প্রমাণ আছে, একাধিক মেয়ের সঙ্গে সিদ্দিকুরের সম্পর্ক রয়েছে

বিনোদন ডেস্ক
১৭ অক্টোবর ২০১৯, বৃহস্পতিবার
প্রকাশিত: ০১:৪৬

প্রমাণ আছে, একাধিক মেয়ের সঙ্গে সিদ্দিকুরের সম্পর্ক রয়েছে

২০১২ সালে অভিনেতা সিদ্দিকুর রহমানের সঙ্গে বিয়ে হয় বাংলাদেশি বংশোদ্ভূত স্পেনের নাগরিক মডেল মারিয়া মিমের। গত অর্ধযুগেরও বেশি সময় ধরে এই দম্পতি ভালোই ঘর-সংসার করছিল। কিন্তু হঠাৎই ছন্দপতন। গুঞ্জন উঠে ছাড়াছাড়ি হচ্ছে যাচ্ছে সিদ্দিক-মিমের। কারণ হিসেবে সামনে এসেছে, মিমকে মিডিয়ায় কাজ করতে দিতে সিদ্দিকের আপত্তি।  

এদিকে, সিদ্দিকের বিষয়ে পাল্টা অভিযোগ এনে মারিয়া মিম বলেছেন, ‘শুধু মিডিয়ায় কাজ করতে না দেয়ার কারণেই নয়, সিদ্দিকের সঙ্গে সংসার না করার শত শত কারণ রয়েছে। সিদ্দিক যা করেছে তা কাউকে বলা যায় না। সেই কথাগুলো বললে সিদ্দিক গ্রেফতার হবেন।’

মিমের অভিযোগ, ‘বিয়ের পর সিদ্দিক আমাকে সব কাজ ছেড়ে দিতে বলে। আমি তার সব কথা মেনে নিতাম- যদি সে আমাকে মানসিকভাবে শান্তি দিতো এবং ভালোবাসতো। আমি এতদিন সবকিছু সহ্য করে গেছি। এখন বুঝতে পারছি- জোর করে কিছু হয় না। অন্তত সংসার, সম্পর্ক, ভালোবাসা।’

মারিয়া মিম বলেন, ‘আমার কাছে প্রমাণ আছে একাধিক মেয়ের সঙ্গে ওর সম্পর্ক রয়েছে। মাঝে মধ্যে প্রায় সারারাত বাইরে কাটিয়ে বাসায় ফিরতো। বাসায় ফিরে ছেলের ঘুম ভাঙাতো। আমাকে সে মোটেও সময় দিতো না। বাইরেই যখন তার এতো কাজ তাহলে তো স্ত্রীর কোনো দরকার নেই।’

মিম আরও বলেন, ‘আমাকে মারধর করতো সিদ্দিক। আমার মোবাইল ফোন কেড়ে রেখে দিতো। অনেক দিন আমি মানিয়ে নিয়ে তার সঙ্গে থেকেছি। আমি আর ওর সাথে থাকতে চাই না। ওর সঙ্গে মতে মিলছে না। সেও আমাকে চায় না, চায় ওর বাচ্চার মাকে।’

এ বিষয়ে সিদ্দিক বলেন, ‘আমারও বলার অনেক কিছু আছে। যেহেতু বর্তমানেও মিম আমার স্ত্রী। তাই বেশি কিছু বলতে চাই না। সবাই জানে আমি কেমন? হুট করে বিয়ের ৮ বছর পর ওর মাথায় মডেলিং করার ভুত চাপলো কেন বুঝছি না। আমি চাই নিজের ভুল বুঝে সে ফিরে আসুক।’

ব্রেকিংনিউজ/অমৃ