bnbd-ads
bnbd-ads

চিকিৎসক নাফিজাকে ধর্ষণ-হত্যা হুমকি: গ্রেফতারের ২ ঘণ্টা পর মুক্ত ছাত্রলীগ নেতা

স্টাফ করেসপন্ডেন্ট
১৪ মে ২০১৯, মঙ্গলবার
প্রকাশিত: ০৫:২২ আপডেট: ০৮:২৯

চিকিৎসক নাফিজাকে ধর্ষণ-হত্যা হুমকি: গ্রেফতারের ২ ঘণ্টা পর মুক্ত ছাত্রলীগ নেতা

সিলেট উইমেন্স মেডিক্যাল কলেজের ইন্টার্ন চিকিৎসক ডা. নাজিফা আনজুম নিশাতকে ছোরা দেখিয়ে ‘হত্যা ও ধর্ষণের’ হুমকি দেয়ার ঘটনায় দায়ের করা মামলায় দুই ঘণ্টার মাথায় জামিন পেয়ে গেছেন দক্ষিণ সুরমা উপজেলা ছাত্রলীগের সহসভাপতি সারোয়ার হোসেন চৌধুরী। 

মঙ্গলবার (১৪ মে) দুপুরে সারোয়ার গ্রেফতার হওয়ার আগেই সিলেট অতিরিক্ত চিফ মেট্রোপলিটন ম্যাজিস্ট্রেট আদালতের বিচারক মোস্তাইন বিল্লাহ আদালতে হাজির হয়ে জামিনের আবেদন করলে আদালত তার জামিন মঞ্জুর করেন। 

সিলেট অতিরিক্ত চিফ মেট্রোপলিটন ম্যাজিস্ট্রেট আদালতের বেঞ্চ সহকারী আইয়ুব আলী বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন।

সিলেট কোতোয়ালি থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) সেলিম মিঞা বলেন, ‘দুপুর আড়াইটার দিকে আদালতের গেট থেকে সারোয়ারকে গ্রেফতার করা হয়। আদালতের কাগজপত্র যাচাই-বাছাই শেষে তাকে সোয়া ৩টার দিকে জামিন দেয়া হয়।’

গত ৯ মে বিকেলে ১০-১৫ ছাত্রলীগ নেতাকর্মী পেটের পীড়ায় ভোগা একজনকে সিলেট উইমেন্স মেডিক্যাল কলেজ হাসপাতালে নিয়ে যান। এসময় রোগীর সঙ্গে একজন থেকে বাকিদের বাইরে যেতে বলেন কর্তব্যরত চিকিৎসক। 

এ নিয়ে কথা কাটাকাটির একপর্যায়ে চিকিৎসকের ওপর চড়াও হয় ছাত্রলীগ নেতাকর্মীরা। এ সময় সারোয়ার চিকিৎসক নাজিফা আনজুম নিশাতকে ছুরি দেখিয়ে হত্যা ও ধর্ষণের হুমকি দেন। 

এ ঘটনায় ১৩ মে রাতে মহানগর পুলিশের কোতোয়ালি থানায় মামলা দায়ের করেন সিলেট উইমেন্স মেডিক্যাল কলেজ হাসপাতালের পরিচালক ডা. ফেরদৌস হাসান। এর আগে গত শনিবার (১১ মে) ইন্টার্ন চিকিৎসক ডা. নাজিফা আনজুম নিশাতের নিরাপত্তা চেয়ে থানায় সাধারণ ডায়েরি (নং-৬১৭ ) করেছিলেন ডা. ফেরদৌস।

ব্রেকিংনিউজ/এমআর

bnbd-ads
MA-in-English
bnbd-ads