শিরোনাম:

প্রাক্তন প্রেমিকার প্রোফাইল ঘাটেন!

লাইফস্টাইল ডেস্ক, ব্রেকিংনিউজ.কম.বিডি
প্রকাশিত : শনিবার, ১২ অগাস্ট ২০১৭, ০৩:৫৮
অ-অ+
প্রাক্তন প্রেমিকার প্রোফাইল ঘাটেন!
ছবি: ইউটিউব

ঢাকা: প্রেম জীবনে একবারই আসে। আর মনও মানুষ একবারই দেয়। এরকম কথাই তো হওয়া উচিত তাই তো! এই প্রযুক্তির যুগে এসব কথার কোন ভিত্তি নেই। এখন মানুষ মন অনেকবার দেয়া নেয়া করে। সেটা শুধু প্রযুক্তির যুগেও নয়, পৃথিবী সৃষ্টির পর থেকেই তা হয়ে আসছে।

আপনার খুব ভাল সম্পর্ক কোন নারীর সাথে। একদিন হঠাৎ করেই হয়তো যে কোন কারণেই হোক সেই নারীর সাথে আপনার সম্পর্ক শেষ হয়ে গেছে। তার সাথে কাটানো দিনগুলো আপনি কোনভাবেই ভুলতে পারছেন না। আর এ কারণেই আপনি দিনদিন মানসিকভাবে বিপর্যস্ত হয়ে পড়ছেন।

প্রাক্তন সঙ্গীর সোশ্যাল মিডিয়া অ্যাকাউন্ট যতবারই দেখেন ততবারই তার একটা ভুল ব্যাখ্যা মনের ভেতর উঁকি দেয়। মনের মধ্যে থেকে যাওয়া না মেলা প্রশ্নের উত্তর আর আশ্চর্য অনুভূতিমালাই এর জন্য দায়ী। তৈরি হতে থাকে বিভ্রম।  

বিশেষজ্ঞদের মতে, এর নাম ‘গ্র্যান্ড সোশ্যাল মিডিয়া ইলিউশন’।  সম্পর্ক শেষ হওয়ার পরে সোশ্যাল মিডিয়ায় প্রাক্তনের পোস্ট করা ছবি দেখে মনে হতে থাকে ব্রেক আপের পরে সে কত ভাল আছে। যত এমন মনে হতে থাকে, ততই কষ্ট এসে চেপে ধরতে থাকে। তার ওপর যদি দেখা যায়, তার সঙ্গে নতুন কারও আলাপ হয়েছে, তাহলে সেই কষ্ট আরও বহুগুণ বেড়ে যেতে থাকে। পুরনো ভালবাসার মানুষটিকে আনফলো, আনফ্রেন্ড এমনকি, ব্লক করে দেওয়ার পরেও কৌতূহলের বশে বার বার তার খবর জানার ইচ্ছে মনের মধ্যে পাক খেতে থাকে। কাজেই এটাই স্বাভাবিক যে আপনি আপনার প্রাক্তনের প্রোফাইল ঘেঁটে দেখবেন। ব্যাপারটায় যতই পাগলামি থাকুক, এছাড়া সত্যিই কোনও উপায় যেন নেই বলে মনে হয়।

হয়তো আপনি মনে মনে নিজেকে বুঝিয়ে নিলেন, ‘নাহ্, আর দেখব না।’ কিন্তু তাতেও লাভ হয় না। বরং আরও নতুন করে ইচ্ছেটা আপনার মধ্যে জাঁকিয়ে বসতে থাকে। কাজেই আপনাকে এর থেকে বেরিয়ে আসতে গেলে একটা নির্দিষ্ট পদ্ধতির মধ্যে দিয়েই যেতে হবে, অন্যথায় এই গোলকধাঁধার মধ্যেই আপনাকে ঘুরে মরতে হবে।  তাহলে আসুন জেনে নেয়া যাক এই ‘অসুখ’ থেকে বেরিয়ে আসার সহজ উপায়।

প্রথমত, আপনাকে দেখতে হবে প্রাক্তন সঙ্গীর ছবি ও পোস্ট দেখলে ঠিক কেন আপনার খারাপ লাগছে। সেই জায়গাগুলো খুঁজে বের করে আস্তে আস্তে এর থেকে বেরিয়ে আসতে হবে।  

আপনাকে ছেড়েও আপনার সঙ্গী খুব ভাল আছে, এ কথা ভাবা কমান।

যদি নিজেকে প্রতারিত ভাবতে থাকেন তাহলেও কষ্ট পাবেন। হতেই পারে আপনার সম্পর্কের একেবারে শেষের দিনগুলোয় এমন কিছু ঘটেছে, যা অত্যন্ত খারাপ ও অস্বাস্থ্যকর, আপনাকে কষ্ট দিবেই সেই স্মৃতি।

যারা নিজেদের কৃতজ্ঞতা অফলাইন ও অনলাইন- উভয়ই দেখান, তারা অবশ্য ব্রেক আপের পরে পাওয়া কষ্ট নিয়ে অতটা ভাবেন না।

নিজেকে দোষী ভাবা অভ্যাস করুন। দেখবেন, অন্যকে দোষী না ভাবার কারণে খুব দ্রত কষ্ট পাওয়া থেকে বেরিয়ে আসবেন।

মন ঠাণ্ডা করে যদি সত্যিটা আসলে কী সেটা ভাবার ক্ষমতা থাকে, তাহলে প্রাক্তন সঙ্গীর ছবি দেখে ভুলভাল ধারণা করা বন্ধ হবে।

কাজটা সহজ নয়। কিন্তু আস্তে আস্তে এই কথাগুলো মাথায় রেখে নিজেকে সামলে নিলে ব্যাপারটা থেকে বেরিয়ে আসা সম্ভব। নিশ্চয়ই একদিনে হবে না, কিন্তু চেষ্টা করলে এর থেকে রেহাই পাওয়াটা অসম্ভব নয়।

ব্রেকিংনিউজ.কম.বিডি/এসজেড