শিরোনাম:

ছাত্রলীগকে বুদ্ধিবৃত্তিক ধারায় ফেরাতে চাই: শোভন

রাহাত হুসাইন
২৪ সেপ্টেম্বর ২০১৮, সোমবার
প্রকাশিত: 5:45 আপডেট: 11:27
ছাত্রলীগকে বুদ্ধিবৃত্তিক ধারায় ফেরাতে চাই: শোভন

মো. রেজোয়ানুল হক চৌধুরী শোভন। দেশের ঐতিহ্যবাহী ছাত্রসংগঠন বাংলাদেশ ছাত্রলীগের সভাপতির দায়িত্ব পালন করছেন। ২৯তম সম্মেলনের প্রায় দু’মাস পর ছাত্রলীগের ‘সাংগঠনিক প্রধান’ ও আওয়ামী লীগ সভাপতি প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা তাকে সভাপতির দায়িত্ব দেন। তিনি গত কমিটির কার্যনির্বাহী সংসদের সদস্য ছিলেন।
 
সম্প্রতি ছাত্রলীগের নানা বিষয় নিয়ে ব্রেকিংনিউজ.কম.বিডি-এর মুখোমুখি হন রেজোয়ানুল হক চৌধুরী শোভন। সাক্ষাৎকারটি নিয়েছেন ব্রেকিংনিউজ.কম.বিডি-এর স্টাফ করেসপন্ডেন্ট রাহাত হুসাইন।
 
ব্রেকিংনিউজ : ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয় কেন্দ্রীয় ছাত্র সংসদ (ডাকসু) নির্বাচন নিয়ে ছাত্রলীগ কী ভাবছে?
 
শোভন : ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয় হচ্ছে বাংলাদেশে জাতিসত্তার মুখপাত্র। স্বাধীন বাংলাদেশ প্রতিষ্ঠায় ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের অবদান অপরিসীম। বঙ্গবন্ধুকে জাতির পিতা উপাধি দিয়েছে এই ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয় কেন্দ্রীয় ছাত্র সংসদের (ডাকসু) নেতারাই। ছাত্রদের অধিকার নিয়ে কাজ করতে আমরাও ডাকসুর নির্বাচন চাই। তবে ডাকসু নির্বাচনে স্বাধীনতাবিরোধী কোনও ছাত্র সংগঠন অংশ নিতে পারবে না। এটা ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয় প্রশাসন বলেছে।
 
ব্রেকিংনিউজ : সরকারের বিরুদ্ধে অপপ্রচার রোধ ও সরকারের উন্নয়ন প্রচারে ছাত্রলীগ আগামী দিনে কোন ধরনের ভূমিকা রাখবে?
 
শোভন : অপপ্রচার সব সময়ই ছিল। অপপ্রচারে মানুষ ততটা সাড়া দিতো না। সম্প্রতি একটি মহল সোশ্যাল মিডিয়াতে সরকারের বিরুদ্ধে অপপ্রচার চালিয়ে মানুষকে কিছুটা বিভ্রান্ত করেছে। আমরা অপপ্রচার রোধে এর পেছনের কারণটা খুঁজে বের করার চেষ্টা করছি। তরুণ সমাজ যাতে অপপ্রচারে কান না দেয়, সে ব্যাপারে তাদেরকে আরও দায়িত্বশীল ভূমিকা পালন করতে হবে। কারণ তরুণরাই আগমীতে দেশ-জাতির নেতৃত্ব দেবে।
 
সাম্প্রতিক সময়ে যেসব গুজব (মিথ্যা) রটানো হয়েছে আমরা সেগুলোর প্রকৃত ঘটনা জনগণের কাছে তুলে ধরবো। পাশাপাশি সরকারের উন্নয়নের চিত্র গ্রামগঞ্জে প্রজেক্টরের মাধ্যমে দেখাবো। সরকারের উন্নয়নের চিত্র পোস্টার করে জনগণকে জানাবো। এমনকি অনলাইন ও সোশ্যাল মিডিয়ায়ও তুলে ধরবো।
 
ব্রেকিংনিউজ : সাম্প্রতিক সময়গুলোতে রাজনৈতিক অঙ্গনে ছাত্রলীগকে নিয়ে জনমনে যে নেতিবাচক মনোভাব জন্মেছে সেটা কাটিয়ে উঠতে পারবেন বলে মনে করেন কি?
 
শোভন : ছাত্রলীগের ইতিহাস আছে। গৌরবোজ্জ্বল ইতিহাস, সংগ্রামের ইতিহাস। ভাষা আন্দোলন, স্বাধীনতা আন্দোলন, ’৯০ এর গণআন্দোলনে ছাত্রলীগের অবদান রয়েছে। মুক্তিযুদ্ধের সময় একটি সাম্প্রদায়িক শক্তি বাংলাদেশের বিরুদ্ধে কাজ করেছে। সে সাম্প্রদায়িক শক্তি দেশে এখনও বিদ্যমান রয়েছে। তারাই ছাত্রলীগকে সব সময় নেতিবাচক দৃষ্টিতে দেখে। তারা গুজব রটিয়ে ছাত্রলীগকে নেতিবাচক বানানোর অপচেষ্টায় লিপ্ত রয়েছে। ছাত্রলীগের ভালো কাজগুলো তাদের চোখে পড়ে না। ছাত্রলীগের ভালো কাজগুলোকে তারা ইতিবাচক বলে না। তবে সর্বসাধারণের কাছে ছাত্রলীগ একটি ইতিবাচক সংগঠন। আমরা ত্রুটি কাটিয়ে ছাত্রলীগকে বুদ্ধিবৃত্তিক ধারায় ফেরাতে চাই।
 
ব্রেকিংনিউজ : ছাত্রলীগে ছাত্রশিবির ও ছাত্রদলের অনুপ্রবেশের যে অভিযোগগুলো উঠছে সেগুলোকে কিভাবে মোকাবিলা করবেন?
 
শোভন : ছাত্রলীগে অনুপ্রবেশ ঠেকাতেই কেন্দ্রীয় কমিটি করতে একটু বিলম্ব হচ্ছে।  আমরা যাদেরকে কমিটিতে রাখার বিষয় বিবেচনা করেছি তাদের সম্পর্কেও পুঙ্খানুপুঙ্খ খোঁজখবর নিচ্ছি। প্রয়োজনে দেশরত্ন শেখ হাসিনার পরামর্শ নেবো। যাতে কোনও অনুপ্রবেশকারী ছাত্রলীগে স্থান না পায়।
 
ব্রেকিংনিউজ : বিভিন্ন বিশ্ববিদ্যালয়ের আবাসিক হলগুলোতে সাধারণ ছাত্র-ছাত্রীদের ওপর ছাত্রলীগের জোরপূর্বক আধিপত্য ও নির্যাতনের যেসব অভিযোগ আছে দায়িত্ব নেয়ার পর সেগুলোকে কিভাবে মোকাবিলা করার চিন্তা করছেন?
 
শোভন : হলে থাকা যে ছেলেটা ছাত্রলীগের সাথে জড়িত সে-ও কিন্তু সাধারণ ছাত্র।  আর যে ছেলেটা ছাত্রলীগ করে না সে-ও একজন সাধারণ ছাত্র। দু’জন ছাত্রের মধ্যে ব্যক্তিগত বিষয় নিয়ে কোনো সমস্যা হলে তা রাজনৈতিক মেরুকরণ করা হয়। ছাত্রলীগের ওপর দোষ চাপিয়ে দেয়া হয়। ছাত্রলীগের কোনো সাংগঠনিক বিষয় নিয়ে কিন্তু এ সমস্যা হয় না। তবুও ছাত্রলীগের দোষ দেয়া হয়।
 
ব্রেকিংনিউজ :  সাধারণ শিক্ষার্থীদের কোটা আন্দোলন নিয়ে ছাত্রলীগ কোন ধরনের ভূমিকা রাখছে?
 
শোভন : সাধারণ শিক্ষার্থীদের অধিকার আদায়ে ছাত্রলীগ সবসময় তাদের পাশে ছিল, আছে এবং ভবিষ্যতেও থাকবে। তবে কোটা আন্দোলন এখন রাজনৈতিক মোড় নিয়েছে। আন্দোলনকারীরা প্রথমে বলেছিল কোটা প্রথা মানি না, মানবো না। তাদের দাবি মেনে নিয়ে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা যখন কোটা প্রথা বাতিল করে দিয়েছে তখন তারা আবার বলছে কোটা বাতিল নয়, সংস্কার চাই। এখানে আসলে বোঝা যায়- তারা কী চায়। তাদের এক মুখে দুই কথা। তবে কোটা আন্দোলনকারীরা তাদের যৌক্তিক দাবি নিয়ে আমাদের সঙ্গে বসতে চাইলে আমরা বসবো।’
 
ব্রেকিংনিউজ : ছাত্রলীগে পূর্ণাঙ্গ কমিটি কেমন হতে পারে? কারা থাকতে পারে কমিটিতে?
 
শোভন : নিয়মিত ছাত্রদের নিয়ে গঠনতন্ত্র অনুযায়ী কমিটি হবে। যোগ্যতমরাই কমিটিতে থাকবে।
 
ব্রেকিংনিউজ : ক্ষমতাকেন্দ্রীক রাজনীতি ছাত্রলীগকে কি তার ঐতিহাসিক আর্দশ থেকে বিচ্যুত করেছে?
 
শোভন : ছাত্রলীগ কোনও ক্ষমতাকেন্দ্রিক সংগঠন নয়। আমরা নিজেরা পড়াশোনা করি, পাশাপাশি ছাত্রদের অধিকার নিয়ে কাজ করি। আমরা  ছাত্রলীগের গৌরবোজ্জ্বল ইতিহাসকে সমৃদ্ধ করতে কাজ করছি। ছাত্রলীগের লক্ষ্য ও উদ্দেশ্য সাধারণ ছাত্রদের কাছে পৌঁছে দিতে আমরা কাজ করছি। ছাত্রলীগ করলেই যে কমিটিতে পদ পেতে হবে বিষয়টি এমন নয়। বঙ্গবন্ধুর আদর্শকে বুকে ধারণ করে কর্মী হিসেবে কাজ করাটাই আনন্দের বিষয়।
 
ব্রেকিংনিউজ : ছাত্রলীগের স্কুল কমিটিকে কিভাবে পরিচর্যা করবেন?
 
শোভন : ছাত্রলীগের স্কুল কমিটিকে বুদ্ধিবৃত্তিক ধারায় কাজে লাগাতে চাই। তারা বয়সে আমাদের থেকে অনেক ছোট। তাদেরকে মাঠের কাজে না লাগিয়ে মেধাচর্চার কাজে লাগাতে চাই। এজন্য শিশুতোষ সাহিত্য প্রকাশ করার চিন্তা রয়েছে। যেখানে মুক্তিযুদ্ধের গল্প, কবিতা থাকবে। দেশপ্রেমের গল্প থাকবে। সম্প্রীতির কথা থাকবে। গল্প-কবিতা পড়ে যেন তাদের মেধা ও মনন বিকশিত হয়। তারাই পরবর্তীতে স্কুল-কলেজ-ভার্সিটিতে পড়াশোনা করবে। ছাত্রলীগের নেতৃত্বে আসবে। দেশের ভবিষ্যত নেতৃত্ব দেবে। এভাবেই ছাত্রলীগকে বুদ্ধিবৃত্তিক সংগঠন হিসেবে গড়ে তোলার কাজ করবো।

ব্রেকিংনিউজ : সময় দেয়ার জন্য ধন্যবাদ আপনাকে।
 
শোভন : আপনাকে ও ব্রেকিংনিউজ.কম.বিডি পরিবারকেও ধন্যবাদ।
 
ব্রেকিংনিউজ/আরএইচ/এমআর

Ads-Sidebar-1
Ads-Sidebar-1
Ads-Sidebar-1
Ads-Sidebar-1
Ads-Bottom-1
Ads-Bottom-2