শিরোনাম:

গুয়ামে ক্ষেপণাস্ত্র হামলার বিষয়ে ব্রিফিং করলেন কিম

আন্তর্জাতিক ডেস্ক
ব্রেকিংনিউজ.কম.বিডি
প্রকাশিত : মঙ্গলবার, ১৫ অগাস্ট ২০১৭, ১০:১৬
অ-অ+
গুয়ামে ক্ষেপণাস্ত্র হামলার বিষয়ে ব্রিফিং করলেন কিম

ঢাকা: উত্তর কোরিয়ান নেতা কিম জং উন প্রশান্ত মহাসগরের মার্কিন ঘাঁটি গুয়ামে ক্ষেপণাস্ত্র হামলার পরিকল্পনার বিষয়ে ব্রিফিং করেছেন। দেশটির রাষ্ট্রীয় গণমাধ্যমের বরাত দিয়ে বিবিসি অনলাইন এখবর জানিয়েছে। 

প্রতিবেদনে বলা হয়েছে, গুয়ামে ক্ষেপণাস্ত্র হামলা চালানোর আগে তিনি মার্কিন পদক্ষেপ পর্যবেক্ষণ করবেন।

গত সপ্তাহে উত্তর কোরিয়া জানায়, তারা গুয়ামে চারটি ক্ষেপণাস্ত্র হামলা চালাবে, যেখানে মার্কিন বোমারু বিমানঘাঁটি রয়েছে। উত্তর কোরিয়া ও যুক্তরাষ্ট্রের মধ্যে উত্তপ্ত বাক্য বিনিময়ের মধ্যে পিয়ংইয়ং ওই ঘোষণা দেয়।

উত্তর কোরিয়ার রাষ্ট্রীয় সংবাদ মাধ্যম কেসিএনএ জানিয়েছে, কিম জং উন দীর্ঘমেয়াদি পরিকল্পনা করছেন, তিনি এই ক্ষেপণাস্ত্র পরীক্ষার বিষয়ে দেশটির ঊর্ধ্বতন সামরিক কর্মকর্তাদের সঙ্গে  বৈঠক করবেন। 

উত্তর কোরিয়ার কৌশলগত বাহিনীর কমান্ডার কিমের নির্দেশের অপেক্ষায় আছেন বলে প্রতিবেদনে বলা হয়েছে।

কিম বলেছেন, ‘মার্কিন যুক্তরাষ্ট্র আমাদের ওপর অনেক কৌশলগত পারমাণবিক হামলা চালাতে চেয়েছিল, তাদেরকে প্রথমে সঠিক সিদ্ধান্ত নিতে হবে এবং কাজে তা প্রমাণ করতে হবে। তারা কোরিয়ান উপদ্বীপে উত্তেজনা প্রশমিত করতে এবং একটি বিপজ্জনক সামরিক সংঘর্ষ প্রতিরোধ করতে চান কিনা।’

তবে তিনি সেনাবাহিনীকে ক্ষেপণাস্ত্র হামলা চালানোর জন্য প্রস্তুত থাকতে বলেছেন বলে প্রতিবেদনে বলা হয়েছে। 

এরআগে মার্কিন প্রতিরক্ষা সচিব জেমস ম্যাটিস সর্তক করেছেন, উত্তর কোরিয়া যদি কোনো হামলা চালায় তাহলে তা যুদ্ধে মোড় নেবে। তিনি আরও বলেন, মার্কিন সেনাবাহিনী যে কোনো ধরনের হামলা প্রতিহত করতে সব সময় প্রস্তুত রয়েছে। 

দক্ষিণ কোরিয়া এই সমস্যা সমাধানে যুক্তরাষ্ট্রকে কূটনৈতিক সমাধানে আসার অনুরোধ জানিয়েছেন। একইসঙ্গে উত্তর কোরিয়াকে সব ধরনের উত্তেজক এবং প্রতিকূল কাজ বন্ধের আহ্বান জানিয়েছেন। 

গত সপ্তাহে মার্কিন প্রেসিডেন্ট ডোনাল্ড ট্রাম্প উত্তর কোরিয়াকে হুমকি দিয়ে বলেছেন, পিয়ংইয়ং যদি ওয়াশিংটন ও তার মিত্রদের প্রতিনিয়ত হুমকি দিতে থাকে তাহলে তার কঠোর জবাব দেয়া হবে। 

উত্তর কোরিয়ার একমাত্র মিত্র দেশ চীনও উভয় দেশকে শান্ত থাকার আহ্বান জানিয়েছে। 

প্রসঙ্গত, সম্প্রতি জাতিসংঘ উত্তর কোরিয়ার ওপর অর্থনৈতিক অবরোধ আরোপ করে। উত্তর কোরিয়া ওই নিষেধাজ্ঞার নিন্দা জানিয়ে বলে, এটা তাদের সার্বভৌমত্বের ওপর বড় আঘাত এবং আমেরিকাকে এর মূল্য দিতে হবে।- বিবিসি।

ব্রেকিংনিউজ.কম.বিডি/ এসএইচ