শিরোনাম:

ক্যাশলেস লেনদেনে গতিশীল হয় অর্থনীতি: অরুণ জেটলি

স্টাফ করেসপন্ডেন্ট,
ব্রেকিংনিউজ.কম.বিডি
প্রকাশিত : বুধবার, ০৪ অক্টোবর ২০১৭, ০৩:১৯
অ-অ+
ক্যাশলেস লেনদেনে গতিশীল হয় অর্থনীতি: অরুণ জেটলি
ছবি: ওয়েবসাইট

ঢাকা: ‘ক্যাশলেস (ডিজিটাল) লেনদেন বাড়ানোর ফলে ভারতে ব্যাংকিং সুবিধা গ্রহণকারীর সংখ্যা বেড়েছে। একই সঙ্গে বেড়েছে দেশটির রাজস্ব আয়। অন্যদিকে কমেছে দুর্নীতি ও সন্ত্রাসী অর্থায়ন। ফলে গোটা ভারতের অর্থনীতিতে এক ধরনের আমূল পরিবর্তন এনে দিয়েছে ক্যাশলেস লেনদেন।’

বুধবার (৪ অক্টোবর) রাজধানীর সোনারগাঁও হোটেলে মাইক্রো ইকোনমিতে ভারত সরকারের বিভিন্ন উদ্যোগ গ্রহণ ও সাফল্য বিষয়ে বক্তব্যকালে দেশটির অর্থমন্ত্রী অরুণ জেটলি এসব কথা বলেন।

অরুণ জেটলি বলেন, ‘২০১৪ সালের একটি জরিপে দেখা গেছে ভারতের ৪২ শতাংশ লোক ব্যাংকিং সুবিধার বাহিরে ছিল। যার বেশিরভাগ প্রত্যন্ত অঞ্চলের মানুষ। তাই পরবর্তীতে আমরা ডিজিটাল লেনদেনের উপর জোর দেই ও জনগণকে উৎসাহিত করি। এর ফলে নতুন করে ৩০ কোটি লোক ব্যাংকিং সুবিধার আওতায় আসে। বর্তমানে ৭০ শতাংশ লোক ব্যাংকিং সুবিধা পাচ্ছে। যার প্রধান কারণ ক্যাশলেস লেনদেন।’ 

তিনি বলেন, ‘অতীতে গ্রাহকরা ব্যাংকের দ্বারে দ্বারে ঘুরতো। কিন্তু এখন ক্যাশলেস লেনদেন শুরু হওয়ায় ব্যাংক গ্রাহকদের কাছে যাচ্ছে। এছাড়া ডিজিটাল পেমেন্ট চালু করায় ভারতে বেনামি ঋণ কমে আসছে।’

তিনি অারও বলেন, ‘গত বছর সরকার জনগণের হাতে থাকা নগদ অর্থ ব্যাংকে জমা দিতে বলে। এর ফলে বাজারে নগদ অর্থ প্রবাহ কমে যায়। একই সঙ্গে ব্যক্তি পর্যায়ে কার কাছে কত অর্থ আছে তা সরকারে হাতে তথ্য চলে আসে। ফলে সরকারের রাজস্ব বাড়ছে। কমেছে দুর্নীতি ও সন্ত্রাসী অর্থায়ন। আর এসব উদ্যোগের কারণে মোট দেশজ উৎপাদন (জিডিপি) নির্ণয় সহজ ও সঠিক হয়েছে।’

এসময় অর্থমন্ত্রী আবুল মাল আবদুল মুহিত বলেন, ‘তথ্য-প্রযুক্তি ব্যবহারে দুর্নীতি কমে। এই প্রযুক্তির ব্যবহার যতই বাড়বে ব্যবসায়িক কর্মকাণ্ডে সময় কমবে। একই সঙ্গে ব্যবসা-বাণিজ্যের খরচও কমছে।’

অনুষ্ঠানে ঢাকা ও সিলেটে ভারতে ই-ভিসা অফিসের আনুষ্ঠানিক উদ্বোধনসহ এক্সিম ব্যাংক অব ইন্ডিয়ার বাংলাদেশে শাখা চালু করা হয়। অনুষ্ঠানে বাংলাদেশে নিযুক্ত ভারতীয় হাইকমিশনার শ্রী হর্ষ বর্ধন শ্রিংলাসহ দুই দেশের বিশিষ্ট অর্থনীতি, ব্যবসায়ী ও রাজনৈতিক ব্যক্তিরা উপস্থিত ছিলেন।

ব্রেকিংনিউজ/ এমঅাই/ এসএ