bnbd-ads
bnbd-ads

পুলিশের উন্নত চিকিৎসায় রংপুরে হচ্ছে ৫০ শয্যার হাসপাতাল

স্টাফ করেসপন্ডেন্ট, রংপুর
১৪ মার্চ ২০১৯, বৃহস্পতিবার
প্রকাশিত: ০৩:৪৬ আপডেট: ০৩:৪৭

পুলিশের উন্নত চিকিৎসায় রংপুরে হচ্ছে ৫০ শয্যার হাসপাতাল

পুলিশ ও তাদের পরিবারের সদস্যদের উন্নত চিকিৎসা সেবা নিশ্চিত করতে রংপুর নগরীতে আধুনিক মানের ৫০ শয্যার হাসপাতাল নির্মিত হচ্ছে। 

রংপুর বিভাগ গণপূর্ত অধিদফতরের অধীনে বাস্তবায়নাধীন এই হাসপাতালটি হবে চার তলা বিশিষ্ট। এতে ব্যয় হবে ৬ কোটি ৫৪ লক্ষ ৭৫ হাজার টাকা। জুনের মধ্যে এই হাসপাতাল উদ্বোধন করা হবে বলে সংশ্লিষ্ট সূত্র জানিয়েছে। এখানে উন্নতমানের চিকিৎসাসেবা ছাড়াও থাকবে রোগ নির্ণয়ের জন্য পরীক্ষা-নিরীক্ষা ও ডায়াগনস্টিক সেন্টার। চিকিৎসা সেবার পাশাপাশি একজন পুলিশ সদস্য ও তার পরিবারের লোকজন বিনামূল্যে ওষুধও পাবেন। 

এদিকে, পুলিশের আধুনিক মানের হাসপাতাল নির্মাণে পুলিশ সদস্য ও তাদের পরিবারের সদস্যদের মাঝে খুশির আমেজ লক্ষ্য করা গেছে। অনেক পুলিশ সদস্য ও তাদের আত্মীয়-স্বজন হাসাপাতাল নির্মাণের উদ্যোগকে সাধুবাধ জনিয়েছেন। একজন পুলিশ সদস্য অবসরে গেলেও হাসপাতালে চিকিৎসাসেবা পাবেন।

রংপুর বিভাগ গণপূর্ত অধিদফতর সূত্রে জানা যায়, ২০১৭ সালের ২৯ অক্টোবর স্বরাষ্ট্র মন্ত্রণালয়ের অধীনে ৬ কোটি ৫৪ লাখ টাকা ৭৫ হাজার টাকা ব্যয়ে ৪ তলা বিশিষ্ট ৫০ শয্যার এই হাসপাতাল নির্মাণের কাজ শুরু করা হয়। ২০১৮ সালের ২৮ অক্টোবর হাসপাতাল নির্মাণের কাজ শেষ করার কথা থাকলেও বিভিন্ন কারণে নির্দিষ্ট সময়ে হাসপাতাল নির্মাণের কাজ সম্পন্ন করতে পারেনি ঠিকাদারি প্রতিষ্ঠান।

গণপূর্ত রংপুর বিভাগের নির্বাহী প্রকৌশলী সাকিউল আলম বলেন, ‘টাইলস কাটিং, সীমানা প্রাচীর নির্মাণ ও বৃষ্টির কারণে নির্ধারিত সময়ে কাজ শেষ করা সম্ভব হয়নি। তবে আগামী জুন মাসের মধ্যেই নির্মাণ কাজ শেষ হবে বলে আশা করছি।’

রংপুর জেলা পুলিশ সুপার মিজানুর রহমান বলেন, ‘প্রাথমিকভাবে চারতলা বিশিষ্ট ৫০ শয্যার হাসপাতালে পুলিশ ও তার পরিবারের সদস্যরা উন্নত চিকিৎসাসেবা পাবেন।’

তিনি বলেন, ‘অনেক সময় সরকারি হাসপাতালে পর্যাপ্ত চিকিৎসাসেবা পাওয়া যায় না। একজন পুলিশ সদস্য এই হাসপাতালে চিকিৎসাসেবার পাশাপাশি ওষুধও পাবেন। এই হাসপাতালে একজন বিষেশজ্ঞ চিকিৎসক সার্বক্ষণিক থাকবেন। এখানে উন্নতমানের অপারেশন থিয়েটার ছাড়াও রোগ পরীক্ষা-নিরীক্ষার জন্য থাকবে ডায়গনস্টিক সেন্টার।’

ব্রেকিংনিউজ/এসআর/জেআই