ফেরার পথেও ভোগান্তি, ট্রেনের শিডিউল বিপর্যয়

স্টাফ করেসপন্ডেন্ট
১৭ আগস্ট ২০১৯, শনিবার
প্রকাশিত: ০৯:৪৩ আপডেট: ১০:০২

ফেরার পথেও ভোগান্তি, ট্রেনের শিডিউল বিপর্যয়

শিডিউল বিপর্যয়ের চরমে পৌঁছেছিল এবারের ঈদযাত্রার ট্রেনের শিডিউল। এক ট্রেনের আশায় ১০-১৬ ঘণ্টা অপেক্ষা করতে হয়েছিল ঘরফেরা মানুষদের। অনেকের তো যাত্রাই বাতিল করতে বাধ্য হয়েছিল কর্তৃপক্ষ। ফলে চরম থেকে চরম দুর্ভোগে পড়েছিলেন মানুষগুলো। সেই ঈদযাত্রার ভোগান্তি ফিরতি পথে পোহাতে হচ্ছে তাদের।

ঈদের টানা ছুটির পর রাজধানীতে ফিরছে মানুষ। লঞ্চ, বাস ও ট্রেনের মানুষে উপচে পড়া ভীড় লক্ষ্য করা গেছে। বিশেষ করে ট্রেনের ছাদ, ইঞ্জিন, দুই বগির সংযোগস্থলে ছিল রাজধানীমুখী মানুষ। 

পূর্ব ও পশ্চিমাঞ্চল থেকে ছেড়ে আসা রাজধানীমুখী অধিকাংশ ট্রেনই সিডিউল বিপর্যয়ে পড়ছে। বিলম্বে আসা এবং বিলম্বে ছেড়ে যাওয়া ট্রেন যাত্রীদের দুর্ভোগ বাড়ছে। শনিবারও ফিরতি ট্রেন ৭ ঘণ্টা পর্যন্ত বিলম্বে চলাচল করেছে। 

শনিবার কমলাপুর স্টেশন ঘুরে দেখা গেছে, পশ্চিমাঞ্চল থেকে ছেড়ে আসা প্রতিটি ট্রেনই বিলম্বে চলাচল করে। এ ছাড়া পূর্বাঞ্চল থেকে ছেড়ে আসা ৫টি ট্রেন ৪০ মিনিট থেকে আড়াই ঘণ্টা বিলম্বে চলেছে। সুন্দরবন এক্সপ্রেস ট্রেনটি কমলাপুর থেকে সকাল ৬টা ২০ মিনিটে ছেড়ে যাওয়ার কথা থাকলেও তা নির্ধারিত সময়ের চেয়ে সাড়ে ৪ ঘণ্টা বিলম্বে কমলাপুরে আসে। সকাল ৬টায় ছেড়ে যাওয়ার কথা ধুমকেতু এক্সপ্রেস, কিন্তু ট্রেনটি এসেছে ৫ ঘণ্টা বিলম্বে। 
এ ছাড়া একতা, অগ্নিবীণা, সিল্কসিটি, এগারসিন্ধুর, রংপুর এক্সপ্রেস, বনলতা এক্সপ্রেস, দ্রুতযান এক্সপ্রেস দেড় ঘণ্টা থেকে ৭ ঘণ্টা পর্যন্ত বিলম্বে কমলাপুর স্টেশনে পৌঁছে। 

ঈদের আগে কর্তৃপক্ষ শিডিউল বিপর্যয়ের জন্য দুষেছিল টাঙ্গাইলে ট্রেনের বগি লাইনচ্যুত হওয়ার, তবে ঈদের পর তা ঘটেনি। ফলে রেল কর্তৃপক্ষও সুর পাল্টিয়েছে।

কমলাপুর রেলওয়ে স্টেশন ম্যানেজার আমিনুল হক জুয়েল বলেন, অনেক ট্রেন বিলম্বে কমলাপুর স্টেশনে আসছে। বিলম্বে আসা ট্রেনগুলো বিলম্বেই ছাড়তে হচ্ছে। এতে যাত্রীদের দুর্ভোগ বাড়ছে। তবে ঈদের আগে ও পরে ট্রেন বিলম্বে চলাচল করাটা স্বাভাবিক। প্রতিটি ট্রেনই অতিরিক্ত যাত্রী নিয়ে চলাচল করছে। ঈদ শেষে প্রতিটি ট্রেনেই উপচেপড়া ভিড় রয়েছে। বিশেষ করে পশ্চিমাঞ্চলে চলা প্রতিটি ট্রেনই বিলম্বে চলাচল করছে। ৪০ মিনিট থেকে ৬ ঘণ্টা পর্যন্ত বিলম্বে চলছে ট্রেন। 

তিনি বলেন, যাত্রী নিরাপত্তা নিশ্চিত করতে গিয়ে ট্রেন ধীরগতিতে চালাতে হচ্ছে। তাছাড়া ২/৩ মিনিট বিরতির স্থলে ১০/১২ মিনিট পর্যন্ত বিরতি দিতে হচ্ছে এক একটি স্টেশনে। 

ব্রেকিংনিউজ/ এসএ 

breakingnews.com.bd
সম্পাদক ও প্রকাশক : মো: মাইনুল ইসলাম
 শারাকা ম্যাক, ২ এইচ-প্রথম তলা, ৩/১-৩/২ বিজয় নগর, ঢাকা-১০০০
 টেলিফোন : ০২-৯৩৪৮৭৭৪-৫, ইমেইল : editor. breakingnews.com.bd@gmail.com
 নিউজরুম হটলাইন : ০১৬৭৮-০৪০২৩৮, ০২-৮৩৯১৫২৪
 নিউজরুম ইমেইল : bnbdcountry@gmail.com, bnbdnews.reporter@gmail.com
সম্পাদক ও প্রকাশক : মো: মাইনুল ইসলাম
 শারাকা ম্যাক, ২ এইচ-প্রথম তলা,
  ৩/১-৩/২ বিজয় নগর, ঢাকা-১০০০
 টেলিফোন : ০২-৯৩৪৮৭৭৪-৫,
 ইমেইল : editor. breakingnews.com.bd@gmail.com
 নিউজরুম হটলাইন : ০১৬৭৮-০৪০২৩৮, ০২-৮৩৯১৫২৪
 নিউজরুম ইমেইল : bnbdcountry@gmail.com, bnbdnews.reporter@gmail.com
© ২০১৯ সর্বস্বত্ব সংরক্ষিত | ব্রেকিংনিউজ.কম.বিডি