শিরোনাম:

জেদ্দাহ বিমানবন্দরে ইমিগ্রেশন হয়রানী বেড়েই চলছে

নিউজ ডেস্ক
প্রকাশিত : বুধবার, ১০ জানুয়ারী ২০১৮, ১১:০৭
অ-অ+
জেদ্দাহ বিমানবন্দরে ইমিগ্রেশন হয়রানী বেড়েই চলছে

সৌদি আরবের জেদ্দাস্থ কিং আব্দুল আজিজ বিমান বন্দরে ওমরাহ ও হজ্জ পালনে গমনকারী যাত্রীদের সাথে ইমিগ্রেশন কর্তৃপক্ষের দুর্ব্যবহার অসদাচরণ বেড়েই চলেছে।
 
জানা যায়, যাত্রীর তুলনায় ইমিগ্রেশন অফিসারের সংখ্যা কম থাকে। ফলে ৪/৫ ঘণ্টা লাইনে দাঁড়িয়ে থাকতে হয়। ফলে একদিকে দীর্ঘ সময় দাঁড়িয়ে থাকা ও পরে ইমিগ্রেশন কর্তাদের অশোভন আচরণ অনেকের কাছে নরক যন্ত্রণার মতই মনে হয়। মুসলমানদের অন্যতম ধর্মীয় অনুষ্ঠান হজ্জ বা ওমরা পালন করতে গিয়ে সৌদি আরবের মতো একটি মুসলিম দেশের ইমিগ্রেশন সেকশন থেকে যেরকম ব্যবহার পাওয়ার আশা ছিল তা থেকে বঞ্চিত হচ্ছেন অনেকেই।
 
গত ১৮ ডিসেম্বর ব্রিটেন থেকে সৌদি আরবে যাওয়া ৪৮ যাত্রীর সাথে অত্যন্ত অশোভন আচরণ করা হয়েছে। অযোগ্য ইমিগ্রেশন অফিসাররা যাত্রীদের পাত্তাই দিতে চায় না। তাদের সুপারভাইজারদের সাথে যোগাযোগ করেও কোন ফল হয়নি। বরং তারা বিমানবন্দরে ঘুমিয়ে থাকার জন্য বলে। এ ব্যাপারে ভয়েস অফ জাস্টিস, ইউকের পক্ষ থেকে লন্ডনস্থ সৌদি দূতাবাসে অভিযোগ দায়েরের উদ্যোগ নেয়া হয়েছে। জেদ্দাহ বিমানবন্দরে বিদেশী যাত্রীদের সাথে হয়রানি ও অসদাচরণ বন্ধ ও অযোগ্য ইমিগ্রেশন অফিসারদের প্রত্যাহার করা জোর দাবি জানানো হয়েছে।
 
ব্রেকিংনিউজ/জিসা