ডেঙ্গু পরীক্ষার কিট আমদানিতে শুল্ক-কর মওকুফ

স্টাফ করেসপন্ডেন্ট
৬ আগস্ট ২০১৯, মঙ্গলবার
প্রকাশিত: ০১:২৯ আপডেট: ০৩:০৯

ডেঙ্গু পরীক্ষার কিট আমদানিতে শুল্ক-কর মওকুফ

জাতীয় রাজস্ব বোর্ড (এনবিআর) ডেঙ্গু শনাক্তকরণ কিট, ডেঙ্গু রিএজেন্ট, প্লাটিলেট ও প্লাজমা পরীক্ষার প্রয়োজনীয় রাসায়নিক আমদানিতে সব ধরনের আমদানি শুল্ক, মূল্য সংযোজন কর (মূসক), আগাম কর ও অগ্রিম কর মওকুফ ঘোষণা করেছে।

সারাদেশে ডেঙ্গু ছড়িয়ে পড়ার পর বিভিন্ন হাসপাতালে রোগটির শনাক্তকরণ উপকরণের সংকটের মধ্যে সোমবার এই সিদ্ধান্তের কথা জানায় এনবিআর।

সোমবার এনবিআর এই সংক্রান্ত প্রজ্ঞাপন জারি করেছে। আমদানিকারকেরা এই সুবিধা আগামী ৩১ অক্টোবর পর্যন্ত পাবেন।

এনবিআর শর্ত দিয়েছে, এসব পণ্য কত আমদানি করা হবে, তা ঔষুধ প্রশাসন অধিদপ্তর কর্তৃক অনুমোদিত হতে হবে। এ ছাড়া আমদানি করা পণ্যগুলো মানসম্মত কি না ঔষুধ প্রশাসন অধিদপ্তর নিয়মিত তদারকি করবে।

এদিকে সোমবার স্বাস্থ্য অধিদপ্তরের হেলথ ইমার্জেন্সি অপারেশনস সেন্টার ও কন্ট্রোল রুম থেকে জানানো হয়, রবিবার সকাল ৮টা থেকে সোমবার সকাল ৮টা পর্যন্ত ২৪ ঘণ্টায় দুই হাজার ৬৫ জন রোগী দেশের বিভিন্ন হাসপাতালে ভর্তি হয়েছেন।

এর আগের ২৪ ঘণ্টায় এ সংখ্যা ছিল ১,৮৭০। আর চলতি মাসের প্রথম পাঁচ দিনে হাসপাতালে ভর্তি হওয়া ডেঙ্গু রোগীর সংখ্যা গিয়ে ঠেকেছে ৯ হাজার ৬-এ।

সারাদেশে বিভিন্ন হাসপাতালে বর্তমানে ডেঙ্গু রোগী আছেন ৭ হাজার ৬৫৮ জন। ঢাকার ৩৮টি সরকারি ও বেসরকারি হাসপাতালে ভর্তি রোগীর সংখ্যা ৪ হাজার ৯৬২ জন। অন্যদিকে অন্যান্য বিভাগে মোট ভর্তি রোগীর সংখ্যা ২ হাজার ৬৯৬ জন।

সরকারি হিসাব অনুযায়ী, পুরো জুলাই মাসে সারাদেশে বিভিন্ন হাসপাতালে ১৫ হাজার ৬৫০ জন ডেঙ্গু রোগী ভর্তি হয়েছিলেন।

সরকারি হিসাবে সোমবার পর্যন্ত ১৮ জন ডেঙ্গু রোগে মারা গেছেন। গতকালও মৃতের সংখ্যা ১৮ বলে উল্লেখ করা হয়েছিল। যদিও শুধুমাত্র রবিবারই ডেঙ্গু জ্বরে আক্রান্ত কমপক্ষে পাঁচ জনের মৃত্যুর খবর বিভিন্ন হাসপাতাল সূত্রে নিশ্চিত হওয়া গেছে। বেসরকারি হিসাবে মৃতের সংখ্যা আরও বেশি।

ব্রেকিংনিউজ/এমজি