সেপটিক ট্যাংক থেকে মোবাইল উদ্ধার করতে গিয়ে ২ তরুণের মৃত্যু

স্টাফ করেসপন্ডেন্ট, রংপুর
১১ জুন ২০১৯, মঙ্গলবার
প্রকাশিত: ০৫:১০

সেপটিক ট্যাংক থেকে মোবাইল উদ্ধার করতে গিয়ে ২ তরুণের মৃত্যু

রংপুরের পীরগঞ্জের রামনাথপুর বড়ঘোলা গ্রামে টয়লেটের সেপটিক ট্যাংকে পড়া যাওয়া মোবাইল ফোন উদ্ধার করতে নেমে এক কলেজ ছাত্রসহ দুই তরুণের অকাল মৃত্যু হয়েছে। গুরুতর অসুস্থ অবস্থায় আরও একজনকে হাসপাতালে ভর্তি করা হয়েছে।

সোমবার (১০ জুন) দিবাগত রাতে এ ঘটনাটি ঘটেছে। ঘটনার সত্যতা নিশ্চিত করেছেন রামনাথপুর ইউনিয়নের চেয়ারম্যান জাহিদুল ইসলাম জাহাঙ্গীর। 

তিনি জানান, বড়ঘোলা গ্রামের মসের উদ্দিনের ছেলে দুলু মিয়া রাতে প্রকৃতির ডাকে সাড়া দিয়ে টয়লেটে যায়। এসময় অসাবধানবশতঃ তার হাতে থাকা মোবাইল ফোনটি সেপটিক ট্যাংকে পড়ে যায়। ফোনটি উদ্ধারে একটি বাঁশ বেয়ে ট্যাংকে নামেন দুলু মিয়া। কিন্তু তার উপরে উঠতে বিলম্ব হলে প্রতিবেশি আজহার আলীর কলেজ পড়ুয়া ছেলে এনামুল হকও সেপটিক ট্যাংকে নেমে পড়েন। দুজনের উপরে উঠে আসার জন্য কোন সারা শব্দ না পেয়ে শাহিন নামে আরেক যুবক সেখানে নামেন।

পরে স্থানীয়দের দেয়া খবরে ঘটনাস্থলে এসে ফায়ার সার্ভিসরা তিনজনকে উদ্ধার করেন। এর মধ্যে কারমাইকেল কলেজের অর্নাসের ছাত্র এনামুল হক সেপটিক ট্যাংকে শ্বাসকষ্টে এবং দুলু মিয়াকে হাসপাতালে নেয়ার পথে মারা যান। অপরজন শাহিন মিয়াকে পীরগঞ্জ উপজেলা হাসপাতালে ভর্তি করা হয়েছে। তার অবস্থা আশঙ্কাজনক বলে জানা গেছে। এদিকে এঘটনায় গ্রামটিতে শোকের ছায়া নেমে এসেছে।

ব্রেকিংনিউজ/ এসএ