সংবাদ শিরোনামঃ
bnbd-ads
bnbd-ads

মামীর সঙ্গে ভাগনের পরকীয়া, দেখে ফেলায় নানা খুন

কুষ্টিয়া প্রতিনিধি
১১ ফেব্রুয়ারি ২০১৯, সোমবার
প্রকাশিত: ০২:২৯ আপডেট: ০২:৩০

মামীর সঙ্গে ভাগনের পরকীয়া, দেখে ফেলায় নানা খুন

কুষ্টিয়ার খোকসায় মামীর সঙ্গে আপত্তিকর অবস্থায় দেখে ফেলায় মজিবুর রহমান (৭০) নামে এক ব্যক্তিকে ছুরিকাঘাতে খুন করেছে তার নাতি ও পুত্রবধূ।

এ ঘটনায় অভিযুক্ত নাতি নাঈম (২১) ও নিহতের পুত্রবধু সামিয়াকে (৩৪) আটক করেছে পুলিশ।

রবিবার (১০ ফেব্রুয়ারি) দিবাগত মধ্যরাতে খোকসা উপজেলার শমসপুর ইউনিয়নের সন্তোষপুর এলাকায় এ ঘটনা ঘটে। নিহত মজিবার রহমান ওই এলাকার মৃত গোসাই শেখের ছেলে।

প্রাথমিক জিজ্ঞাসাবাদে নাঈম সব ঘটনা স্বীকার করেছে বলে নিশ্চিত করেছেন খোকসা থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) এবিএম মেহেদী মাসুদ।

তিনি জানান, বেশ কিছুদিন ধরেই নিহত মজিবুর রহমানের বড় মেয়ের বড় ছেলে নাঈমের সাথে মেজ ছেলের স্ত্রী সামিয়ার মধ্যে অবৈধ সম্পর্ক চলছিল। রবিবার রাতে ঢাকা থেকে এসে নাঈম নানা বাড়ি যায়। মেজ মামা মাসুদের অনুপস্থিতিতে সে তার স্ত্রী সামিয়ার সাথে পরকীয়ায় লিপ্ত হয়।

এসময় নানা মজিবুর রহমান দেখে ফেলে। বিষয়টি প্রকাশ হয়ে যাবে এই ভয়ে নাঈম তার নানাকে ঘর থেকে বারান্দায় বের করে এনে বুকে ধারালো ছুরি দিয়ে আঘাত করে পালিয়ে যায়। অন্যরা মজিবুর রহমানকে উদ্ধার করে খোকসা উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে নিলে কর্তব্যরত চিকিৎসক তাকে মৃত ঘোষণা করেন।

খবর পেয়ে পুলিশ রাতেই নাঈমের নিজবাড়ি কুমারখালী থেকে তাকে আটক করে, এবং তার স্বীকারোক্তিতে নিহত মজিবুর রহমানের বাড়ি থেকে তার পুত্রবধু সামিয়াকে আটক করে থানায় নেয়।

লাশ ময়নাতদন্তের জন্য কুষ্টিয়া জেনারেল হাসপাতাল মর্গে পাঠানো হয়েছে। এ বিষয়ে থানায় মামলা দায়েরের প্রস্তুতি চলছে বলেও জানান ওসি।

ব্রেকিংনিউজ/এনএসএন

bnbd-ads
bnbd-ads