৩ ইউপিডিএফ কর্মী নিহতের ঘটনায় মামলা

মো. জাফর সবুজ, খাগড়াছড়ি প্রতিনিধি
২৭ আগস্ট ২০১৯, মঙ্গলবার
প্রকাশিত: ০৩:৫০ আপডেট: ০৪:০০

৩ ইউপিডিএফ কর্মী নিহতের ঘটনায় মামলা
ফাইল ছবি

খাগড়াছড়ির দীঘিনালার সেনাবাহিনীর সঙ্গে গোলাগুলিতে ইউপিডিএফ’র তিন সন্ত্রাসী নিহতের ঘটনায় হত্যা ও অস্ত্র আইনে পৃথক দুটি মামলা দায়ের করা হয়েছে। 

দীঘিনালা থানা পুলিশের উপ-পরিদর্শক (এসআই) পীযুষ কান্তি দে বাদী হয়ে অজ্ঞাত ব্যাক্তিদের আসামি করে এ মামলা দায়ের করেন।

এদিকে সেনাবাহিনীর সাথে গোলাগুলিতে নিহত তিন ইউপিডিএফ কর্মীর ময়নাতদন্ত সম্পন্ন হয়েছে। মঙ্গলবার (২৭ আগস্ট) দুপুরের দিকে খাগড়াছড়ি আধুনিক জেলা সদর হাসপাতালে ময়নাতদন্ত শেষে তাদের মরদেহ স্বজনদের কাছে হস্তান্তর করা হয়েছে।

দীঘিনালা থানা পুলিশের অফিসার ইনচার্জ (ওসি)  উত্তম কুমার দেব জানান, সেনাবাহিনীর নিয়মিত টহলের উপর সন্ত্রাসীরা গুলি বর্ষণ করে। পরবর্তীতে সেনাবাহিনী আত্মরক্ষার্থে পাল্টা গুলি চালালে তিন সন্ত্রাসী নিহত হয়।  এসময় ঘটনাস্থল থেকে অস্ত্র উদ্ধার করা হয়।  এই ঘটনায় পুলিশ বাদী হয়ে ৫/৬ অজ্ঞাত ব্যক্তিকে আসামি করে হত্যা ও অস্ত্র আইনে মামলা দায়ের করা হয়েছে।    

প্রসঙ্গত, সোমবার (২৬ আগস্ট) খাগড়াছড়ির দীঘিনালার বরাদাম এলাকায় সন্ত্রাসীদদের উপস্থিতির খবর পেয়ে সেনাবাহিনীর একটি টহল দল অভিযানে যায়। এ সময় সেনাবাহিনীর উপস্থিতি টের পেয়ে স্বশস্ত্র সন্ত্রাসীরা সেনা টহল দলকে লক্ষ্য করে অতর্কিত গুলি চালায়। সেনাবাহিনীও আত্মরক্ষার্থে পাল্টা গুলি চালালে ঘটনাস্থলেই তিন সন্ত্রাসী নিহত হহয়। এরপর সেনাবাহিনী ঘটনাস্থলে তল্লাশি চালিয়ে তিন সন্ত্রাসীর মরদেহসহ একটি আমেরিকার তৈরী এম-৪ অটোমেটিক কার্বাইন (গুলিসহ), দুটি পিস্তল ও ৮ রাউন্ড অ্যামুনিশন উদ্ধার করে।

ব্রেকিংনিউজ/জেআই