শিরোনাম:

জাবিতে আরও ৪ জালিয়াত ভর্তিচ্ছু আটক

জাবি করেসপন্ডেন্ট,
ব্রেকিংনিউজ.কম.বিডি

প্রকাশিত : মঙ্গলবার, ১৪ নভেম্বর ২০১৭, ০৭:৪৩
অ-অ+
জাবিতে আরও ৪ জালিয়াত ভর্তিচ্ছু আটক

জাবি: জাহাঙ্গীরনগর বিশ্ববিদ্যালয়ের (জাবি) ভর্তি পরীক্ষায় প্রক্সি দিয়ে চান্স পাওয়া আরও ৪ ভর্তিচ্ছু সাক্ষাৎকার দিতে এসে আটক হয়েছেন। মঙ্গলবার (১৪ নভেম্বর) বিশ্ববিদ্যালয়ের ২০১৭-১৮ শিক্ষাবর্ষের ভর্তি পরীক্ষার সাক্ষাৎকার চলাকালে লিখিত পরীক্ষার উত্তরপত্রের সঙ্গে হাতের লেখার মিল না পাওয়ায় তাদেরকে আটক করা হয়।

‘সি’ ইউনিটের সাক্ষাৎকারে আটক হওয়া ৪ শিক্ষার্থী হলেন, ময়মনসিংহের চরভিলা গ্রামের নূর মোহাম্মদের ছেলে ইয়াসীন আরাফাত। সে মেধা তালিকায় ৫ম। গাজীপুরের শ্রীপুরের শেখ কামাল উদ্দীনের ছেলে শেখ পারভেজ আহমেদ। সে মেধা তালিকায়  ১৫৫তম । মুন্সিগঞ্জ জেলার শ্রীনগর থানার আহমেদ আলীর ছেলে রাকিব হোসেন।  সে মেধা তালিকায় ৫৮ তম। নাটোরের লালপুর থানার আবু বক্কর সিদ্দীকের ছেলে আবু রায়হান। মেধা তালিকায় ১৩ তম।  

এর আগে গত দু’দিনের সাক্ষাৎকারে একই অভিযোগে আটক হয়েছেন মোট  ৮ ভর্তিচ্ছু শিক্ষার্থী। এদের সবার ভর্তি পরীক্ষার ফলাফল বাতিল করে আশুলিয়া থানা পুলিশের কাছে সোপর্দ করেছে বিশ্ববিদ্যালয় প্রশাসন।

এ বিষয়ে বিশ্ববিদ্যালয়ের প্রক্টর অধ্যাপক তপন কুমার সাহা বলেন, ‘তারা ভর্তি জালিয়াতি করে চান্স পেয়েছে। তাই তাদেরকে আশুলিয়া থানা পুলিশের কাছে সোপর্দ করা হয়েছে। বিশ্ববিদ্যালয়ের পক্ষ থেকে তাদের বিরুদ্ধে মামলা করা হবে।’ 

আশুলিয়া থানার উপ-পরিদর্শক রাকিবুল ইসলাম বলেন, ‘বিশ্ববিদ্যালয় কর্তৃপক্ষের অভিযোগে তাদেরকে আটক করা হয়েছে। থানায় নিয়ে আইন অনুযায়ী ব্যবস্থা গ্রহণ করা হবে।’

প্রসঙ্গত, এ বছর জাবির ভর্তি পরীক্ষায় প্রতি আসনের বিপরীতে লড়েছিল ১৫০ শিক্ষার্থী। তুমুল প্রতিযোগিতায় মেধার লড়াইয়ে না গিয়ে অসদুপায় বেছে নিয়েছিল অনেকেই। এদের মধ্যে ভর্তি পরীক্ষা চলাকালীন প্রক্সি পরীক্ষা দেয়ার সময় হাতেনাতে ধরা খায় ৪ শিক্ষার্থী। তাদেরকে ভ্রম্যমাণ আদালত সঙ্গে সঙ্গে শাস্তি প্রধান করে। কিন্তু এ ১২ শিক্ষার্থী পরীক্ষার সময় ধরা না খেলেও সাক্ষাৎকারে এসে আটক হন। তাদের নামে বিশ্ববিদ্যালয় প্রশাসন মামলা করবে বলে প্রক্টর অধ্যাপক তপন কুমার সাহা জানিয়েছেন। 

ব্রেকিংনিউজ/এমএ/এনএআর