শিরোনাম:

সাবেক মেয়র লুৎফুর রহমানের বাড়ি নিলামে

প্রবাস ডেস্ক
৫ আগস্ট ২০১৮, রবিবার
প্রকাশিত: 5:09
সাবেক মেয়র লুৎফুর রহমানের বাড়ি নিলামে

টাওয়ার হ্যামলেটসের সাবেক মেয়র লুৎফুর রহমানের বাড়ি নিলামে উঠেছে। অনিয়মের মামলায় অভিযোগকারীদের আইনি খরচের অর্থ দিতে অস্বীকার করে নিজেকে দেউলিয়া ঘোষণা করেন তিনি। এ কারণে তার বাড়ি নিলামে তোলা হচ্ছে। 

বাংলাদেশি বংশোদ্ভূত লুৎফুর রহমান টাওয়ার হ্যামলেটসে দু’বারের নির্বাচিত সাবেক মেয়র।

২০১৫ সালে একটি নির্বাচন আদালতে দুর্নীতি ও অবৈধ কর্মকাণ্ডের অভিযোগ প্রমাণিত হওয়ায় লুৎফর রহমানকে বহিষ্কার করা হয়। তার আগে দ্বিতীয় নির্বাচিত হওয়ার পর তার বিরুদ্ধে অনিয়মের অভিযোগ তোলেন চারজন ভোটার। ওই অভিযোগের বিষয়ে সরকারের পক্ষে কাজ করা আইনজীবীদের অর্থ বাবদ তাকে ৫ লাখ পাউন্ড অর্থ পরিশোধ করতে বলা হয়। তখন নির্ধারিত সময়সীমার মধ্যে পাঁচ লাখ পাউন্ড দিতে না পেরে লুৎফর রহমান নিজেকে দেউলিয়া ঘোষণা করেন। এ পরিস্থিতিতে তার বিক্রির ‘ব্রোমলি-বাই-বো’ এর বাড়িটি নিলামে প্রস্তাবনা রয়েছে। করসহ যাবতীয় আনুষঙ্গিক খরচ মেটানোর পর বাড়িটির দাম ধরা হয়েছে আড়াই লাখ পাউন্ড।

তার আগে অর্থ পরিশোধে না পারায় লুৎফর রহমানের কাছে পাওনা অর্থ সরকারের কাছে আবেদন করেন ওই আইনজীবীরা। তবে ওই আবেদন খারিজ করে দিয়েছে ব্রিটিশ সরকার।

ব্রিটিশ প্রধানমন্ত্রীর কার্যালয় ‘টেন ডাউনিং স্ট্রিট’কে লেখা এক চিঠিতে শীর্ষ পিটিশনার এন্ডি এরলাম জানান, ‘উদ্ভুত বিশেষ আইনি পরিস্থিতিতে তারা থেরেসা মে’কে  এক মিলিয়ন পাউন্ডের আইনি খরচ মেটাতে প্রয়োজনে সরকারি ফান্ডের সাহায্য নিতে অনুরোধ করেন। কিন্তু প্রধানমন্ত্রী তা নাকচ করে দেন।’

২০১৫ সালে সরকারের হয়ে হাইকোর্টে এ মামলায় জেতার পরও আইনজীবীদের প্রতি এমন আচরণকে এন্ডি এরলাম  ‘হাস্যকর’ বলে উল্লেখ করেন। ইস্ট লন্ডন অ্যাডভার্টাইজারকে দেওয়া এক সাক্ষাতকারে তিনি বলেন, ‘মামলা চলাকালীন তারা (বর্তমান সরকার) ক্ষমতায় ছিল কিনা, এটি কোনও বিতর্কের বিষয় হতে পারে না। লক্ষণীয় বিষয় হলো— এখন তারা ক্ষমতাসীন এবং বিগত সময়ে একই রাজনৈতিক দল প্রাসঙ্গিক সব প্রশাসনিক সিদ্ধান্ত গ্রহণ করেছিল।’

এ বিষয়ে জানতে শনিবার লুৎফুর রহমানের সঙ্গে যোগাযোগের চেষ্টা করা হলেও তার বক্তব্য পাওয়া যায়নি। তবে লুৎফুর রহমান জনসমক্ষে দেওয়া তার সর্বশেষ বক্তব্যেও নিজেকে নির্দোষ দাবি করেন। শুরু থেকেই ব্যক্তি ও মহল বিশেষের প্রতিহিংসার শিকার বলে দাবি করেন তিনি।

ব্রেকিংনিউজ/ এমজি

Ads-Sidebar-1
Ads-Sidebar-1
Ads-Sidebar-1
Ads-Sidebar-1
Ads-Bottom-1
Ads-Bottom-2