শিরোনাম:

আমাকে ঘেরাও করেন, তবু রোগীদের সেবা দিন: স্বাস্থ্যমন্ত্রী

মেডিকেল করেসপন্ডেন্ট, ব্রেকিংনিউজ.কম.বিডি
প্রকাশিত : শনিবার, ১১ নভেম্বর ২০১৭, ১০:৩৬
অ-অ+
আমাকে ঘেরাও করেন, তবু রোগীদের সেবা দিন: স্বাস্থ্যমন্ত্রী
ফাইল ফটো

ঢামেক: চিকিৎসকদের উদ্দেশ্যে স্বাস্থ্যমন্ত্রী মোহাম্মদ নাসিম বলেছেন, ‘কোনো রোগীকে জিম্মি করে দাবি আদায় করা কখনও চিকিৎসকদের কাজ হতে পারে না। কালো ব্যাচ ধারণ করতে পারেন, প্রয়োজনে আমাকেও ঘেরাও করে রাখতে পারেন, তবুও চিকিৎসা বন্ধ করবেন না।’ 

শনিবার (১১ নভেম্বর) দুপুরে ঢাকা মেডিকেল কলেজের ৭২তম প্রতিষ্ঠাবার্ষিকী উপলক্ষে আয়োজিত অনুষ্ঠানে তিনি এসব কথা বলেন। 

চিকিৎসকদের উদ্দেশ্য করে স্বাস্থ্যমন্ত্রী বলেন, ‘দেশের মানুষের স্বাস্থ্যসেবা নিশ্চিত করতে প্রধানমন্ত্রী অত্যন্ত আন্তরিক। আপনারাও রোগীকে এতো কম সময় দেবেন না। একটু বেশি সময় নিয়ে তাদের ভালো করে দেখুন।’ 

তিনি বলেন, ‘শিক্ষা নিয়ে বাংলাদেশে ব্যবসার প্রবণতা আছে। রয়েছে চিকিৎসা ক্ষেত্রেও। যা অত্যন্ত খারাপ কাজ। উপমহাদেশের অন্যতম চিকিৎসা প্রতিষ্ঠান ঢাকা মেডিকেল কলেজ হাসপাতাল। এখানে দিনমজুর, কৃষকসহ বিভিন্ন শ্রেণি-পেশার মানুষ চিকিৎসা নিতে আসেন ।’

স্বাস্থ্যমন্ত্রী আরও বলেন, ‘প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা পরপর দুইবার ক্ষমতায় আছেন বলেই গ্রামীণ পর্যায়ে স্বাস্থ্যসেবা পৌঁছানো সম্ভব হয়েছে। তিনি আছেন বলেই লাখ লাখ রোহিঙ্গা আশ্রয় পাচ্ছে। চিকিৎসা পাচ্ছে।’ 

এ সময় বিএনপি-জামায়াত সরকারের আমলের বিভিন্ন বিষয় তুলে ধরেন এবং বলেন তাদের আমলে  উন্নয়ন মুলক কোন কাজ হয়নি। প্রতিষ্ঠাবার্ষিকীর অনুষ্ঠানমালার প্রধান অতিথি মোহাম্মদ নাসিম। 

এর আগে সকাল ৮টায় বর্ণাঢ্য শোভাযাত্রার মধ্য দিয়ে শুরু হয় ৭২তম প্রতিষ্ঠাবার্ষিকীর অনুষ্ঠানমালা। এরপরই শুরু হয় কলেজের সাবেক শিক্ষার্থীদের মধ্যে স্মৃতিচারণ। 

পরে জাতীয় পতাকা উত্তোলন করা হয়। এ উপলক্ষে কলেজের ডা. মিলন চত্বরে যেন চিকিৎসকদের মিলন মেলা বসেছে।

অনুষ্ঠানের মূল পর্ব শুরু হয় দুপুর ১২টায়। এ পর্বে বিশেষ অতিথি ছিলেন স্বাস্থ্য প্রতিমন্ত্রী ডা. জাহিদ মালেক। উপস্থিত ছিলেন জাতীয় অধ্যাপক ডা. শাহলা খাতুন, প্রধানমন্ত্রীর সাবেক স্বাস্থ্য উপদেষ্টা অধ্যাপক ডা. মোদাচ্ছের আলী, ঢাকা মেডিকেল কলেজের অধ্যক্ষ অধ্যাপক খান আবুল কালাম আজাদ, সাবেক পররাষ্ট্র মন্ত্রী ডা. দীপু মনি প্রমুখ। 

অনুষ্ঠানে সভাপতিত্ব করেন বাংলাদেশ মেডিকেল অ্যাসোসিয়েশনের সভাপতি ডা. মোস্তফা জালাল মহিউদ্দিন।

ব্রেকিংনিউজ/ডিএমসি/এএইচ/এমআর