শাহজাদকে বড় শাস্তিই দিলো আফগানিস্তান

স্পোর্টস ডেস্ক
১০ আগস্ট ২০১৯, শনিবার
প্রকাশিত: ০৭:৫৭ আপডেট: ০৭:৫৯

শাহজাদকে বড় শাস্তিই দিলো আফগানিস্তান

ব্যাট হাতে বাইশ গজে যতোটা ঝড় তোলেন আফগানিস্তানের উইকেটরক্ষক ব্যাটসম্যান মোহাম্মদ শাহজাদ, তার চেয়ে বেশি যেনো তিনি আলোচিত হন নিজের আচার-আচরণ ও অখেলোয়াড়সুলভ বৈশিষ্ট্যের কারণে। নেতিবাচক বিষয়ে খবরের শিরোনাম হওয়াটাকে একপ্রকার নিয়মের পরিণত করেছেন তিনি।

তবে এতদিন ধরে তার এসব কীর্তিকলাপ সহ্য করলেও, আর যেনো মানতে চাইছে না আফগানিস্তান ক্রিকেট বোর্ড (এসিবি)। তাই বোর্ডের পক্ষ থেকে বড়সড় শাস্তিই দেয়া হয়েছে উইকেটরক্ষক এ ব্যাটসম্যানকে।

অনির্দিষ্টকালের জন্য বোর্ডের সঙ্গে শাহজাদের কেন্দ্রীয় চুক্তি স্থগিত করা হয়েছে। বোর্ডের নিয়মের তোয়াক্কা না করে, বিনা অনুমতিতেই দেশের বাইরে ভ্রমণ করায় এ শাস্তি দেয়া হয়েছে শাহজাদকে। শনিবার (১০ আগস্ট) আনুষ্ঠানিক এক বিজ্ঞপ্তিতে এ খবর জানিয়েছে এসিবি।

বিজ্ঞপ্তিতে শাহজাদের করা গুরুতর অপরাধগুলোর কথা উল্লেখ করে বোর্ডের পক্ষ থেকে লেখা হয়েছে, ‘এর আগেও অনেকবার বোর্ডের কোড অব কন্ডাক্ট অমান্য করেছে শাহদাদ। ওয়ানডে বিশ্বকাপের সময় দলের শৃঙ্খলা ভঙ্গ করায় তাকে ডিসিপ্লিনারি কমিটিতে ডাকা হয়েছিল। কিন্তু গত মাসের ২০ এবং ২৫ তারিখ তাকে উপস্থিত থাকতে বলার পরেও আসেনি।’

ইনজুরির কারণ দেখিয়ে বিশ্বকাপের মাঝপথে দেশে ফেরত পাঠানো হয়েছিল শাহজাদকে। তখন বোর্ডের সিদ্ধান্তের প্রতিবাদ করে তিনি বলেছিলেন, ‘আমি জানি না ঠিক কী কারণে আমাকে আনফিট বলা হলো। বোর্ডের কতিপয় ব্যক্তি আমার বিরুদ্ধে ষড়যন্ত্র করেছে। দলের কোচ ফিল সিমন্সও জানতেন না যে আমাকে বাদ দেয়া হচ্ছে। এটা হৃদয় বিদারক।’

শাহজাদের এ মন্তব্যের প্রেক্ষিতে জবাব দিয়েছেন এসিবির প্রধান নির্বাহী আসাদুল্লাহ খান। তিনি বলেন, ‘সে (শাহজাদ) যা বলেছে তা পুরোপুরি ভুল। আইসিসির কাছে আমরা যথাযথ মেডিকেল রিপোর্ট দেয়ার পরই পরিবর্তিত খেলোয়াড় ডেকেছি। আমি বুঝতে পারছি যে দল থেকে বাদ পড়ায় মন খারাপ হয়েছে তার। কিন্তু আনফিট কাউকে তো আর বিশ্বকাপে নেয়া যায় না।’

ব্রেকিংনিউজ/এএফকে