কোচ খুঁজতে ব্যস্ত এশিয়ার পাঁচ দেশ!

স্পোর্টস ডেস্ক
১১ আগস্ট ২০১৯, রবিবার
প্রকাশিত: ০৮:৪৭ আপডেট: ১২:৪২

কোচ খুঁজতে ব্যস্ত এশিয়ার পাঁচ দেশ!

ব্যর্থ বিশ্বকাপ মিশন শেষেই ক্রিকেট পাড়ায় সবচেয়ে আলোচিত বিষয় বাংলাদেশের হেড কোচ। স্টিভ রোডস বিদায় নেবার পর শূন্য টাইগারদের প্রধান কোচের পদ। তবে নয়া কোচ আনাটা সহজ হচ্ছে না বিসিবির জন্য। কারণ শুধু বাংলাদেশ নয়, উপমহাদেশের বাকি চার দলেও ফাঁকা হেড কোচের পদ। ঘুরেফিরে হাতে গোনা কয়েকজনকেই কোচ হিসেবে পেতে চাইছে সবগুলো বোর্ড। 

টাইগারদের প্রধান কোচের দায়িত্ব পাচ্ছেন কে? ঈদের আমেজেও ক্রিকেট কর্তা থেকে ফ্যান সবার আলোচনার ইস্যু একটাই। সম্ভাব্য হেডকোচের তালিকায় ডোমিঙ্গো-মাইক হেসন থেকে শুরু করে তিক্ততায় বিসিবির সাথে সম্পর্ক শেষ হওয়া হাথুরুও।
 
অনেকটা একই অবস্থা উপমহাদেশের বাকি চার দলেরও। বিশ্বকাপে সাব কন্টিনেন্টের একমাত্র দল হিসেবে সেমিতে উঠলেও আর ফাইনাল খেলা হয়নি টিম ইন্ডিয়ার। পাকিস্তান, শ্রীলংকা, আফগানিস্তানও ধুকেছে পুরো টুর্নামেন্ট জুড়ে। আর  কোচরা চাকরি হারিয়ে দিয়েছেন তার খেসারত। রবি শাস্ত্রী ভারতের কোচ থাকলেও বিসিসিআই ও নেমেছে কোচের সন্ধানে। আর তাতেই সৃষ্টি হয়েছে কোচ সংকট।

বিশ্বকাপ ৫ নম্বরে থেকে শেষ করলেও কোচ মিকি আর্থারের সাথে নতুন করে চুক্তি করেনি পাকিস্তান। হেডকোচের সাথে বোলিং, ব্যাটিং কোচও বদলেছে পাকিস্তান। ওদের নতুন কোচের দায়িত্বটা পেতে পারেন সাবেক ক্রিকেটার মিসবাহ উল হক।

রবি শাস্ত্রীর মেয়াদ বাড়ানোর কথা চললেও কোচ বিরাট কোহলিদের কোচ হতে আগ্রহী অনেকেই। সেই তালিকায় ওপরের দিকে আছেন বাংলাদেশের কোচ ক্যান্ডিডেট মাইক হেসনও। বাকিদের মধ্যে বড় নাম মাহেলা জয়াবর্ধনে, জন্টি রোডস আর মিকি আর্থার।

নিজ দেশের জন্য বাংলাদেশের চাকরি ছেড়েছিলেন হাতুরে। সে কোচকেই বিদায় করেছে লংকান বোর্ড। নিউজিল্যান্ড সফরের জন্য, অন্তবর্তীকালীন কোচ রত্নায়েকের ওপরই আপাতত ভরসা রাখছে বোর্ড। বিশ্বকাপের পর ফিল সিমন্সকে ছাটাইয়ের পর কোচ খুজছে আফগানরাও।

ব্রেকিংনিউজ/এএফকে