যাটাসে লিখেন ‘ÔEleas Hosen Sabuj ভাই এর হুকুম এর অপেক্ষায়, ভাই এর দয়াতে আজকের মত বেঁচে গেল আলবদর তারেক মাস্টার।। আর একটা রাত পেল দেশদ্রোহী টা শান্তিতে ঘুমাতে।। কিন্তু কালকে??? কি হবে রে তোর???’ তার দেয়া এই স্ট্যাটাসটি শাখা ছাত্রলীগের ১৩ জন নেতাকর্মীকে ট্যাগ করা হয়েছে। 

তবে ওই শিক্ষক ১৮ আগস্ট বিষয়টি দেখেন বলে সাধারণ ডায়েরিতে উল্লেখ করেন। শুক্রবার রাতেই বিশ্ববিদ্যালয় এলাকায় কোটবাড়ি পুলিশ ফাঁড়িতে তদন্তপূর্বক ব্যবস্থা নিতে দায়িত্ব দেয় সদর দক্ষিণ থানা।

ভূক্তোভোগী শিক্ষক মাহবুবুল হক ভূঁইয়া বলেন, ‘আমি থানায় সাধারণ ডায়েরি করেছি। আইন-শৃঙ্খলা বাহিনীর কাছে আমার প্রত্যাশা থাকবে যে দ্রুত তদন্তপূর্বক দোষীদের আইনের আওতায় আনার।’

এ বিষয়ে কুমিল্লা সদর দক্ষিণ মডেল থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) নজরুল ইসলাম বলেন, ‘রাত পৌনে ১২টার দিকে মাহবুবুল হক ভূঁইয়া সাধারণ ডায়েরি করেন। বিষয়টি তদন্ত করার জন্য সংশ্লিষ্ট পুলিশ ফাঁড়িকে পাঠানো হয়েছে।’
ওই স্ট্যাটাসটি নিয়ে মাহবুবুল হক ভুঁইয়া নিরাপত্তাহীনতায় ভুগছেন এমন উল্লেখ করে বলেন, ‘এটা গোপনে নয়, ফেইজবুকে প্রকাশ্যে আমাকে হুমকি দিয়েছে। আমি জীবননাশের হুমকিতে আছি।’
 
শাখা ছাত্রলীগের সভাপতি ইলিয়াস হোসেন সবুজ বলেন, ‘কেউ এমন কাজ করলে তার শাস্তি হওয়া উচিত। শাখা ছাত্রলীগ এর দায়ভার নিবে না।’

শিক্ষক সমিতির সভাপতি ড. আবু তাহের বলেন, ‘এটা সরাসরি হুমকি। কোন ভাবেই এ হুমকি মেনে নেয়া যায় না। এর কঠোর বিচার দাবি করছি। যদি একটি ফেইসবুক স্টাটাস নিয়ে একজন শিক্ষককে শোকজ করতে পারে তবে বিশ্ববিদ্যালয় প্রশাসনকে এর বিরুদ্ধে ও ব্যবস্থা নিতে হবে। ’ 

উল্লেখ্য, গত ১৫ আগস্ট জাতীয় শোক দিবসে মাহবুবুল হক ভূঁইয়া ক্লাস নিয়েছেন এমন অভিযোগ তুলে তার বহিষ্কারের দাবিতে উপাচার্য অধ্যাপক ড. আলী আশরাফকে স্মারকলিপি দেয় শাখা ছাত্রলীগ। প্রশাসনিক ও একাডেমিক ভবনগুলোয় তালা লাগিয়ে ক্যাম্পাস অচল করে তিন দিনের বিক্ষোভের মাথায় গত বৃহস্পতবার ওই শিক্ষককে বাধ্যতামূলক ছুটিতে পাঠায় প্রশাসন। সেই সাথে ৪ সদস্যের একটি তদন্ত কমিটিও গঠন করা হয়।

ব্রেকিংনিউজ.কম.বিডি/ এমএইচ