শিরোনাম:

​মাশরাফির রংপুর চ্যাম্পিয়ন

সিনিয়র স্পোর্টস করেসপন্ডেন্ট
প্রকাশিত : মঙ্গলবার, ১২ ডিসেম্বর ২০১৭, ০৯:৪৯
অ-অ+
​মাশরাফির রংপুর চ্যাম্পিয়ন
ছবি: ব্রেকিংনিউজ.কম.বিডি

ক্রিস গেইলের ঝড়ো সেঞ্চুরি পর সোহাগ গাজী ও নাজমুল অপুদের নিয়ন্ত্রিত বোলিংয়ে বাংলাদেশের ঘরোয়া ক্রিকেটের সবচেয়ে জনপ্রিয় আসর বাংলাদেশ প্রিমিয়ার লিগের (বিপিএল) পঞ্চম আসরে চ্যাম্পিয়ন হয়েছে মাশরাফি বিন মুর্তজার রংপুর রাইডার্স। সেই সঙ্গে রংপুর প্রথম এবং চতুর্থবারের মত শিরোপার স্বাদ পেলেন বাংলাদেশের ওয়ানডে অধিনায়ক মাশরাফি।

মঙ্গলবার (১২ ডিসেম্বর) বিপিএলের শিরোপা নির্ধারনী ম্যাচে সাকিব আল হাসানের ঢাকা ডায়নামাইটসকে ৫৭ রানে হারিয়েছে তারা। এদিন মিরপুর  শেরেবাংলা স্টেডিয়ামে আগে ব্যাটিংয়ে নেমে গেইলের অপরাজিত সেঞ্চুরির সুবাদে নির্ধারিত ২০ ওভারে ১ উইকেট হারিয়ে ২০৬ রানের পাহাড়সম স্কোর গড়ে নড়াইল এক্সপ্রেসের দল। জবাবে ৯ উইকেট হারিয়ে ১৪৯ রান তুলতে পারে সাকিবের ঢাকা ডায়নামাইটস।  

একেতো বিপিএলের পঞ্চম আসরের ফাইনাল। তার ওপর মাশরাফি বাহিনীর দেয়া ২০৭ রানের টার্গেট, ব্যাটিংয়ের শুরুতে স্বাভাবিকভাবেই চাপে থাকার কথা সাকিবের ঢাকা ডায়নামাইটসের। ঢাকা ব্যাটিংয়ের শুরুতে রংপুর রাইডার্সের বিপক্ষে দ্বিগুণ চাপে পড়ে যায় । বিশেষ করে ক্রিস গেইলের অবিশ্বাস্য ব্যাটিংয়ের শিকার হওয়ার পর একের পর এক উইকেট হারিয়ে শিরোপা হারানোর শঙ্কায় সাকিবের দল। ২৯ রানের মধ্যে ৪ উইকেট হারিয়ে বসে গত আসরের চ্যাম্পিয়নরা। পরে আর এই ধাক্কা সামলিয়ে উঠতে পারেনি ডায়নামাইটস। 

ক্যারিবীয় ‘ব্যাটিং দানব’ ক্রিস  গেইলের ঝড়ো সেঞ্চুরিতে পাহাড়সম রানের টার্গেটে ব্যাট করতে নেমে শুরুতে চাপে পড়েন মারুফ-লুইসরা। লুইসকে নিয়ে ওপেন করতে নামেন মেহেদী মারুফ। কিন্তু এ জুটি ক্রিজে দাঁড়াতেই পারেননি। মারুফকে প্রথম ওভারে শূন্য রানে সাজঘরে পাঠান দলপতি মাশরাফি।

এরপর লুইস ও জো ডেনলিকে আউট করেন সোহাগ গাজী। পরে রুবেল হোসেনের বলকে তুলে মারতে গিয়ে গেইলের হাতে ধরা পড়েন কাইরন  পোলার্ড। ৩০ রানের মধ্যে ৪টি উইকেট হারিয়ে চাপে পড়ে জহুরুলকে সঙ্গে নিয়ে চাপ কাটিয়ে ওঠার ব্যর্থ চেষ্টা করেন অধিনায়ক সাকিব আল হাসান। নিজের ২৬ এবং দলীয় ৭১ রানে সাকিব ফিরে গেলে মোসাদ্দেকও ফিরে যান অল্প সময়ের ব্যবধানে। দাঁড়াতে পারেননি পাকিস্তান তারকা বুমবুম শহিদ আফ্রিদিও। আফ্রিদি ফেরেন মাত্র ৮ রানে। 

পরে সুনীল নারিনকে নিয়ে পরাজয়ের ব্যবধানটুকু কমিয়েছেন জহুরুল। নারিন ১৪ রানে আর দলের পক্ষে সর্বোচ্চ ৫০ রান করে প্যাভিলিয়ে ফেরেন জহুরুল। এই জুটি আউট হওয়ার পর দ্রুত বাকি উইকেটের পতন হয় ডায়নামাইটসের। নির্ধারিত ২০ ওভারে ১৪৯ রান তুলতে সক্ষম হয় ঢাকা ডায়নামাইটস। সোহাগ গাজী, নাজমুল অপু ও ইসুরু উদানারা ২টি করে উইকেট পান। ১টি করে উইকেট নেন  মাশরাফি, রুবেল ও রবি বোপারা। ঝড়ো সেঞ্চুরি সুবাদে ম্যাচসেরা হয়েছেন রংপুর রাইডার্সের ক্রিস গেইল। 

এর আগে টসে হেরে ব্যাট করতে নেমে ক্রিস গেইলের বিস্ফোরক ব্যাটিংয়ে ১ উইকেটে ২০৬ রান করে রংপুর। ব্রেন্ডন ম্যাককালামের সঙ্গে টুর্নামেন্টের সর্বোচ্চ ২০১ রানের অবিচ্ছিন্ন জুটি গড়ে তারা। অথচ কুমিল্লা ভিক্টোরিয়ান্সের বিপক্ষে পা মচকে যাওয়ায় গেইলের ফাইনাল খেলা নিয়ে শঙ্কা ছিল। কিন্তু মাঠে নেমেছেন তিনি।

রংপুরের জার্সিতে আরেকবার জ্বলে উঠলেন ওয়েস্ট ইন্ডিজের এ ব্যাটসম্যান। মঙ্গলবার ঢাকা ডায়নামাইটসের বিপক্ষে ৫৭ বলে সেঞ্চুরি করেন তিনি, অপরাজিত ছিলেন ১৪৬ রানে। খুলনা টাইটানসের বিপক্ষে এলিমিনেটরে ১২৬ রানে অপরাজিত ছিলেন তিনি।

সাকিব টস জিতে রংপুরকে ব্যাটিংয়ে পাঠানোর পর দ্রুত উইকেট তুলে নেন। কিন্তু প্রথম উইকেট হারানোর পর গেইল ও ম্যাককালামের জুটিতে আর পেছনে ফেরেনি মাশরাফি মুর্তজার দল। ২২ রানে জীবন পাওয়া গেইল ক্যারিয়ারের ২০তম টি-টোয়েন্টি সেঞ্চুরি করেছেন চারটি চার ও ১১টি ছয়ে। এরপর আরও কয়েকবার সীমানা ছাড়া করেছেন বল। সব মিলিয়ে ৫টি চার ও ১৮টি ছয়ে সাজানো ছিল এই বাঁহাতি ব্যাটসম্যানের ৬৯ বলের ইনিংস। অন্যদিকে ম্যাককালাম অপরাজিত ছিলেন ৫১ রানে।

শুরুতে কিন্তু  হোঁচট খেয়েছে রংপুর। দ্বিতীয় ওভারেই উইকেট হারায় তারা। কুমিল্লা বিপক্ষে  সেঞ্চুরি করা জনসন চার্লস রানের পাল্লা ভারী করতে পারেননি। ৮ বলে মাত্র ৩ রান করে সাকিবকে ফিরতি ক্যাচ তুলে দেন ক্যারিবিয়ান এ ডানহাতি ওপেনার। ওই একটা উইকেটই হারায় রংপুর। দুই দল এই আসরে দুইবারের দেখায় একটি করে জয় ও হারের স্বাদ পেয়েছে। তবে ফাইনালের শেষ হাসি হাসলেন মাশরাফি বিন মুর্তজা।  

ব্রেকিংনিউজ/ এসএম/ এসএ 

সম্পর্কিত বিষয়ঃ   বিপিএল   ক্রিকেট   ক্রিকেটার ক্রিস গেইল