শিগগিরই ডেঙ্গু নির্মূল হবে, কিটের সংকটও নেই: স্বাস্থ্যমন্ত্রী

শাহজাহান বিশ্বাস, মানিকগঞ্জ প্রতিনিধি
৫ আগস্ট ২০১৯, সোমবার
প্রকাশিত: ০৭:০৮ আপডেট: ০৭:৪৬

শিগগিরই ডেঙ্গু নির্মূল হবে, কিটের সংকটও নেই: স্বাস্থ্যমন্ত্রী

ঈদের সময় ডেঙ্গু রোগী আরও বেড়ে যাওয়ার আশংকা করে স্বাস্থ্যমন্ত্রী জাহিদ মালেক বলেছেন, ‘ডেঙ্গু যেহেতু ঢাকায় বেশি হয়েছে, এই ডেঙ্গু রোগীরাই সারাদেশে ডেঙ্গু ছড়িয়ে দিতে পারে। প্রতিটি জেলায় ডেঙ্গু নিয়ন্ত্রণে জেলা প্রশাসক ও সিভিল সার্জনকে যথাযথ ব্যবস্থা নেয়ার নিদের্শ দেয়া হয়েছে।’

সোমবার (৫ আগস্ট) দুপুরে মানিকগঞ্জ জেলা হাসপাতালে চিকিৎসাধীন ডেঙ্গু রোগীদের দেখতে এসে মন্ত্রী এসব কথা বলেন।

মন্ত্রী বলেন, ‘ডেঙ্গু পরীক্ষায় এখন আর কিটের কোনো সংকট নেই। ইতোমধ্যে প্রায় ৪ লাখ কিট আনা হয়েছে। প্রতিটি জেলায় কিট পৌঁছে দেয়া হয়েছে। আক্রান্তের সংখ্যা আগের চেয়ে কমে এসেছে। খুব শিগগিরই ডেঙ্গু নির্মূল হয়ে যাবে।’

তিনি বলেন, ‘সারাদেশে ডেঙ্গু প্রতিরোধে সামাজিক আন্দোলন শুরু হয়েছে। তাই ডেঙ্গুর সার্বিক পরিস্থিতি আগের চেয়ে অনেক ভালো। আক্রান্তের হারও কমেছে ‘

হাসপাতাল পরিদর্শনকালে মন্ত্রীর সঙ্গে উপস্থিত ছিলেন- জেলা প্রশাসক এসএম ফেরদৌস, পুলিশ সুপার রিফাত রহমান শামীম, মানিকগঞ্জ পৌরসভার মেয়র গাজী কামরুল হুদা সেলিম, জেলা আইনজীবী সমিতির সভাপতি ও জেলা আওয়ামী লীগের সিনিয়র সহ-সভাপতি অ্যা্ডভোকেট আব্দুল মজিদ ফটো, সিভিল সার্জন ডা. আনোয়ারুল আমিন আখন্দ, কর্ণেল মালেক মেডিক্যাল কলেজের অধ্যক্ষ প্রফেসর আকতারুজ্জামান, জেলা হাসপাতালের তত্ত্বাবধায়ক ডা. আব্দুল আওয়াল, আবাসিক মেডিকেল কর্মকর্তা ডা. লুৎফর রহমান, জেলা আওয়ামী লীগের যুগ্ম সম্পাদক সুলতানুল আজম খান আপেল, সাংগঠনিক সম্পাদক সুদেব সাহা, শ্রম বিষয়ক সম্পাদক মাস্তান লিয়াকত আলী ভান্ডারী, মানিকগঞ্জ সদর উপজেলা আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক আফসার উদ্দিন সরকার, মানিকগঞ্জ পৌর আওয়ামী লীগের সভাপতি মোনায়েম খান, সাধারণ সম্পাদক জাহিদুল ইসলাম প্রমুখ।  

পরে মন্ত্রী হাসপাতাল চত্তরে মশক নিধন কর্মসূচির ক্রাশ প্রোগ্রাম উদ্বোধন করেন। 

ব্রেকিংনিউজ/জেআই

 

bnbd-ads