শিরোনাম:

বিবিসি’র বিপক্ষে এন’হীন এমএস

স্পোর্টস ডেস্ক
ব্রেকিংনিউজ.কম.বিডি
প্রকাশিত : রবিবার, ১৩ অগাস্ট ২০১৭, ০৪:৪৯
অ-অ+
বিবিসি’র বিপক্ষে এন’হীন এমএস

ঢাকা: নেইমার যখন একই দিনে ১৮,২৫০ জন দর্শকের সামনে নিজের প্যারিস অভিষেক ঘটাতে যাচ্ছেন, ঠিক একই সময়ে বার্সেলোনাও ৯৯,৩৫৪ জন দর্শকের সামনে ন্যু ক্যাম্পে রিয়ালের বিপক্ষে এল ক্লাসিকোতে নামছে। আজ বাংলাদেশ সময় রাত দুইটায় মাঠে নামছে এই দুই চিরপ্রতিদ্বন্দ্বি দল।

এই ম্যাচে রিয়াল তাদের আক্রমণভাগে নামবে বিবিসি ত্রয়ীকে নিয়ে। কিন্তু বার্সায় এমএসএন ত্রয়ী ভেঙে এখন শুধু এমস-ই আছে। নেইমারবিহীন বার্সেলোনা এখনও কতটুকু শক্তিশালী তা দেখতে অপেক্ষা করতে হবে ভোরবেলা পর্যন্ত। যদিও রিয়াল বস ইতোমধ্যেই বার্সার শক্তিমত্তা এবং তাদের খেলার কৌশল নিয়ে প্রশংসায় মেতেছেন।

তবে সবচেয়ে চাপে আছেন যিনি, তিনি বার্সেলোনার নয়া কোচ ভালভার্দি। তার জন্য নতুন চ্যালেঞ্জের শুরু আজ থেকেই। যদিও যুক্তরাষ্ট্রে ইতোমধ্যেই আরেকটি এল ক্লাসিকোতে তার পরীক্ষা হয়েছিলো। তাতে উত্তীর্ণ তিনি। কিন্তু ন্যু ক্যাম্পে তার যুগের উত্থান আজই।

মেসি, সুয়ারেজ থাকলেও ভালভার্দির প্রথম পরীক্ষায় থাকছেন না আর্দা তুরান, মারলোন সান্তোস, মুনির হাদ্দাদি ও সার্জেই স্যাম্পারের মতো ফুটবলাররা।

বেশ আশাবাদী ভালভার্দি। ম্যাচ পূর্ব সংবাদ সম্মেলনে তিনি জানান, ‘শিরোপার প্রশ্নে কোন ছাড় দেবার প্রশ্নই ওঠেনা। প্রাক মৌসুমে মেসির ফর্ম আত্মবিশ্বাস যোগাচ্ছে। রিয়াল মাদ্রিদও জেতার জন্য মরিয়া, ওদের বেশকজন নতুন প্রতিভাবান ফুটবলার আছে দলে। কঠিন একটা ম্যাচ হবে নিঃসন্দেহে।’

নেইমারের বার্সা ছাড়ার ব্যাপারটিতে শুধু যে বার্সেলোনাই মর্মাহত হয়েছে তা না। চিরপ্রতিদ্বন্দ্বি রিয়াল মাদ্রিদও যে ব্রাজিলিয়ান সুপারস্টারকে মিস করছে, তা বুঝা গেলো বিশ্বসেরা কোচ জিনেদিন জিদানের বক্তব্যে।

মৌসুম শুরুর আগের এল ক্লাসিকো পুরো বিশ্ব দেখবে রবিবার রাতেই। কিন্তু এই এল ক্লাসিকো যেন প্রাণচাঞ্চল্য হারাচ্ছে নেইমার ছাড়া! জিদানও বুঝালেন সে রকমই! ম্যাচ পূর্ব সংবাদ সম্মেলনে জানালেন, বার্সায় নেইমারের পরিবর্তে যেই আসুক, সে তো নেইমার হতে পারবে না!’

সংবাদ সম্মেলনের শুরুতেই তিনি নেইমার প্রসঙ্গ টেনে জানান, ‘আগামীকাল যেই খেলুক নেইমারের পরিবর্তে সে তো নেইমার না। কারণ সে খুবই মেধাবী, অন্যরা তার মতো এতো ভালো না। সেখানে নেইমারের মতো এত বেশি খেলোয়াড় নেই।’

কিন্তু বার্সাকে বার্সার মর্যাদা দিতে মোটেও ভুললেন না জিজু। মেসির বার্সেলোনা যেকোনো মুহূর্তে যেকোনো কিছু ঘটিয়ে দিতে পারে, সেই বিশ্বাস এবং অভিজ্ঞতা দুই-ই আছে জিদানের। সংবাদ সম্মেলনে জানালেন, ‘ অপরপক্ষে তারা (বার্সা) খেলার মোড় ঘুরাতে পারে। দিন শেষে তো বার্সেলোনা বার্সেলোনাই।’

মেসি-ইনিয়েস্তা কিংবা পিকেরা কিভাবে খেলে তা তো জানেন জিদান। কারণ প্রতিপক্ষ বস হিসেবে প্রায়ই তো মাঠে থাকতে হয় তাকে। জানালেন, ‘আমরা জানি তারা কিভাবে খেলে। সেই খেলার তো পরিবর্তন হবে না। তাদের পরকিল্পনারও পরিবর্তন হবে না।’

ছুটি কাটিয়ে পুরো ছন্দে ফেরার অপেক্ষায় ক্রিস্টিয়ানো রোনালদো। ইউয়েফা সুপার কাপে শেষ দশ মিনিট নেমেছিলেন পর্তুগিজ স্টার। গোল না পেলেও পুরো মৌসুমের জন্য নিজেকে তৈরি করে নিয়েছেন। নিষেধাজ্ঞার কারণে এই ম্যাচে খেলতে পারবেন না লুকা মডরিচ। তার বদলি হতে পারেন মাতেও কোভাচিচ।

ব্রেকিংনিউজ/ইএইচ