এই সরকারের আমলে দেশ তলাবিহীন ঝুড়িতে পরিণত হয়েছে: মিনু

স্টাফ করেসপন্ডেন্ট
১২ সেপ্টেম্বর ২০১৯, বৃহস্পতিবার
প্রকাশিত: ০১:০৯

এই সরকারের আমলে দেশ তলাবিহীন ঝুড়িতে পরিণত হয়েছে: মিনু

২৯ সেপ্টেম্বর রাজশাহী বিভাগীয় সমাবেশ সফল করার লক্ষ্যে বুধাবার (১১ সেপ্টেম্বর) রাজশাহী মহানগর বিএনপি প্রস্তুতিমূলক সভা অনুষ্ঠিত হয়েছে। নগরীর একটি কনভেনশণ সেন্টারে আয়োজিত সভায় সভাপতিত্ব করেন বিএনপি কেন্দ্রীয় কমিটির বন ও পরিবেশ বিষয়ক সম্পাদক, রাজশাহী মহানগর বিএনপি’র সভাপতি ও সাবেক সিটি মেয়র মোহাম্মদ মোসাদ্দেক হোসেন বুলবুল। 

সভায় প্রধান অতিথি ছিলেন বিএনপি চেয়ারপার্সন বেগম খালেদা জিয়ার অন্যতম উপদেষ্টা, সাবেক মেয়র ও সংসদ সদস্য জননেতা মিজানুর রহমান মিনু। সভা সঞ্চালনায় ছিলেন  বিএনপি কেন্দ্রীয় কমিটির ত্রাণ ও পুনর্বাসন বিষয়ক সহ-সম্পাদক ও রাজশাহী মহানগর বিএনপি’র সাধারণ সম্পাদক এ্যাডভোকেট শফিকুল হক মিলন। বিশেষ অতিথি ছিলেন বিএনপি কেন্দ্রীয় কমিটির সদস্য ও জেলা বিএনপি’র আহবায়ক আবু সাইদ চাঁদ, যুগ্ম আহবায়ক সাইফুল ইসলাম মার্শাল ও কেন্দ্রীয় কমিটির সদস্য সহিদুন্নাহার কাজী হেনা।

উপস্থিত নেতৃবৃন্দ চলতি মাসের ২৯ তারিখ বিভাগীয় সমাবেশ সফল করতে প্রয়োজনীয় সকল ব্যবস্থা গ্রহণ করবেন বলে প্রতিশ্রুতি দেন। তারা বলেন, সরকারি বাহিনী যতই বাধা প্রদান করুক না কেন কোন বাধাই তারা মানবে বলে অঙ্গীকার করেন নেতৃবৃন্দ। 

প্রধান অতিতিথর বক্তব্যে মিনু বলেন, এই সরকার উন্নয়নের নামে দেশকে একট অকার্যকর এবং তলাবিহীন ঝুড়িতে পরিণত করেছে। দেশে নতুন করে কোন কলকারখানা তৈরি হয়নি। সরকারি চাকুরী দেওয়ার নামে প্রার্থীদের নিকট থেকে সরকারে এমপি, মন্ত্রী ও নেতারা হাজার হাজার কোটি টাকা লোপাট করেছে। দেশে এখন সাড়ে চার লাখ যুবক-যুবতী বেকার। তারা কর্ম না পেয়ে নেশা ও সন্ত্রাসসের দিকে ঝুঁকে পড়ছে। 

তিনি বলেন, ১৯০ জনের নিকট দেশ এখন জিম্মি হয়ে পড়েছে। আর এই বিলিয়ন টাকা মালিক ১৯০ জন নিকট বর্তমান সরকার অসহায় পড়েছে। দেশে এখন কোন প্রকার আইনের শাসন নাই। প্রতিদিন খুন, ধর্ষণ, গুম হয়েই চলছে। ধর্ষণের হাত শেকে ২ থেকে ১০ বছরের শিশুরা এবং গৃহবধূরাও রেহাই পাচ্ছে না। এরসাথে আবার এখন আইনশৃঙ্খলা বাহিনীর সদস্যরা যুক্ত হলেও তাদের বিরুদ্ধে সরকার কোনো পদক্ষেপ নিতে পারছে না। কারণ আইনশৃঙ্খলা বাহিনী ও প্রশাসনের উপর ভর করে এই সরকার ক্ষমতায় এসেছে। তাদের জনগণ ভোট দেয়নি। ভোট চুরি করে তারা সংসদে গেছেন বলে বক্তৃতায় উল্লেখ করেন তিনি।

 মিনু বলেন, এই সরকার পাকস্তানী হানাদার বাহিনীর থেকে খারাপ। তারা বিরোধী দলের নেতাকর্মীদের দমনে সর্বদা কাজ করে চলছে। এই ১৩ বছরে ৮৩ থেকে ৮৭ শতাংশ বাজেটের টাকা ঢাকা এবং গোপালগঞ্জে এই সরকার ব্যয় করেছে। 

পাকিস্তানি সরকারের মতো অন্যান্য বিভাগের সাথে বৈষম্যমূলক আচরণ করছে এই সরকার। এই সরকার কৃষককে ধ্বংশ করেছে। শেয়ার বাজার ধ্বংশ করে লক্ষ লক্ষ মানুষকে পথে বসিয়েছে। বর্তমান অবৈধ সরকারের এই সকল কর্মকাণ্ড বন্ধ, গণতন্ত্র পুণরুদ্ধার, এবং দেশনেত্রী তিন বারের সফল প্রধানমন্ত্রী বেগম খালেদা জিয়াকে কারাগার থেকে মুক্ত ও বিএনপি ভারপ্রাপ্ত সভাপতি তারেক রহমানকে দেশে ফিরিয়ে আনার জন্য এই সরকারের পতন ঘটাতে হবে। সরকারের পতনের জন্য কঠোর আন্দোলন গড়ে তোলার লক্ষে আগামী মহাবেশ অত্যন্ত গুরুত্বপূর্ণ।  সমাবেশ সফল করতে সকল বাধা অতিক্রম করে রাজশাহী মাদ্রাসা মাঠে উপস্থিত হওয়ার জন্য সকল স্তরের নেতাকর্মীদের আহবান জানান। সেইসাথে প্রতিটি পাড়া মহল্লা, থানা, ইউনিয়ন ও ওয়ার্ডে ওয়ার্ডে সভা করার পরামর্শ দেন প্রধান অতিথি।

ব্রেকিংনিউজ/এমজি