পাটুরিয়া ও আরিচায় অতিরিক্ত ভাড়া আদায়; যাত্রী দুর্ভোগ চরমে

শাহজাহান বিশ্বাস, মানিকগঞ্জ প্রতিনিধি
১৮ আগস্ট ২০১৯, রবিবার
প্রকাশিত: ০৮:৩০ আপডেট: ০৮:৩২

পাটুরিয়া ও আরিচায় অতিরিক্ত ভাড়া আদায়; যাত্রী দুর্ভোগ চরমে

ঈদের আমেজ শেষ হয়ে ছুটি হলেও যাত্রীদের নিকট থেকে আরিচা ও পাটুরিয়া ঘাটের পরিবহণ শ্রমিকদের বাড়তি বাস ভাড়া আদায় অব্যাহত রয়েছে। পরিবার পরিজন নিয়ে ঈদ করে এমনিতেই টাকা পয়সা শেষ, এরপর কর্মস্থলে ফিরতে গুণতে হচ্ছে বাড়তি ভাড়া।

ঈদের ছুটির পর এক সপ্তাহ ধরে ঢাকাগামী হাজার হাজার কর্মমুখী মানুষ তাদের পরিবার পরিজন নিয়ে ভিড় জমায় আরিচা বাসস্ট্যান্ড ও পাটুরিয়া ফেরি ঘাটে। রবিবারও (১৮ আগস্ট) আরিচা ও পাটুরিয়া ঘাটে যাত্রীদের উপচে পড়া ভিড় দেখা গেছে। যাত্রীর চাপ বাড়ার এ সুযোগে এক শ্রেণীর পরিবহণ শ্রমিকরা ঢাকাগামী যাত্রীদের কাছ থেকে দ্বিগুণ থেকে তিনগুণ ভাড়া আদায় করছে। অনেকে বাস না পেয়ে জীবনের ঝুঁকি নিয়ে ট্রাক, লেগুনা ও পিকআপভ্যানে গন্তব্যে পৌঁছাচ্ছে। 

আরিচা ও পাটুরিয়া ঘাট থেকে বিআরটিসি, যাত্রীসেবা, নবীন বরণ, যোগাযোগ, পদ্মা লাইন, নীলাচল ও সেলফি পরিবহণের বাস নিয়মিত যাত্রী পরিবহণ করে থাকে।  ঈদের পরে ঢাকামুখী যাত্রীর চাপ বাড়ায় বিআরটিসি বাসে  যাত্রীদের কাছ থেকে  ২৫০টাকা করে নিয়ে  হাতে ধরিয়ে দেয়া হয়েছে ১৬০ টাকার টিকিট। গাবতলি এবং গুলিস্থানে যাত্রী ছাড়া কোনও যাত্রী বিআরটিসি বাসে তুলছে না । বিপদে পড়ছে পথিমধ্যে নামার যাত্রীরা। মানিকগঞ্জ, ধামরাই, নয়ারহাট, ইসলামপুর, নবীনগর এবং সাভারের যাত্রীরা বাধ্য হয়ে বেশি ভাড়া দিয়ে যাত্রীসেবা, পদ্মা লাইন এবং নবীন বরণ পরিববনে যেতে বাধ্য হচ্ছে। এসব বাসের যাত্রীরা পথিমধ্যে যেখানেই নামুক না কেন তাদেরকে ঢাকার ভাড়া দিতে হচ্ছে। 

অন্যান্য সময়ে আরিচা থেকে গাবতলি পর্যন্ত  নবীন বরণ পরিবহন এবং যাত্রীসেবা ৫০/৬০টাকা হাড়ে ভাড়া আদায় করে থাকে। রবিবার ঘুরে দেখা গেছে ,এসব বাসচালকরা ১৫০/২৫০ টাকা পর্যন্ত আদায় করছে। অনেকেই বাস না পেয়ে ট্রাকে পিকাপে ১০০/১৫০ টাকা ভাড়া দিয়ে গন্তব্যে পৌছাচ্ছে। এছাড়া ঈদের ছুটির পর পর এসব বাসে ২শ থেকে ২শ ৫০টাকা এবং পদ্মা লাইন ও নীলাচল পরিবহনে ৩শ টাকা করে ভাড়া আদায় করেছে। এ বাড়তি ভাড়া আদায় এখনও অব্যাহত রয়েছে।

রাজধানী ঢাকার সঙ্গে সহজ যোগাযোগের অন্যতম মাধ্যম আরিচা ও পাটুরিয়া ঘাট। এ দু’টি ঘাট দিয়ে প্রতিদিন হাজার হাজার যাত্রী পার-পার হয়ে থাকে। ঈদসহ অন্যন্য উৎসবে এবং সরকারি ছুটির দিনে যাত্রীদের চাপ আরো বেড়ে যায়। এ সুযোগে পরিবহন শ্রমিকরা যাত্রীদের নিকট থেকে বাড়তি ভাড়া আদায় করে বলে অভিযোগ পাওয়া গেছে। ঈদুল আজহার ছুটি শেষে বাড়তি ভাড়া দিয়ে কর্মস্থলে ফিরতে গিয়ে চরম ক্ষোভ প্রকাশ করছেন যাত্রীরা। এ ব্যাপারে প্রশাসনের পক্ষ থেকে একাধিক বাস শ্রমিককে জরিমানা করেও বন্ধ করতে পারেনি অতিরিক্ত ভাড়া নেয়া।  আরিচা ও পাটুরিয়া ঘাটে বাসে অতিরিক্ত ভাড়া আদায় অব্যাহত রয়েছে। বাস ভাড়া বৃদ্ধিতে চরম বিড়ম্বনায় পড়েছে এখান দিয়ে যাতায়াতকারী যাত্রীরা। ভাড়া বৃদ্ধি রোধে প্রশাসনের নজরদারি আরও বাড়ানোর  দাবী জানান যাত্রীরা। তবে পরিবহন শ্রমিকরা বলছেন, বাস ভাড়া কিছুটা বৃদ্ধি করা হলেও যাত্রীদের যাতায়াতের সুবিধার্থে পর্যাপ্ত বাসের ব্যবস্থা রয়েছে। এছাড়া ঢাকার দিক থেকে কম যাত্রী এবং অনেক সময় খালি গাড়ি  নিয়ে ফিরতে হয়। এজন্য এসময় ভাড়া একটু বেশি নেয়া হয়। হাঠাৎ করে যাত্রীর চাপ বেড়ে যাওয়ায় এবং রাস্তায় যানজট হলে  পরিবহণ সংকট দেখা দেয়।  

ভুক্তাভোগী যাত্রীরা অভিযোগ করে বলেন, এভাবে ভাড়া বৃদ্ধির ফলে চরম হয়রানির শিকার হন তারা। ঈদ শেষে ফেরার পথে টাকা পয়সা সব শেষ হয়ে যায় তাই এ বাড়তি ভাড়া নেওয়াটা অমানবিক ও দুঃখজনক। প্রতিবছরই বাস মালিকরা এভাবে ভাড়া বাড়ায় আর আমরা যাত্রীরা তা দিতে বাধ্য হয়।  

ঢাকাগামী যাত্রী পারভেজ মোল্লা, মিজানুর রহমান বলেন, ‘পাবনার সুজানগর থেকে বেলা ১২ টায় আরিচা ঘাটে আসি। বাস সংকটের কারণে দীর্ঘ দুই ঘন্টা অপেক্ষার পরও বেলা ২ টায়ও বাসে উঠতে পারছি না। যাওবা বাস পাওয়া যায় তাও আবার ভাড়া বেশি। বাসে বসে ৬০ টাকার ভাড়া ২০০ টাকা করে এবং বাসে দাঁড়িয়ে ১০০ টাকা করে আদায় করছে।’

নবীনগর থেকে আসা বাস চালক আব্দূল হক জানান, অন্যন্য রুটের বাস এ রুটে আসলেই আরিচা এবং পাটুরিয়া ঘাটে পুলিশকে ১০০ টাকা করে এবং বাস মালিক সমিতির লোকজনকে ৩০০/৫০০ টাকা করে চাঁদা দিতে হচ্ছে।

এ ব্যাপারে শিবালয় উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা ফিরোজ মাহমুদ বলেন, ‘অতিরিক্ত ভাড়া নেয়ার ব্যাপারে প্রশাসন যথেষ্ট সচেতন রয়েছে। এ পর্যন্ত অনেকগুলো বাসকে জরিমানা করা হয়েছে।  চাদাঁবাজির ব্যাপারে আমি কিছুই জানিনা। তবে এ ব্যাপারে আমি খোঁজ-খবর নিয়ে দেখছি। চাঁদাবাজির সাথে জড়িতদের বিরুদ্বে অবশ্যই আইনানুযায়ী ব্যবস্থা নেয়া হবে।’

ব্রেকিংনিউজ/জেআই

bnbd-ads
breakingnews.com.bd
সম্পাদক ও প্রকাশক : মো: মাইনুল ইসলাম
 শারাকা ম্যাক, ২ এইচ-প্রথম তলা, ৩/১-৩/২ বিজয় নগর, ঢাকা-১০০০
 টেলিফোন : ০২-৯৩৪৮৭৭৪-৫, ইমেইল : editor. breakingnews.com.bd@gmail.com
 নিউজরুম হটলাইন : ০১৬৭৮-০৪০২৩৮, ০২-৮৩৯১৫২৪
 নিউজরুম ইমেইল : bnbdcountry@gmail.com, bnbdnews.reporter@gmail.com
সম্পাদক ও প্রকাশক : মো: মাইনুল ইসলাম
 শারাকা ম্যাক, ২ এইচ-প্রথম তলা,
  ৩/১-৩/২ বিজয় নগর, ঢাকা-১০০০
 টেলিফোন : ০২-৯৩৪৮৭৭৪-৫,
 ইমেইল : editor. breakingnews.com.bd@gmail.com
 নিউজরুম হটলাইন : ০১৬৭৮-০৪০২৩৮, ০২-৮৩৯১৫২৪
 নিউজরুম ইমেইল : bnbdcountry@gmail.com, bnbdnews.reporter@gmail.com
© ২০১৯ সর্বস্বত্ব সংরক্ষিত | ব্রেকিংনিউজ.কম.বিডি