৭৫০ কেজি হরিণের মাংসসহ শিকারি আটক

জেলা প্রতিনিধি
৬ অক্টোবর ২০১৯, রবিবার
প্রকাশিত: ০২:২৬ আপডেট: ০২:৩৪

৭৫০ কেজি হরিণের মাংসসহ শিকারি আটক

বরগুনার পাথরঘাটায় সাড়ে সাতশ কেজি হরিণের মাংসসহ আবদুস সোবাহান (৫৫) নামে এক শিকারিকে আটক করেছে পাথরঘাটা স্টেশন কোস্টগার্ড। এদিকে তার সাথে থাকা ৬ শিকারী পালিয়ে যায়। এ সময় ইঞ্জিনচালিত একটি নৌকাও জব্দ করেন কোস্টগার্ডের সদস্যরা।

শনিবার (৫ অক্টোবর) গোপন সংবাদের ভিত্তিতে রাত সাড়ে ১১টার দিকে পাথরঘাটা সদর ইউনিয়নের রুহিতার মাঝেরচর সংলগ্ন বিহঙ্গদ্বীপ এলাকার বলেশ্বর নদী থেকে তাকে আটক করা হয়। 

আটক সোবাহান উপজেলার চরদুয়ানী বাজারের হোসেন আলীর ছেলে। মাংসসহ তাকে পাথরঘাটা থানায় সোপর্দ করা হয়েছে। পাথরঘাটা স্টেশন কোস্টগার্ড কমান্ডার লে. বিশ্বজিৎ বড়ুয়া ঘটনার সত্যতা নিশ্চিত করেছেন।

বিশ্বজিৎ বড়ুয়া জানান, গোপন সূত্রে খবর পেয়ে বিশখালী ও বলেশ্বর নদীতে অভিযান চালায় কোস্টগার্ড। এ সময় হরিণ শিকারিরা কোস্টগার্ডের উপস্থিতি টের পেয়ে ইঞ্চিনচালিত নৌকাভর্তি হরিণের মাংস নিয়ে পালিয়ে যাওয়ার চেষ্টা করে। পরে তাদের ধাওয়া করলে নৌকা থেকে নদীতে লাফ দিয়ে ৬জন শিকারি পালিয়ে যায়। এ সময় শিকারি সোবাহানকে আটক করা হয়েছে। তার নৌকা তল্লাশি করে ৭৫০ কেজি হরিণের মাংস জব্দ করা হয়।

তিনি আরো জানান, যথাযথ আইনি প্রক্রিয়ার মাধ্যমে উদ্ধারকৃত গোশত বন বিভাগের কাছে হস্তান্তর করা হয়েছে।  

আটক হরিণ শিকারি সোবাহান জানান, তারা সুন্দরবনের দর্জারখাল এলাকা থেকে ১৫টি হরিণ শিকার করেন। তার সঙ্গে থাকা ৬ শিকারি নদীতে লাফিয়ে পড়ে পালিয়ে গেছে। তিনি অসুস্থ থাকায় পালাতে পারেননি।

পাথরঘাটা উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা ও নির্বাহী মেজিস্ট্রেট মো. হুমায়ুন কবির জানান, মাংসগুলো আমার উপস্থিতিতে কেরোসিন দিয়ে নষ্ট করা হয়েছে। আটক শিকারিকে জিজ্ঞাসাবাদ করে হরিণের চামড়া ও মাথা উদ্ধার করার চেষ্টা চলছে। অবদুস সোবহানের বিরুদ্ধে মামলা দায়ের করার প্রক্রিয়া চলছে।

ব্রেকিংনিউজ/এম ​

bnbd-ads