শিরোনাম:

বন্ধ সিমের অর্থ ফেরত পেতে বিটিআরসি’র পদক্ষেপ

স্টাফ করেসপন্ডেন্ট, ব্রেকিংনিউজ.কম.বিডি
প্রকাশিত : বৃহস্পতিবার, ১২ অক্টোবর ২০১৭, ০৩:৪২
অ-অ+
বন্ধ সিমের অর্থ ফেরত পেতে বিটিআরসি’র পদক্ষেপ

ঢাকা: বন্ধ হয়ে যাওয়া মোবাইল সিমের (ব্লকড) অব্যবহৃত অর্থ ফেরত নিতে শক্ত অবস্থানে যাচ্ছে বিটিআরসি। দেড় বছরের বেশি সময় আগের নির্দেশনা না মানায় এ পদক্ষেপ নিতে যাচ্ছে নিয়ন্ত্রক সংস্থাটি। পাশাপাশি গ্রাহকের বন্ধ সিমে থাকা অব্যবহৃত ব্যালেন্স বিটিআরসি’র কাছে ফেরত দেওয়ার বিধান যোগ করা হয়েছে ফোরজি’র নীতিমালায়। তবে বিষয়টিতে আপত্তি জানিয়েছে অপারেটরগুলো।

জানা গেছে, একমাত্র গ্রামীণফোন ছাড়া বন্ধ হয়ে যাওয়া সিমে থাকা অব্যবহৃত ব্যালেন্স ফেরত দেয়নি অন্য অপারেটররা। তাদের কাছে অন্তত ৪০ থেকে ৫০ কোটি টাকার অব্যবহৃত ব্যালেন্স জমা আছে।

সংশ্লিষ্ট সূত্রে আরও জানা গেছে, গত বছরের শেষ দিকে অবৈধ কল টার্মিনেশনের অভিযোগে ২০০৮ সালের মে মাস থেকে ২০১৪ সালের ডিসেম্বর পর্যন্ত অব্যবহৃত ব্যালান্স বিটিআরসির কাছে ফেরত দিতে নির্দেশনা জারি করা হয়।

নির্দেশনা মেনে ৯ কোটি ৩৭ লাখ টাকার বিপরীতে সাত কোটি ৩৪ লাখ টাকা ফেরত দিয়েছে গ্রামীণফোন। এর মধ্যে ১৫ শতাংশ ভ্যাট হিসেবে আগেই এনবিআরকে দিয়েছে। আরও ১০ শতাংশ তারা অন্যান্য কর হিসাবে কেটে রেখে বাকি টাকা কমিশনে জমা করে।

জিপির ২৫ লাখ ৪২ হাজার সিমে এ পরিমাণ ব্যালান্স জমা ছিল বলে জানিয়েছে গ্রামীণফোন। আর এ টাকা জমা দেওয়ায় এখন তারা নতুন করে এ সিমগুলো বিক্রি করতে পারবে। অন্যদিকে বাকি পাঁচ অপারেটরকে বিটিআরসি অব্যবহৃত ব্যালান্স ফেরত না দেওয়ার কারণ জানাতে প্রথমে সাত দিন সময় দিয়ে চিঠি দেয়। প্রথম দিকে অপারেটরগুলো বলেছে, তাদের কাছে এ বিষয়ে প্রকৃত তথ্য নেই। পরে আবার কড়া চিঠি দেওয়া হলেও সাড়া দেয়নি অপারেটরগুলো।

ব্রেকিংনিউজ.কম.বিডি/ ইহক/ এমএইচ