​কাশ্মির ইস্যুতে ভারতের পাশে দখলদার ইসরায়েল

ভারত-পাকিস্তান ডেস্ক
৭ সেপ্টেম্বর ২০১৯, শনিবার
প্রকাশিত: ১২:২৭ আপডেট: ০২:০৭

​কাশ্মির ইস্যুতে ভারতের পাশে দখলদার ইসরায়েল

ভারত-পাকিস্তান ডেস্ক
একতরফা ও বিতর্কিত ভাবে জম্মু-কাশ্মিরের স্বায়ত্তশাসনসহ বিশেষ সাংবিধানিক অধিকার বাতিল করে দুই ভাগ করে গোটা বিশ্ববাসী থেকে কাশ্মিরকে বিচ্ছিন্ন করে রেখেছে হিন্দ্যুতবাদী দল বিজেপি শাসিত কেন্দ্রীয় সরকার। এই ইস্যুতে কোনঠাসা ভারত সরকার। আন্তর্জাতিকভাবে চলছে সমালোচনা।

অনেকটা ফিলিস্তিনিদের ওপর দখলদার ইহুদিবাদী বন্ধুরাষ্ট্র ইসরায়েলের পথ বেছে নিয়েছে ভারত। সেই প্রতিদান দিলো দখলদার বন্ধুরাষ্ট্রটি। জম্মু-কাশ্মির ইস্যুতে নয়াদিল্লির সিদ্ধান্তকে পুরোপুরি সমর্থন জানিয়ে পাশে থাকার অঙ্গীকার জানিয়েছে ইসরায়েল।

নয়াদিল্লিতে নিযুক্ত ইসরায়েলের রাষ্ট্রদূত রন মালকা বলেন, জম্মু-কাশ্মির নিয়ে যে সিদ্ধান্ত নেওয়া হয়েছে, তা ভারতীয় সীমান্তের ভেতরেই নেওয়া হয়েছে। আমরা জানি যে, বিশ্বের বৃহত্তম গণতান্ত্রিক দেশ ভারত। তারা ব্যক্তি স্বাধীনতা, ব্যক্তি অধিকার এবং আইনকে সম্মান করে।

এই ইস্যুতে জোরালে ভাবে সোচ্চার পাকিস্তান। চীন, তুরস্ক, মালয়েশিয়াসহ বিশ্বের অনেক দেশই পাকিস্তানের পক্ষে অবস্থান নেয়। জাতিসংঘের নিরাপত্তা পরিষদে রুদ্ধদ্বার বৈঠকে চীন প্রকাশ্যেই এই সিদ্ধান্তের বিরোধিতা করেছে। তবে পশ্চিমাদের কিছু দেশ দুই দেশের মধ্যে নিরপেক্ষ অবস্থা নেয়েছে। ইসরায়েলই এমন সিদ্ধান্ত জানালো যা কাশ্মির ইস্যুতে পুরোপুরি ভাবে ভারতকে সমর্থন দিল।

ভারতের দ্বিতীয় বৃহত্তম অস্ত্র সরবরাহকারী দেশটি কৌশলগত সম্পর্কের পাশাপাশি কৃষি এবং পানি সঙ্কটের সমাধানে ভারতের মতো মূল্যবান বন্ধুকে ইসরায়েল সহায়তা করতে চায় বলে জানিয়েছেন দেশটির রাষ্ট্রদূত। তিনি জানান, কৃষকদের আয় দ্বিগুণ করা এবং ভারতের পানি-সমস্যার সমাধানে সে দেশের প্রযুক্তি এবং অভিজ্ঞতাকে ভাগ করে নিতে উদ্যোগী ইসরায়েল।

ইতোমধ্যেই প্রায় দেড় লাখ ভারতীয় কৃষককে প্রশিক্ষণ দেওয়ার কাজ শুরু করেছে ইসরায়েল। এবার ৫০ টি গ্রামকে চিহ্নিত করে পানি এবং কৃষিক্ষেত্রে নিজেদের প্রযুক্তি ভাগ করে নেওয়া হবে বলে জানিয়েছেন রন মালকা।

তিনি বলেন, ভারত অবশ্যই আমাদের অভিজ্ঞতা থেকে লাভবান হবে। পানির ব্যবহার এবং সংরক্ষণের প্রশ্নে প্রাথমিকভাবে যে ভুলগুলো আমরা করেছি, সেগুলির মধ্যে দিয়ে তাদের যেতে হবে না।

ব্রেকিংনিউজ/ এসএ