তিস্তার ভাঙনে বিলীনের পথে বন্যা নিয়ন্ত্রণ বাঁধ

স্টাফ করেসপন্ডেন্ট
১৯ জুলাই ২০১৯, শুক্রবার
প্রকাশিত: ১১:২২

তিস্তার ভাঙনে বিলীনের পথে বন্যা নিয়ন্ত্রণ বাঁধ

রংপুরের গঙ্গাচড়া উপজেলায় তিস্তা নদীতে বন্যার পানি নেমে যাওয়ার সাথে সাথে বাম তীরে তীব্র ভাঙন দেখা দিয়েছে। ইতোমধ্যে বাম তীরের বন্যা নিয়ন্ত্রণ একটি বাঁধের অর্ধেকাংশ নদীগর্ভে বিলীন হয়েছে। গত বুধবার থেকে গ্রামবাসীর সহযোগিতায় বালু ভর্তি জিও ব্যাগ ফেলে বাঁধ রক্ষার চেষ্টা করছেন রংপুর পানি উন্নয়ন বোর্ড। 

স্থানীয়রা জানায় তিস্তার ভাঙন ও বন্যার কবল থেকে উপজেলার কোলকোন্দ ও লক্ষ্মীটারী ইউনিয়নের কয়েকটি গ্রামসহ শেখ হাসিনা সেতুর সংযোগ সড়ক রক্ষা করার জন্য গত বছর ব্যক্তিগত উদ্যোগ নিয়ে কোলকোন্দ ইউনিয়নের বিনবিনা গ্রামের আতিকুলের বাড়ি সংলগ্ম এলাকায় আটশো মিটার বাঁধ নির্মাণ করেন লক্ষ্মীটারী ইউনিয়ন পরিষদ চেয়ারম্যান আব্দুল্লাহ আল হাদী। তাকে সহযোগিতা করেন স্থানীয় এলাকাবাসী। গত সপ্তাহের বন্যার পানি কমে যাওয়ার সাথে সাথে তিস্তার বাম তীরে দেখা দেয় তীব্র ভাঙন। ভাঙনে ইতোমধ্যে ওই বাঁধটির তিনশো মিটার নদীগর্ভে বিলীন হয়েছে। শুক্রবার ভাঙন স্থানে গিয়ে দেখা যায় স্থানীয় লোকজন পানি উন্নয়ন বোর্ডের দেয়া জিও ব্যাগে বালু ভর্তি করে ভাঙন স্থানে ফেলে বাঁধটি রক্ষার চেষ্টা করছেন। 

এ বিষয়ে লক্ষ্মীটারী ইউনিয়ন পরিষদ চেয়ারম্যান আব্দুল্লাহ আল হাদী বলেন, বাঁধটি রক্ষা করা না গেলে কোলকোন্দ ইউনিয়নের বিনবিনা, লক্ষ্মীটারী ইউনিয়নের শংকরদহ, চর ইচলি গ্রামসহ শেখ হাসিনা সেতু সংযোগ সড়ক ভাঙন হুমকির মধ্যে পড়বে। তিনি দ্রুত বাঁধটি রক্ষার জন্য সংশ্লিষ্ট কর্তৃপক্ষের হস্তক্ষেপ কামনা করেন।
 
রংপুর পানি উন্নয়ন বোর্ডের নির্বাহী প্রকৌশলী মেহেদী হাসান জানান, বাঁধটি খুবই ঝুঁকির মধ্যে রয়েছে। যেকোনো সময় পুরো বাঁধটি ভেঙে যেতে পারে। ভাঙন অংশে জরুরি ভিত্তিতে কাজ শুরু করা হয়েছে। ইতোমধ্যে এলাকাবাসীর সহযোগিতায় ভাঙন স্থানে প্রায় ২ হাজার ৫ শত বালু ভর্তি জিও ব্যাগ ফেলা হয়েছে।

ব্রেকিংনিউজ/এমজি

bnbd-ads