আন্দোলকারীদের সঙ্গে আলোচনায় বসছে জাবি প্রশাসন

জাবি করেসপন্ডেন্ট
১২ সেপ্টেম্বর ২০১৯, বৃহস্পতিবার
প্রকাশিত: ০২:৫৮ আপডেট: ০৩:০১

আন্দোলকারীদের সঙ্গে আলোচনায় বসছে জাবি প্রশাসন

জাহাঙ্গীরনগর বিশ্ববিদ্যালয়ে (জাবি) অধিকতর উন্নয়নের কাজে অপরিকল্পনা, দুর্নীতি ও অনিয়মের অভিযোগের প্রেক্ষিতে গড়ে ওঠা আন্দোলন ও সমস্যা সমাধানের লক্ষে আন্দোলনকারীদের সাথে আলোচনায় বসছেন বিশ্ববিদ্যালয়ের উপাচার্য উপাচার্য অধ্যাপক ফারজানা ইসলাম।

বৃহস্পতিবার (১২ সেপ্টেম্বর) বিকেল ৩টায় বিশ্ববিদ্যালয়ের নতুন প্রশাসনিক ভবনে এ আলোচনা সভা অনুষ্ঠিত হবে।

এর আগে একনেকে পাশকৃত ১৪৪৫ কোটি টাকার উন্নয়ন কাজে অনিয়ম এবং দুর্নীতির অভিযোগ তুলে ‘দুর্নীতির বিরুদ্ধে জাহাঙ্গীরনগর’ ব্যানারে তিন দফা দাবিতে আন্দোলন করে আসছেন শিক্ষক-শিক্ষার্থীরা।

আন্দোলনের অংশ হিসাবে গত ৩-৫ সেপ্টেম্বর বিশ্ববিদ্যালয়ের প্রশাসনিক ভবন অবরোধ করে বিশ্ববিদ্যালয়ের শিক্ষক-শিক্ষার্থীরা। এতে বিশ্ববিদ্যালয়ের সকল কাজ স্থবির হয়ে পড়ে। এই সমস্যা নিরসনে আন্দোলনকারীদের সাথে আলোচনার প্রস্তাব দেন উপাচার্য অধ্যাপক ফারজানা ইসলাম। এতে আন্দোলনকারীরা তাদের তিন দফা দাবি মানার শর্তে আলোচনা করবেন বলে জানান।  

এই বিষয়ে বাংলাদেশে সাধারণ ছাত্র অধিকার সংরক্ষণ পরিষদের যুগ্ম আহ্বায়ক জয়নাল আবেদীন শিশির বলেন, ‘আমাদের তিন দফা দাবি যদি উপাচার্য মানতে রাজি হন তাহলে আমরা আলোচনা করবো এবং আমাদের দ্বিতীয় দাবি বিচার বিভাগীয় তদন্তের জন্য উপাচার্য রাষ্ট্র পক্ষের কাছে আবেদন করবেন। নাহলে আমাদের আন্দোলন চলবে।’

জাহাঙ্গীরনগর সাংস্কৃতিক জোটের সভাপতি বলেন, ‘আমরা আশা করি প্রশাসন আমাদের তিন দফা দাবি মানবেন। প্রশাসন আমাদের দাবি সমূহ না মানে তাহলে আমাদের আন্দোলন আরো কঠোর হবে।’

দাবির কিছু অংশ মেনে যদি কিছু অংশ না মানা হয় এক্ষেত্রে আপনাদের অবস্থান কেমন হবে এমন প্রশ্নের জবাবে তিনি বলেন,‘ কিছু অংশ মানা আর কিছু অংশ না মানার কোন সুযোগ নাই। আমাদের সব গুলো দাবিই মানতে হবে অন্যথা আমরা কঠোর আন্দোলনে যাবো।’

প্রসঙ্গত, গত ৮ সেপ্টেম্বর প্রশাসনের সাথে আলোচনা হওয়ার কথা থাকলেও আন্দোলনকারী এক শিক্ষর্থী নুরুল ইসলাম সাইমুমকে শাখা ছাত্রলীগের সাংগঠনিক সম্পাদক অভিষেক মণ্ডল মারধর করলে আন্দোলনকারীদের অনিশ্চায় প্রশাসন ওই দিন আর আলোচনায় বসেননি।

ব্রেকিংনিউজ/এমএ/এমআর