শিরোনাম:

ভারতকে বিদ্রুপ করে চীনা মিডিয়ার ভিডিও প্রকাশ

আন্তর্জাতিক ডেস্ক,
ব্রেকিংনিউজ.কম.বিডি
প্রকাশিত : বৃহস্পতিবার, ১৭ অগাস্ট ২০১৭, ০২:২১
অ-অ+
ভারতকে বিদ্রুপ করে চীনা মিডিয়ার ভিডিও প্রকাশ

ঢাকা: ডোকলাম নিয়ে চীন ও ভারতের মধ্যে গত আড়াই মাস ধরেই উত্তেজনা চলছে। ডোকলাম সীমান্তে মুখোমুখি অবস্থান করছে দুই দেশের সেনারা। তারই মধ্যে এবার ভারতীয়দের বিদ্রূপ করে টুইটারে একটি ভিডিও পোস্ট করেছে চীনের দেশের ‘‌সিনহুয়া’‌ সংবাদ সংস্থা। 

ভিডিওতে বর্ণবিদ্বেষের ছাপ স্পষ্ট। মাথায় পাগড়ি ও নকল গোঁফদাড়ি লাগিয়ে ভিডিওটিতে অভিনয় করেছেন এক নারী। ভারতীয় বাচনভঙ্গিতে দিল্লির ৭টি ‘‌অপরাধ’‌ তুলে ধরেছেন তিনি। যার মধ্যে ডোকলামে ‘‌অনধিকার প্রবেশ’‌ তো রয়েইছে, সেই সঙ্গে ভারতকে ‘‌খারাপ প্রতিবেশী’‌ বলে উল্লেখ করা হয়েছে। বলা হয়েছে, ‘আন্তর্জাতিক আইন লঙ্ঘন করে চীনা ভূখণ্ডে সশস্ত্র বাহিনী পাঠিয়েছে ভারত।’‌ ভূটান ডোকলামকে চীনা ভূখণ্ড হিসেবে মেনে নিয়েছে বলেও দাবি করা হয়েছে তাতে।

ডোকলাম নিয়ে বিরোধের শুরু থেকেই ভারতকে সেখান থেকে সেনা সরিয়ে নিতে হুঁশিয়ারি দিয়ে আসছে বেইজিং। মার্কিন চোখরাঙানিতে তারা ভয় পায় না বলেও ঘোষণা করেছে। ভিডিওটিতেও সেই শ্লেষ ধরা পড়েছে। বলা হয়েছে, ‘‌ডোকলাম নিয়ে ভারতের সঙ্গে আপসের প্রশ্নই ওঠে না। সিঁধ কেটে ঘরে ডাকাত ঢুকলে তার সঙ্গে কি সন্ধি করা যায়?‌ যায় না। বরং ৯১১ ডায়াল করে পুলিশে খবর দিতে হয়।’‌ ৯১১ আসলে মার্কিন যুক্তরাষ্ট্রের আপদকালীন নম্বর। দিল্লির সঙ্গে ওয়াশিংটনের বন্ধুত্বপূর্ণ সম্পর্ককে খোঁচা দিতেই এমন আচরণ করা হয়েছে।
 
ডোকলামে বেআইনিভাবে রাস্তা নির্মাণ নিয়ে ভারত ও চীনের মধ্যে নতুন করে বিরোধের সূত্রপাত। গত আড়াই মাস ধরে সীমান্তে মুখোমুখি অবস্থান করছে দুই দেশের সীমান্তরক্ষী বাহিনী। এর আগে নয়াদিল্লি ও বেইজিংয়ের মধ্যে এত দীর্ঘ বিরোধ দেখা যায়নি। এরমধ্যে আবার পশ্চিম হিমালয়ের লাদাখে নতুন করে সমস্যা তৈরি হয়েছে। ১৫ অগাস্ট ভারতের স্বাধীনতা দিবসে, চীনা বাহিনীর ১৫ জন জওয়ান প্যাংগং হ্রদের তীর ধরে ভারতের ভূখণ্ডে অনুপ্রবেশ করে। তাদের সঙ্গে প্রায় ২ ঘণ্টা ধরে সংঘর্ষ চলে ভারতীয় বাহিনীর। তবে গোলাগুলি চলেনি। 



ব্রেকিংনিউজ.কম.বিডি/ এসএইচ