৪৫ দিন পিছিয়ে পর্দা উঠলো অমর একুশে বইমেলার

স্টাফ ক‌রেসপ‌ন্ডেন্ট
১৮ মার্চ ২০২১, বৃহস্পতিবার
প্রকাশিত: ০৪:৫০

৪৫ দিন পিছিয়ে পর্দা উঠলো অমর একুশে বইমেলার

করোনা মহামারির বিরূপ পরিস্থিতিতে ৪৫ দিন পিছিয়ে শুরু হলো অমর একুশে বইমেলা। বৃহস্পতিবার (১৮ মার্চ) বিকেলে গণভবন থেকে ভিডিও কনফারেন্সের মাধ্যমে মাসব্যাপী এ মেলার উদ্বোধন করেন প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা। 

উদ্বোধনী বক্তব্যে প্রধানমন্ত্রী বলেন, ‘১৯৪৮ সালের ১১ মার্চ রাষ্ট্রভাষার মর্যাদার আন্দোলনের সূতিকাগার রচিত হয়। বঙ্গবন্ধু ১৯৪৮ সালের ৪ জানুয়ারি ছাত্র সংগঠন গঠন করার প্রেক্ষিতে ১১ মার্চ সংগ্রাম পরিষদ গড়ে উঠে। জাতির পিতা জেলে থাকা অবস্থায় ছাত্রদের সাথে নিয়মিত যোগাযোগ রাখতেন।’

প্রধানমন্ত্রী বলেন, ‘দুঃখিত যে সশরীরে উপস্থিত থাকতে পারলাম না। এটি অত্যন্ত দুঃখজনক আমার জন্য। আমরা সরকারে থাকি আর বিরোধীদলে থাকি, বইমেলায় যাবোই, এটাই ছিল সারাজীবন। কিন্তু করোনা ভাইরাসের কারণে এবার সেটা সম্ভব হলো না। আমার মনটা পড়ে আছে ওখানে। আমি বইমেলা উদ্বোধন অনুষ্ঠানে গেলে নিরাপত্তারক্ষীসহ অন্তত হাজারখানেক লোক সেখানে যাবে। সেই ভিড় ও সমাবেশটা যাতে না হয় সেদিকে লক্ষ্য রেখে এবং মানুষ যাতে সংক্রমিত না হয় সেদিকে লক্ষ্য রেখেই আমি সেখানে উপস্থিত থাকতে পারলাম না।’

এসময় তিনি এবছর সাহিত্যে বাংলা একাডেমি পুরস্কারপ্রাপ্ত সবাইকে আন্তরিক অভিনন্দন জানান।  

এরপর প্রধানমন্ত্রীর অনুমতিক্রমে তাঁর পক্ষে ‘বাংলা একাডেমি সাহিত্য পুরস্কার-২০২০’ প্রদান করেন সংস্কৃতিবিষয়ক মন্ত্রণালয়ের প্রতিমন্ত্রী কে এম খালিদ। 

এবারের বইমেলায় অংশ নিয়েছে ৫৪০টি প্রকাশনা প্রতিষ্ঠান। করোনা পরিস্থিতি স্বাস্থ্যবিধিকে সর্বোচ্চ গুরুত্ব দেয়ার অংশ হিসেবে মেলায় আগতদের জন্য মাস্ক পরা বাধ্যতামূলক করা হয়েছে। ২৮ দিনব্যাপী প্রাণের এই বইমেলা শেষ হবে ১৪ এপ্রিল। 

প্রতিদিন বিকেল ৩টা থেকে রাত ৯টা পর্যন্ত খোলা থাকবে মেলা প্রাঙ্গণ। শুক্র ও শনিবার বেলা ১১টা থেকে রাত ৯টা পর্যন্ত বইমেলা চলবে।

এ বছর বাংলা একাডেমি প্রাঙ্গণে ১০৭টি প্রকাশনা প্রতিষ্ঠানকে ১৫৪টি এবং সোহরাওয়াদী উদ্যান অংশে ৪৩৩টি প্রতিষ্ঠানকে ৬৮০টি ইউনিটসহ দুই অংশে মোট ৫৪০টি প্রতিষ্ঠানকে ৮৩৪টি ইউনিট বরাদ্দ দেয়া হয়েছে। 

মেলায় থাকছে মোট ৩৩টি প্যাভিলিয়ন। লিটল ম্যাগাজিন চত্বর বসানো হয়েছে উদ্যানের মূল মেলা প্রাঙ্গণে। সেখানে ১৩৫টি লিটলম্যাগকে স্টল বরাদ্দের পাশাপাশি ৫টি উন্মুক্ত স্টলসহ ১৪০টি স্টল দেয়া হয়েছে।

সোহরাওয়ার্দী অংশে থাকছে শিশু চত্বর। একক ক্ষুদ্র প্রকাশনা সংস্থা এবং ব্যক্তি উদ্যোগে যারা বই প্রকাশ করছেন তাদের বই বিক্রি ও প্রদর্শনের ব্যবস্থা রাখা হয়েছে জাতীয় গ্রন্থকেন্দ্রের স্টলে। এছাড়া সোহরাওয়ার্দী উদ্যানে নতুন বইয়ের মোড়ক উন্মোচন অনুষ্ঠানের ব্যবস্থা করা হয়েছে। 

১৯ মার্চ থেকে ১৪ এপ্রিল পর্যন্ত প্রতিদিন বিকেল ৪টায় বইমেলার মূল মঞ্চে সেমিনার অনুষ্ঠিত হবে।

ব্রেকিংনিউজ/এমআর

breakingnews.com.bd
প্রকাশক : মো: মাইনুল ইসলাম
 শারাকা ম্যাক, ২ এইচ-প্রথম তলা, ৩/১-৩/২ বিজয় নগর, ঢাকা-১০০০
 টেলিফোন : ০২-৯৩৪৮৭৭৪-৫, ইমেইল : breakingnews.com.bd@gmail.com
 নিউজরুম হটলাইন : ০১৬৭৮-০৪০২৩৮, ০২-৮৩৯১৫২৪
 নিউজরুম ইমেইল : bnbdcountry@gmail.com, bnbdnews.reporter@gmail.com
প্রকাশক : মো: মাইনুল ইসলাম
 শারাকা ম্যাক, ২ এইচ-প্রথম তলা,
  ৩/১-৩/২ বিজয় নগর, ঢাকা-১০০০
 টেলিফোন : ০২-৯৩৪৮৭৭৪-৫,
 ইমেইল : breakingnews.com.bd@gmail.com
 নিউজরুম হটলাইন : ০১৬৭৮-০৪০২৩৮, ০২-৮৩৯১৫২৪
 নিউজরুম ইমেইল : bnbdcountry@gmail.com, bnbdnews.reporter@gmail.com
© ২০২১ সর্বস্বত্ব সংরক্ষিত | ব্রেকিংনিউজ.কম.বিডি