bnbd-ads
bnbd-ads

দা‌বি না মান‌লে অনশ‌নে যা‌বেন মাদরাসা শিক্ষকরা

স্টাফ ক‌রেসপ‌ন্ডেন্ট
৭ এপ্রিল ২০১৯, রবিবার
প্রকাশিত: ০৪:১১ আপডেট: ০৪:২১

দা‌বি না মান‌লে অনশ‌নে যা‌বেন মাদরাসা শিক্ষকরা

‌বেতন ভাতার দা‌বি‌তে পঞ্চম দি‌নের মতো অবস্থান কর‌ছে ইবতেদায়ী স্বতন্ত্র মাদরাসার শিক্ষকরা। রবিবারের (৭ এপ্রিল) ম‌ধ্যে তাদের দা‌বি না মানা হ‌লে সোমবার (৮ এপ্রিল) থে‌কে আমরণ অনশন করার হুম‌কি দি‌য়ে‌ছেন সমিতির সভাপতি কাজী ফয়জুর রহমান।

রবিবার (৭ এপ্রিল) জাতীয় প্রেসক্লাবের সামনে অবস্থান কর্মসূচি চলার সময় ব্রে‌কিংনিউজ‌কে তি‌নি এসব কথা ব‌লেন।

‌তি‌নি ব‌লেন, ‘অবস্থান কর্মসূচির পাঁচদিন চললেও এখন পর্যন্ত কোনো সরকারি পর্যায়ের কোনো কর্মকর্তা আমাদের আশ্বস্ত করেননি। আমরা যোগাযোগ করার চেষ্টা করেছি, কিন্তু তারা আমাদের জানিয়েছে আপনাদের বিষয়টি আমরা মন্ত্রী মহোদয়ের নিকট দৃষ্টি গোচর করার চেষ্টা করছি।’ 

অনশন কর্মসূচি ঘোষণা দিয়ে তিনি বলেন, ‘আজকে পর্যন্ত যদি আমাদের কোনো আশ্বাস না আসে তবে আমরা আগামীকাল থেকে অনশন ধর্মঘট করব। আর যদি সরকার থেকে কোন প্রকার সন্তোষজনক আশ্বাস প্রদান করা হয় তবে আজকে আমরা চলে যাব।’

এর আগে অবস্থান কর্মসূচি থেকে তারা জানান, ২০১৮ সালের ১৬ জানুয়ারি জাতীয় প্রেসক্লাবের সামনে ১৬ দিন শিক্ষকরা অবস্থান কর্মসূচি থেকে অনশন পালন করে। শিক্ষা সচিব প্রধানমন্ত্রীর নির্দেশে জাতীয় প্রেসক্লাবে উপস্থিত হয়ে শিক্ষকদের দাবি পূরণে আশ্বস্ত করেন, কিন্তু এখন পর্যন্ত সেটি বাস্তবায়ন না হওয়ায় শিক্ষকরা হতাশ। তাই অন‌তি‌বিল্ব স্বতন্ত্র ইবতেদায়ী মাদরাসাকে জাতীয়করণ করা হোক।

তারা আরও বলেন, ১৯৯৪ সালে একই পরিপত্রে রেজিস্ট্রার বেসরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয় ও স্বতন্ত্র ইবতেদায়ী মাদরাসা শিক্ষকদের বেতন ৫০০ টাকা নির্ধারণ করা হয়। পরবর্তীতে বিগত সরকারের সময়ে ধাপে ধাপে বেতন বৃদ্ধি করা হয়। ত‌বে ২০১৩ সালের ৯ জানুয়ারি বর্তমান মহাজোট সরকার ২৬ হাজার ১৯৩টি বেসরকারি প্রাইমারি স্কুল জাতীয়করণ করে। প্রাথমিক বিদ্যালয়ের শিক্ষকদের মতো সরকারের সকল কাজে অংশগ্রহণ করে ইবতেদায়ী মাদরাসার শিক্ষকরা। অথচ মাস শেষে প্রাথমিক বিদ্যালয়ের শিক্ষকরা ২০ থেকে ৩০ হাজার টাকা পর্যন্ত বেতন পায় কিন্তু ইবতেদায়ী মাদরাসার শিক্ষকরা তেমন কোনো বেতন পায় না। তবুও  প্রাথমিক বিদ্যালয়ের নেয় শিক্ষকতা চালিয়ে যাচ্ছে স্বতন্ত্র ইবতেদায়ী মাদরাসার শিক্ষকরা। ১৫১৯ টি মাদরানা শিক্ষকরা সর্বসাকুল্যে প্রধান শিক্ষক ২৫০০ টাকা, সহকারি শিক্ষক ২৩০০ টাকা ভাতা পায়। আর বাকি প্রায় ৮ হাজার ৫০০ টি মাদ্রাসার শিক্ষকগণ প্রায় ৩৪ বছর যাবত বেতন-ভাতা হতে বঞ্চিত।

অবস্থা‌ন কর্মসুূচি‌তে উপ‌স্থিত ছি‌লেন স‌মি‌তির মহাস‌চিব কা‌জী মোখ‌লেছুর রহমান, গাইবান্ধার সুন্দরগঞ্জ উপ‌জেলার সাধারণ সম্পাদক মো. তৌ‌হিদুল ইসলাম, মাহবুবুর রহমান, শিক্ষক মিজানুর রহমান, আলাউদ্দিনসহ বি‌ভিন্ন স্বতন্ত্র ইবতেদায়ী মাদ্রাসার শিক্ষকরা।

ব্রে‌কিংনিউজ/এএইচএস/জেআই