সংবাদ শিরোনামঃ

‘লাশ ঝুলন্ত থাকলেও গৃহবধূর পা মেঝেতে ছিল’

সাতক্ষীরা প্রতিনিধি
১৩ ফেব্রুয়ারি ২০১৯, বুধবার
প্রকাশিত: ০১:৩৭ আপডেট: ০১:৩৮

‘লাশ ঝুলন্ত থাকলেও গৃহবধূর পা মেঝেতে ছিল’

সাতক্ষীরার ব্রম্মরাজপুরে শ্বশুর বাড়ির ফ্যানের সাথে ঝুলন্ত অবস্থায় উদ্ধার হওয়া গৃহবধূ আঁখি বোসকে পরিকল্পিতভাবে হত্যা করা হয়েছে বলে অভিযোগ করেছেন নিহতের মা জোছনা বসু। 

তিনি বলেন, আমার মেয়ের শ্বশুর-শ্বাশুড়ি ও স্বামী প্রায়ই তাকে নির্যাতন করতো। পারিবারিক কলহের জের ধরে আমার মেয়েকে মুখে বিষ ঢেলে হত্যার পর লাশ ফ্যানে ঝুলিয়ে দেওয়া হয়েছে।

সাতক্ষীরা সদর উপজেলার ব্রম্মরাজপুর পুলিশ ফাঁড়ির উপপরিদর্শক (এসআই) হাসানুজ্জামান বলেন, আঁখির লাশ ঝুলন্ত থাকলেও তার দুটি পা মেঝেতে পাতানো অবস্থায় ছিল। নিহতের নাক থেকে দুর্গন্ধযুক্ত বিষাক্ত পানি বের হচ্ছিল। তবে তার দেহে কোনো আঘাতের চিহ্ন পাওয়া যায়নি। 

তিনি আরো বলেন, এটি হত্যা না আত্মহত্যা তা এখনই বলা কঠিন। লাশের ময়নাতদন্তের জন্য সাতক্ষীরা সদর হাসপাতাল মর্গে পাঠানো হয়েছে। ময়নাতদন্ত শেষে বিস্তারিত জানা যাবে।

মঙ্গলবার ঝুলন্ত অবস্থায় পুলিশ আঁখি বোসের লাশ উদ্ধার করে। 

এ ঘটনায় নিহত আঁখির স্বামী অরুপ বোস, তার শ্বশুর এস কে বোস (সন্তোষ বোস) ও শাশুড়ি অশোক বোসকে জিজ্ঞাসাবাদের জন্য আটক করে পুলিশ।

ব্রেকিংনিউজ/এমজি