সংবাদ শিরোনামঃ
bnbd-ads
bnbd-ads

রক্তশূন্যতা কি, কেন হয়

স্বাস্থ্য ডেস্ক
১১ এপ্রিল ২০১৯, বৃহস্পতিবার
প্রকাশিত: ০৯:২১ আপডেট: ০৯:২৬

রক্তশূন্যতা কি, কেন হয়

শরীরে রক্তের মধ্যে লোহিতরক্ত কণিকার পরিমাণ যতটা থাকা দরকার, তার চেয় কমে গেলে তাকে রক্তাল্পতা বলে। চোখের নীচে অথবা নখের ডগা, জিভ, ইত্যাদির রং ফ্যাকাসে হয়ে গেলে রক্তাল্পতা হয়েছে বলে বোঝা যায় । 

পৃথিবীতে চার ভাগের তিন ভাগ পানি আর এক ভাগ মাটি। অবাক ব্যাপার হল, মানুষের দেহের পানি আর পানিবিহীন কোষের অনুপাতও প্রায় একই। ৭০ কেজি ওজনের মানবদেহে ৪২ লিটার হল তরল পদার্থ আর এর ৫ লিটার হল রক্ত। রক্তে থাকে তিন ধরনের রক্তকোষ। 

এর মধ্যে লোহিত রক্ত কণিকায় থাকে এক ধরনের রঞ্জক, যার নাম হিমোগ্লোবিন। এই হিমোগ্লোবিন একটি অতি প্রয়োজনীয় উপাদান যা দেহের সব জায়গায় অক্সিজেন সরবরাহ করে। রক্তে এই রঞ্জকের পরিমাণ নির্দিষ্ট মাত্রার চেয়ে কমে গেলে রক্তাল্পতা বা রক্তশূন্যতা হয়, যাকে ডাক্তারি ভাষায় বলে এনিমিয়া। শরীরে রক্তাল্পতা বা এনিমিয়া হবার অনেক কারণ রয়েছে। আমাদের দেশে এর অন্যতম কারণ হল পুষ্টিজনিত আর ক্রিমিজনিত।

কেন হয় রক্তশূন্যতা?

রক্তস্বল্পতা রোগ নয়, রোগের উপসর্গ। নানা কারণে রক্তস্বল্পতা হতে পারে। রক্তের হিমোগ্লোবিন তৈরির অন্যতম প্রধান কাঁচামাল হলো আয়রন। কোনো কারণে শরীরে আয়রনের উপস্থিতি কমে গেলে রক্তস্বল্পতা হয়। একে বলে আয়রনের ঘাটতিজনিত রক্তশূন্যতা। 

এ ছাড়া ভিটামিন বি ও ফলিক অ্যাসিডের অভাব, দীর্ঘমেয়াদি বিশেষ কিছু রোগ যেমন: দীর্ঘমেয়াদি কিডনি সমস্যা, যক্ষ্মা, রক্তের ক্যানসার, থ্যালাসেমিয়া, থাইরয়েড হরমোনের সমস্যা, রক্ত উৎপাদনকারীর মজ্জার সমস্যা, রক্তের লোহিত কণিকা নিজে নিজে ভেঙে যাওয়া, রক্তক্ষরণ ইত্যাদি কারণে রক্তস্বল্পতা হয়ে থাকে।

নানা রকম রক্তস্বল্পতার ভেতর আয়রনের ঘাটতিজনিত রক্তস্বল্পতার হারই সবচেয়ে বেশি। নারীদের মধ্যে এর হার পুরুষের তুলনায় বেশি। বাংলাদেশে নারীদের গর্ভাবস্থায় আয়রনের ঘাটতিজনিত রক্তস্বল্পতার পরিমাণ সবচেয়ে বেশি। এই রক্তস্বল্পতার কারণে বেড়ে যায় মাতৃমৃত্যুর হার। শিশুদের মধ্যেও এর হার যথেষ্ট বেশি।

উপসর্গ:

১.শরীর ও চেহারা ফ্যাকাশে হয়ে যাওয়া।

২.বুক ধড়ফড় করা।

৩. দুর্বলতা ও সামান্য পরিশ্রমে হাঁপিয়ে যাওয়া এবং ব্যায়ামের পর শ্বাসকষ্ট হওয়া।

৪. কানে ঝিঁঝিঁ শব্দ শোনা।

৫.খাবারে অরুচি ও ক্ষুধামান্দ্য।

৬.নখ ভঙ্গুর হওয়া বা নখের আকৃতি চামচের মতো হওয়া।

৭. কাজকর্ম-পড়ালেখায় অমনোযোগী হওয়া।

ব্রেকিংনিউজ/এনকে