‘সারা দিন ভোটকেন্দ্র শূন্য, একঘণ্টায় ২২ শতাংশ কিভাবে হলো?’

স্টাফ করেসপন্ডেন্ট, রংপুর
৬ অক্টোবর ২০১৯, রবিবার
প্রকাশিত: ০১:০৩ আপডেট: ০৫:১৯

‘সারা দিন ভোটকেন্দ্র শূন্য, একঘণ্টায় ২২ শতাংশ কিভাবে হলো?’

ইভিএমের মাধ্যমে ভোটগ্রহণ হওয়া রংপুর সদর-৩ আসনের উপ-নির্বাচনে ভয়াবহ কারচুপির অভিযোগ করেছেন বিএনপির ধানের শীষের প্রার্থী রিটা রহমান। সকাল থেকে বিকেল পর্যন্ত ভোটার শূন্য কেন্দ্রে কিভাবে ২২.৮৬ শতাংশ ভোটগ্রহণ হলো- এমন প্রশ্ন তুলেছেন তিনি।

নির্বাচনী ফলাফল প্রত্যাখ্যান করে শনিবার (৫ অক্টোবর) রাতে নগরীর রাধাবল্লভ মহল্লার বাসায় সংবাদ সম্মেলন করেন রিটা রহমান।

ধানের শীষের প্রার্থীর অভিযোগ, ‘নির্বাচনে সকাল থেকে আমি বিভিন্ন কেন্দ্রে ঘুরে দেখেছি, কোনও ভোটার নেই, কেন্দ্র কেন্দ্র ফাঁকা। নির্বাচনের দায়িত্বে নিয়োজিত কর্মকর্তারা অলস সময় পার করেছেন।’

‘বিকাল ৪টা পর্যন্ত ভোটের হার ছিল ৯-১০ শতাংশ। অথচ মাত্র একঘণ্টার মধ্যে তা পরিবর্তন করে ২২.৮৬ শতাংশ দেখানো হলো। ৪টা থেকে বিকেল ৫টার মধ্যে এতো ভোট কারা দিল? এটা সরকার পরিকল্পিতভাবে করেছে। এটা আমরা যেমন মেনে নিতে পারিনি, ভোটাররা এই ফল গ্রহণ করেননি। এই ফল আমরা প্রত্যাখ্যান করছি।’

তিনি আরও অভিযোগ করেন, ‘যেসব ইউনিয়নে বিএনপির শক্ত ঘাঁটি আছে, নির্বাচনের আগের রাতে সেসব ইউনিয়নে বিএনপি কর্মীদের বাড়িতে বাড়িতে হানা দিয়েছে পুলিশ। পুলিশ পোস্টারও ছিঁড়েছে। এতকিছুর পরও আশা করেছিলাম, নির্বাচন ইভিএমে নিরপেক্ষ হবে। কিন্তু তা হলো না।’

এসময় উপস্থিত ছিলেন জেলা বিএনপির সভাপতি সাইফুল ইসলাম, সাধারণ সম্পাদক রইছ আহাম্মেদ, মহানগর বিএনপির সিনিয়র সহ-সভাপতি শামসুজ্জামান শামু, সাধারণ সম্পাদক শহীদুল ইসলাম মিজু প্রমুখ।

রংপুর-৩ (সদর) আসনের উপনির্বাচনে লাঙ্গল প্রতীক নিয়ে ৫৮ হাজার ৮৭৮ ভোট পেয়ে বেসরকারিভাবে জয় লাভ করেছেন মহাজোটের প্রার্থী ও জাতীয় পার্টির প্রতিষ্ঠাতা চেয়ারম্যান প্রয়াত এইচ এম এরশাদের ছেলে রাহগীর আল মাহী ওরফে সাদ এরশাদ। ধানের শীষ প্রতীকে ১৬ হাজার ৯৪৭ ভোট পেয়ে দ্বিতীয় অবস্থানে আছেন বিএনপির প্রার্থী রিটা রহমান। মোটরগাড়ি প্রতীকে স্বতন্ত্র প্রার্থী মকবুল শাহরিয়ার ওরফে আসিফ (আসিফ শাহরিয়ার) পেয়েছেন ১৪ হাজার ৯৮৪ ভোট, তার অবস্থান তৃতীয়। 

সন্ধ্যা ৭টার পর রংপুরের পুলিশ হলে নির্বাচন কমিশনের পক্ষ থেকে বেসরকারিভাবে এই ফলাফল ঘোষণা করেন রির্টানিং কর্মকর্তা জি এম শাহাতাব উদ্দিন। রংপুর-৩ আসনের ১৭৫টি কেন্দ্রে মোট ৪ লাখ ৪১ হাজার ২২৪ ভোটারের মধ্যে ভোট দিয়েছেন ৯৪ হাজার ৬ জন। ভোট কাস্টিংয়ের অনুপাত ২২.৮৬ শতাংশ। 

ব্রেকিংনিউজ/ এসএ 

bnbd-ads