শিরোনাম:

বিবিসির লাইভে পর্নো ভিডিও!

নিউজ ডেস্ক, ব্রেকিংনিউজ.কম.বিডি
প্রকাশিত : বৃহস্পতিবার, ১০ অগাস্ট ২০১৭, ০৪:৩০
অ-অ+
বিবিসির লাইভে পর্নো ভিডিও!
ছবি: ইউটিউব

ঢাকা: যুক্তরাজ্যভিত্তিক গণমাধ্যম বিবিসির খবরের সাথে পর্নো ভিডিও দেখে ফেলল দর্শক! এমন ঘটনাই ঘটেছে বিবিসির রাত ১০টার খবরে।

হাফিংটন পোস্টের প্রতিবেদনে বলা হয়, গত সোমবার রাত ১০টায় বিবিসির ‘নিউজ অ্যাট টেন’-এ এই ঘটনা ঘটে। 

সেই খবরের উপস্থাপিকা ছিলেন সোফি রাওয়ার্থ। তার পেছনে ছিল লাইভ নিউজ রুম। সেখানে কম্পিউটারে বসে কাজ করছেন অনেকেই। খবর পড়ার সময় সোফির পেছনে এক কর্মীর কম্পিউটারে হঠাৎ করে ‘পর্নো ভিডিও’ চালু হয়ে যায়। এতে খবরের সঙ্গে সঙ্গে সেই দৃশ্যও দেখে ফেলেন লাখো দর্শক।

লন্ডনে বিবিসির ব্রডকাস্টিং হাউস থেকে সে সময় ক্রিকেটে দক্ষিণ আফ্রিকার বিরুদ্ধে ইংল্যান্ডের জয়ের খবর দেখানো হচ্ছিল।

ওই প্রতিবেদনে বলা হয়, বিবিসির ওই পর্নো দৃশ্যসহ খবরটি প্রায় ৩৮ লাখ দর্শক দেখেছেন। অনেকে বিষয়টি নিয়ে টুইটও করেছেন। পরে ভিডিওটি ভাইরাল হয়ে যায়।

টুইট বার্তায় একজন লিখেছেন, ‘বিবিসি নিউজে সংবাদ উপস্থাপক খবর পড়ার সময় কেন পর্নো ভিডিও চালু করা হলো?’

বিবিসির একটি সূত্র জানিয়েছে, এই ঘটনায় ‘একটি বড় বেলুন চুপসে যাওয়ার মতো অবস্থা’ হয়েছে বিবিসির। এটা আনাড়ির মতো একটা কাজ হয়েছে।

লিন্ডসে রবিনসন নামের একজন দর্শক ভিডিওটি দেখে সঙ্গে সঙ্গেই তার ফেসবুক পেজে পোস্ট করেছেন। ওই পোস্টে তিনি লিখেছেন, ‘কেউ কী গত রাতে বিবিসির এই ভিডিওটি দেখেছেন?’

ইন্টারনেটে ছড়িয়ে পড়া এ দৃশ্য নিয়ে টুইটারে বেশ সমালোচনাও শুরু হয়েছে। জানে জাওয়ার্ড নামের একজন টুইটারে প্রশ্ন তুলেছেন, ‘বিবিসি নিউজ আপনার সংবাদ উপস্থাপকের পিছনে কেনো পর্নগ্রাফি চলছে?’

মুসেদ নামের আরেকজন প্রশ্ন করেছেন, ‘১০টার সংবাদে আমি কি কেবল স্তন দেখেছি?’ তবে বিবিসির পক্ষ থেকে বলা হয়েছে, কাজের অংশ হিসেবেই ওই কর্মী ওটা দেখছিলো। তবে এটা ইতোমধ্যেই ভিন্ন মানে দাঁড় করিয়ে দিয়েছে বলে জানিয়েছে দ্য টেলিগ্রাফ নিউজ।

প্রতিবেদনে বলা হয়, এ ঘটনায় বিবিসি স্পষ্ট করে তেমন কিছু বলেনি। তবে প্রতিষ্ঠানটি এ ঘটনায় তদন্তের নির্দেশ দিয়েছে। বিবিসির একজন মুখপাত্র বলেন, ‘আসলেই কী ঘটনা ঘটেছে, তা খতিয়ে দেখা হবে।’

ব্রেকিংনিউজ.কম.বিডি/এসজেড