শিরোনাম:

ষোড়শ সংশোধনীর রায় ‘পেনড্রাইভ জাজমেন্ট’: তাপস

স্টাফ করেসপন্ডেন্ট, ব্রেকিংনিউজ.কম.বিডি
প্রকাশিত : বৃহস্পতিবার, ১৭ অগাস্ট ২০১৭, ০৬:৫১
অ-অ+
ষোড়শ সংশোধনীর রায় ‘পেনড্রাইভ জাজমেন্ট’: তাপস
ফাইল ফটো

ঢাকা: সংবিধানের ষোড়শ সংশোধনীকে অবৈধ ঘোষণা করে আপিল বিভাগের দেয়া রায়কে ‘পেনড্রাইভ জাজমেন্ট’ বলে আখ্যায়িত করেছেন বঙ্গবন্ধু আওয়ামী আইনজীবী পরিষদের সদস্য সচিব ব্যারিস্টার ফজলে নুর তাপস।

বৃহস্পতিবার (১৭ আগস্ট) সুপ্রিম কোর্ট আইনজীবী সমিতির দক্ষিণ হলে বঙ্গবন্ধু আওয়ামী আইনজীবী পরিষদের এক প্রতিবাদ সমাবেশে তিনি এ মন্তব্য করেন। 

ব্যারিস্টার তাপস বলেন, ‘ষোড়শ সংশোধনীর রায়ে যে উক্তিগুলা দেয়া হয়েছে আমি বলতে চাই এটা হলো পেনড্রাইভ জাজমেন্ট।’

তিনি বলেন, ‘কোথা থেকে, কোন পেনড্রাইভ থেকে, কোন ল্যাপটপ থেকে এই রায়ের উৎপত্তি হয়েছে সেটা আমাদের জানা আছে। এই ষড়যন্ত্রের মুখোশ আমরা অচিরেই জনগণের কাছে উন্মোচন করবো।’

ব্যারিস্টার ফজলে নুর তাপস বলেন, ‘ষোড়শ সংশোধনীর রায়ের একটি জায়গায় যে উক্তি করা হয়েছে তার একটি বক্তব্য আপনাদের সামনে তুলে ধরি। তাতে সংসদকে বলা হয়েছে, সংসদ নাকি ম্যাচিউরড না। আমি এ কথার নিন্দা জানাই।’

তিনি বলেন, ‘উদাহরণ দিয়ে বলবো ওনারা (বিচারপতিরা) কেমন ম্যাচিউরড। তিন বছরেও একজন যুদ্ধাপরাধী তার রায়ের কপি হাতে পায় নাই। এটা হলো তাদের ম্যাচিউরিটি।’

‘ছয় মাসের মধ্যে রায় লিখে দিতে হবে’ প্রধান বিচারপতির এমন বক্তব্য উপস্থাপন করা নিয়ে ব্যারিস্টার তাপস বলেন, ‘তাহলে একজন ভুক্তভোগী তার রায় পাওয়ার পরও ছয়মাস কি সুপ্রিম কোর্টের দুয়ারে ঘুরে বেড়াবে? এই হলো তাদের ম্যাচিরিটি।’

তিনি বলেন, ‘তারা ম্যাচিউরিটির কথা বলে। অথচ বিভিন্ন ক্লাবে সন্ধ্যার পর গেলে দেখা যায় আমাদের এই জাজেরা তাদের বিভিন্ন কার্যকলাপে লিপ্ত। আমরা এর নিন্দা জানাই। এবং লজ্জার বিষয় হলো এজলাসে না বসে তারা ঢাকা ক্লাবে ঘুরে বেড়ায়। আরও কি করে সেটা আমি এখানে প্রকাশ করতে চাই না। জনগণ সেটা জানে। সুতরাং এই হলো তাদের ম্যাচিউরিটি।’

এ সময় হুঁশিয়ার উচ্চারণ করে তিনি বলেন, ‘সময় থাকতে আপনাদের যদি সম্মানবোধ থাকে তাহলে অবিলম্বে এই রায়ের অপ্রাসঙ্গিক বিষয়গুলো অপসারণ করবেন এবং এই রায় বাতিল করবেন।’

সারা দেশব্যাপী আইনজীবীদের এ আন্দোলন চলবে বলেও তিনি জানান।

এ সময় সংগঠনের আহ্বায়ক আইনজীবী সমিতির সাবেক সভাপতি ইউসুফ হোসেন হুমায়নসহ বঙ্গবন্ধু আওয়ামী পরিষদের সদস্যরা উপস্থিত ছিলেন।

ব্রেকিংনিউজ/এজেডখান/এমআর