রাজধানীতে অস্ত্রের ভয় দেখিয়ে ছিনতাই ও ডাকাতি করতো তারা

স্টাফ করেসপন্ডেন্ট
১১ জুলাই ২০১৯, বৃহস্পতিবার
প্রকাশিত: ১১:২৩

রাজধানীতে অস্ত্রের ভয় দেখিয়ে ছিনতাই ও ডাকাতি করতো তারা

রাজধানীর শেরেবাংলা নগর এবং মোহাম্মদপুর থানা এলাকায় পৃথক দুটি অভিযান পরিচালনা করে সংঘবদ্ধ ডাকাত চক্রের ১৩ জনকে গ্রেফতার করেছে র‌্যাব-২। এ সময় তাদের কাছ থেকে চারটি চাপাতি, চারটি চাকু, একটি প্লায়ার্স, দুইটি ড্যাগার এবং দুইটি মোবাইল উদ্ধার করা হয়।

বৃহস্পতিবার (১১ জুলাই) সন্ধ্যায় র‌্যাব-২ থেকে পাঠানো এক সংবাদ বিজ্ঞপ্তিতে এ তথ্য জানানো হয়।

এতে বলা হয়, বুধবার রাতে এক অভিযানে তাদের গ্রেফতার করা হয়।

গ্রেফতারকৃতরা হলেন- নূর মোহাম্মদ ওরফে মামুন, রির্চাড ফোলিয়া ওরফে সাগর, সুমন,  জনি, ওয়াশিম মিয়া, সাদ্দাম হোসেন, রুবেল, সুজন, শাহিন, রুবেল,  আকাশ ইসলাম, ইউসুফ এবং ইলিয়াস হোসেন।

র‍্যাব জানায়, আমাদের কাছে তথ্য আসে কয়েকজন দুষ্কৃতিকারী শেরেবাংলা নগরের ইউজিসি ও বিপিএসসি ভবনের মধ্যবর্তী পাকা রাস্তার পশ্চিম পাশে ফুটপাতের উপর অন্ধকারাচ্ছন্ন স্থানে এবং মোহাম্মদপুরের ঢাকা উদ্যানের দুই নম্বর সড়কের শেষ মাথা সংলগ্ন একতা হাউজিংয়ের মহসিন মাতাব্বরের বাড়ির পূর্বদিকে খালি জায়গায় অবস্থান করছে। এমন খবরে সেখানে অভিযান চালায় র‌্যাব। র‌্যাবের উপস্থিতি টের পেয়ে দৌঁড়ে পালানোর সময় ১৩ ডাকাতকে গ্রেফতার করা হয়।

গ্রেফতারকৃতদের প্রাথমিক জিজ্ঞাসাবাদে জানা যায়, তারা সংঘবদ্ধ ডাকাত দলের সক্রিয় সদস্য। রাতের বেলায় তারা এরকম দুই বা ততোধিক দল একত্র হয়ে নির্দিষ্ট ফ্ল্যাটে বা ফাঁকা বাড়িতে গ্রিল কেটে ও তালা ভেঙে প্রবেশ করে ডাকাতি করে থাকে।

গ্রেফতারকৃতরা জিজ্ঞাসাবাদে আরো জানায়, তারা দীর্ঘদিন যাবৎ ঢাকা শহরের সুবিধাজনক স্থানে বিভিন্ন লোকজনদের চাপাতি, ছোরা, চাকু ও অন্যান্য দেশীয় অস্ত্র দিয়ে ভয় দেখিয়ে ছিনতাই ও ডাকাতি করে আসছিল।

ব্রেকিংনিউজ/টিটি/এমজি