শিবগঞ্জে বিরোধের জেরে কলা গাছ কর্তন, থানায় অভিযোগ

বগুড়া প্রতিনিধি
৬ নভেম্বর ২০১৯, বুধবার
প্রকাশিত: ০৩:৪৬ আপডেট: ০৩:৫৬

শিবগঞ্জে বিরোধের জেরে কলা গাছ কর্তন, থানায় অভিযোগ

বগুড়ার শিবগঞ্জ উপজেলার সাদুল্লাপুর গ্রামের আবুল হোসেনের জমিতে কলা গাছ কেটে ফেলার অভিযোগ পাওয়া গেছে।

থানার অভিযোগ সূত্রে জানা যায়, শিবগঞ্জ সদর ইউনিয়নের সাদুল্লাপুর গ্রামের ভোম্বল চন্দ্র ও শুভ সম্পন্ন অন্যায়ভাবে মৃত. মোয়াজ্জেম হোসেনের পুত্র আবুল হোসেনের জমিতে বর্গা কৃষক একই গ্রামের জামাল উদ্দিনের লাগানো ৫৮টি কলা গাছ কেটে দিয়েছে। ভোম্বল গংরা হঠাৎ লাঠিসোটাসহ দেশীয় অস্ত্র-শস্ত্রে সজ্জিত হয়ে বেআইনি ভাবে জামাল উদ্দিনের বর্গা জমিতে রোপন করা ৫৮টি কলাগাছ কেটে ফেলে। এতে প্রায় ৩৫হাজার টাকার ক্ষতি হয়।

খবর পেয়ে জমির মালিক আবুল হোসেন জমিতে আসলে ভোম্বল গংরা তাকে জমিতে আসতে নিষেধ করে এবং বলে তোর কোনো জমি নেই, তুই চলে যা, বাড়াবাড়ি করলে তোকে জানে মেরে ফেলবো।

বর্গা কৃষক জামাল উদ্দিন বলেন, আমার লাগানো কলা গাছ সম্পন্ন অন্যায়ভাবে কেটে ফেলেছে। আমি আমার ক্ষতিপূরণসহ এ ঘটনার সঠিক বিচার চাই।

জমির মালিক আবুল হোসেন বলেন, আমার পৌত্রিক জমি কি ভাবে বিবাদীরা বেআইনি ভাবে দখল করতে আসে তা আমার বোধগম্য নয়, আমি থানায় এব্যাপারে একটি অভিযোগ দায়ের করেছি, আমি ভোম্বলগংদের দৃষ্টান্তমূলক স্বাস্তি দাবি করছি।

ঘটনার তদন্ত কর্মকর্তা এসআই শহিদুল ইসলাম বলেন, আমি অভিযোগ সূত্রে জমিতে গিয়েছিলাম, ভোম্বলরা ক্রয় সূত্রে জমির মালিক, তারা জমি পাবে এমটিই বলেছেন ভোম্বলরা, কিন্তু ৫৮টি কলাগাছ কেটে ফেলা উচিৎ হয়নি। উভয় পক্ষকে নিয়ে বসে বিষয়টি সমাধান করা হবে।

ব্রেকিংনিউজ/এমজি

bnbd-ads