bnbd-ads
bnbd-ads

সাগরপৃষ্ঠের উচ্চতা ধারণার দ্বিগুণ বৃদ্ধির শঙ্কা

পরিবেশ-পর্যটন ডেস্ক
২১ মে ২০১৯, মঙ্গলবার
প্রকাশিত: ০৫:০১

সাগরপৃষ্ঠের উচ্চতা ধারণার দ্বিগুণ বৃদ্ধির শঙ্কা

গ্রিনল্যান্ড ও অ্যান্টার্কটিকায় বরফ গলার পরিমাণ আগের চেয়ে বেড়ে যাওয়ায় সমুদ্রপৃষ্ঠের উচ্চতা আগের ধারণার চেয়ে দ্বিগুণ হতে পারে বলে নতুন এক গবেষণায় আশঙ্কা প্রকাশ করা হয়েছে। এর আগে এক গবেষণায় এই শতকের শেষ নাগাদ সমুদ্রপৃষ্ঠের উচ্চতা কতটুকু বাড়বে তার একটা ধারণা দেয়া হয়েছিল।

যুক্তরাষ্ট্রের সুখ্যাত বিজ্ঞান সাময়িকী প্রসিডিংস অব দ্য ন্যাশনাল অ্যাকাডেমি অব সায়েন্সের জার্নালে সাগরপৃষ্ঠের উপর তুষারস্রোতের প্রভাব নিয়ে প্রকাশিত গবেষণার বরাত দিয়ে বিবিসির প্রতিবেদনে এ তথ্য জানানো হয়েছে। 

বিজ্ঞানীদের এতদিন ধারণা ছিল, ২১০০ সাল নাগাদ সমুদ্রপৃষ্ঠের উচ্চতা সর্বোচ্চ এক মিটার বাড়তে পারে। বিশেষজ্ঞ মতামতের ভিত্তিতে নতুন গবেষণা বলছে, সমুদ্রপৃষ্ঠের উচ্চতা এর দ্বিগুণের বেশি হতে পারে। এর ভয়ঙ্কর পরিণামে লাখ লাখ মানুষ আশ্রয়হীন হয়ে পড়তে পারে।

এদিকে জাতিসংঘের সংস্থা ইন্টারগভার্নমেন্টাল প্যানেল অন ক্লাইমেট চেইঞ্জের (আইপিসিসি) ২০১৩ সালের পঞ্চম মূল্যায়ন প্রতিবেদনে বলা হয়েছিল, ক্রমবর্ধমান উষ্ণতার কারণে ২১০০ সালের মধ্যে বিশ্বে পানির স্তর ৫২ থেকে ৯৮ সেন্টিমিটার পর্যন্ত বাড়তে পারে।

অনেক বিশেষজ্ঞ এই অনুমানকে রক্ষণশীল হিসেবে দেখে আসছেন। বিজ্ঞানীরাও মনে করছেন, সাগরপৃষ্ঠের উপর ব্যাপক তুষারস্রোতের প্রভাব নিয়ে পূর্বাভাষের জন্য যেসব মডেল ব্যবহার করা হয় সেগুলো বরফগলার বর্তমান অনিশ্চয়তাগুলোকে হিসাবে ধরে না।

গ্রিনল্যান্ড এবং পশ্চিম ও পূর্ব অ্যান্টার্কটিকায় কী ঘটছে, তা নিয়ে স্পষ্ট ধারণা পাওয়ার চেষ্টা করছেন গবেষকেরা। তাদের মত হলো- বৈশ্বিক উষ্ণায়নের বর্তমান হার চলমান থাকলে ২১০০ সাল নাগাদ সমুদ্রপৃষ্ঠের উচ্চতা ৬২ থেকে ২৩৮ সেন্টিমিটার পর্যন্ত বাড়তে পারে। এতে বৈশ্বিক উষ্ণতা বাড়বে পাঁচ ডিগ্রি সেলসিয়াস পর্যন্ত।

গবেষণা দলের নেতা ব্রিস্টল বিশ্ববিদ্যালয়ের অধ্যাপক জোনাথন বামবার বলেন, ২১০০ সাল পর্যন্ত সাগরপৃষ্ঠের উচ্চতা ৭ থেকে ১৭৮ সেন্টিমিটারের মতো বাড়তে পারে বলে আগে ধারণা করা হতো।  কিন্তু সাগরের উষ্ণতা বাড়ায় হিমবাহ ও বরফের স্তরের বাইরের চূড়া গলে যেতে থাকায় এটা দুই মিটার পর্যন্ত বাড়তে পারে।

ব্রেকিংনিউজ/এসএসআর

bnbd-ads
MA-in-English
bnbd-ads