শিরোনাম:

লেবুর ওজন ৩ কেজি!

স্টাফ করেসপন্ডেন্ট, ব্রেকিংনিউজ.কম.বিডি
প্রকাশিত : বৃহস্পতিবার, ২৭ জুলাই ২০১৭, ০২:১৬
অ-অ+
লেবুর ওজন ৩ কেজি!

সিলেট: আমাদের চারপাশের দুনিয়ায় প্রতিদিনই কোনও না কোনও আজগুবি ঘটনার জন্ম হয়। কানে শুনে কিংবা চোখে দেখে বিস্ময় প্রকাশ ছাড়া আর কিছুই করার থাকে না না এসব ঘটনায়। এবার তেমনই এক ঘটনার নাম ‘লেবুকাণ্ড’।  যেখানে বিশালাকার এক লেবুর ওজন প্রায় ৩ কেজি। দাম ৪০০ টাকা। 

এই লেবু দেখতে সিলেটের বাজারগুলোতে দর্শণার্থীদের ভিড় জমেছে। বিশাল আকৃতির এই লেবুর নাম ‘জারা’।

সবুজ সতেজ লেবুতে ভরা সিলেটের বাজার। নানা রকম নানা জাতের লেবু পাওয়া যাচ্ছে এখানকার বাজারে। এসব লেবুর স্বাদ ও আকারও ভিন্ন। দামেরও পার্থক্য অনেক। সাধারণ লেবু প্রতি হালির দাম ২৫-৩০ টাকা। আর জারা লেবু একটিই ৩-৪শ টাকায়ও বিক্রি হয় সিলেটের বাজারে। আকারে বিশাল ও খেতে সুস্বাদু হওয়ায় সিলেটে এ লেবুর চাহিদাও সর্বাধিক। এছাড়া এই লেবু ইংল্যান্ড, আমেরিকাসহ বিশ্বের কয়েকটি দেশে রফতানি হয়ে থাকে।

বৃহত্তর সিলেটের বিশেষ করে জৈন্তা, শ্রীমঙ্গল ও মৌলভীবাজারের পাহাড়ি অঞ্চলে এ জাতীয় লেবুর চাষ হয়ে থাকে। জারা চাষ করে ওইসব এলাকার অনেকেই এখন স্বাবলম্বীও হয়ে উঠেছেন।

জৈন্তাপুর উপজেলার হরিপুর বাজারের জারা লেবু ব্যবসায়ী বাবুল মিয়ার সঙ্গে কথা হলে তিনি ব্রেকিংনিউজকে বলেন, ‘জারা লেবু ৪শ টাকা থেকে শুরু করে হাজার টাকায়ও বিক্রি হয়। এক সময় বছরের নির্দিষ্ট সময় এসব লেবু পাওয়া যেত। এখন কম-বেশি বারো মাসই পাওয়া যায়। জারা লেবুর কদর বেড়েছে প্রবাসীদের মধ্যে। বিশেষ করে লন্ডন প্রবাসীরা জারা লেবু বেশি পছন্দ করেন।’

জানা যায়, বৃহত্তর সিলেটের বাজারে যেসব লেবু পাওয়া যায় এর মধ্যে জারা সবচেয়ে দামি। জারা সাধারণত ভাতের সঙ্গে খাওয়া হয়। এর রস যেমন-তেমন তবে ছোলা খেতে দারুণ মিষ্টি। আর এ জন্যই ক্রেতাদের কাছে এই লেবুর কদর বেশি।

এ ছাড়া রয়েছে ঠনা লেবু অর্থাৎ দেশি লেবু। এই লেবু ভাতের সঙ্গে চিবিয়ে খেতে মজা। চায়না লেবু, কাগজি লেবুর রসও ভালো হয়। তাই গরমে অনেকে এর রস দিয়ে শরবত তৈরি করেন। পাতি লেবু, আদা লেবু দিয়ে তরকারি রান্না হয় ভালো। যেগুলোকে সিলেটবাসী টেংগার খাটা বলেন (কিছুটা টক)।

লেবু বিক্রেতাদের সঙ্গে কথা বলে জানা যায়, রসে টুইটুম্বুর এবং খোসাও খাওয়া যায় বলে সিলেট অঞ্চলের ক্রেতাদের কাছে জারা লেবুর চাহিদা অধিক। এমনিতে সারা বছরই সিলেটে জারা লেবুর চাহিদা থাকে। কোরবানির ঈদে এ লেবুর চাহিদা আরও বেড়ে যায়। এ কারণে দামও কিছুটা বাড়ে। 

তবে বাড়তি চাহিদার কারণে সারা বছরই জারা লেবুর দাম বেশি থাকে বলে জানান বিক্রেতারা। 

জৈন্তাপুর উপজেলার হরিপুর বাজারে গিয়ে দেখা যায়, আকৃতি অনুসারে জারা লেবুর হালি ৫শ থেকে ২ হাজার টাকায় বিক্রি হচ্ছে। বড় সাইজের জারা লেবু হালি প্রতি ১৫শ থেকে ২ হাজার টাকা দরে বিক্রি হচ্ছে। আর ছোট ও মাঝারি সাইজের জারা লেবু বিক্রি হচ্ছে ৫শ’ থেকে থেকে ১ হাজার টাকায়।

ব্রেকিংনিউজ/এসটি/এমআর