শিরোনাম:

ইউনাইটেড হাসপাতালের এমডিসহ ২ জনের বিরুদ্ধে মামলা

স্টাফ করেসপন্ডেন্ট
প্রকাশিত : বৃহস্পতিবার, ১১ জানুয়ারী ২০১৮, ০৬:১০
অ-অ+
ইউনাইটেড হাসপাতালের এমডিসহ ২ জনের বিরুদ্ধে মামলা

হোল্ডিং ট্যাক্স বাবদ সাড়ে ২১ কোটি টাকা আত্মসাতের দায়ে ইউনাইটেড হাসপাতালের ব্যবস্থাপনা পরিচালক (এমডি) ফরিদুর রহমান খানসহ দুইজনের বিরুদ্ধে মামলা করেছে দুর্নীতি দমন কমিশন (দুদক)।

মামলায় অপর আসামি হলেন অবিভক্ত ঢাকা সিটি কর্পোরেশনের সাবেক কমিশনার মিসেস রহিমা বেগম।

বৃহস্পতিবার (১১ জানুয়ারি) রাজধানীর গুলশান থানায় দুদকের উপপরিচালক মাহাবুবর রহমান বাদি হয়ে মামলাটি দায়ের করেন। দুদকের জনসংযোগ কর্মকর্তা প্রনব কুমার ভট্টাচার্য্য এসব তথ্য জানান।

মামলার এজাহার সূত্রে জানা যায়, দুদকের অনুসন্ধান টিম অনুসন্ধানকালে প্রাপ্ত রেকর্ডপত্র অনুসারে ২০০৬ সালের ২৪ আগস্টে গুলশান-২  আবাসিক এলাকায় (প্লট নং- ১৫, রোড নং- ৭১)  ৮তলা ভবনের নির্মাণ কাজ সমাপ্ত হয়। কিন্তু ভবনটিতে কন্টিনেন্টাল হাসপাতাল নামে কার্যক্রম শুরু হয়। পরবর্তীতে ২০০৭ সালে মালিকানা ও নাম পরিবর্তন হয়ে ইউনাইটেড হাসপাতাল লিমিটেডের কার্যক্রম শুরু হয়।

দুদকের অনুসন্ধানে দেখা যায়, ডিসিসির সাবেক কমিশনার রহিমা বেগম ও ইউনাইটেড হাসপাতালের এমডি ফরিদুর রহমান খান পরস্পর যোগসাজশে ক্ষমতার অপব্যবহার এবং অন্যায়ভাবে হাসপাতালের কার্যক্রম চালায়। শুরু থেকে ২০১১ সালের ৩১ ডিসেম্বর পর্যন্ত ঢাকা সিটি কর্পোরেশন কর্তৃক নির্ধারিত হোল্ডিং ট্যাক্স তথা সরকারি রাজস্ব বাবদ মোট ২১ কোটি ৪৪ লাখ ২৬ হাজার ৯৯৩ টাকা পরিশোধ না করে নিজেরা অন্যায়ভাবে লাভবান হয়েছেন। যা দুদক আইনের দন্ডবিধির ৪০৯/১০৯ ধারা এবং ১৯৪৭ সনের দুর্নীতি প্রতিরোধ আইনের ৫(২) ধারায় দন্ডনীয় অপরাধ।

২০১২ সালের শেষের দিকে অনুসন্ধান শুরু করেছিল দুদক। তদন্তকালে বর্ণিত ঘটনার সাথে অন্য কারো সংশ্লিষ্টতা ও অন্য কোন তথ্য পাওয়া গেলে তা আমলে নেওয়া হবে বলেও এজাহারে উল্লেখ করা হয়।

ব্রেকিংনিউজ/ এমআই/ এমএইচ