বরিস জনসনের ‘নির্বাচন প্রস্তাব’ নাকচ

আন্তর্জাতিক ডেস্ক
১০ সেপ্টেম্বর ২০১৯, মঙ্গলবার
প্রকাশিত: ০২:২৪ আপডেট: ০২:৪৭

বরিস জনসনের ‘নির্বাচন প্রস্তাব’ নাকচ

ব্রিটিশ প্রধানমন্ত্রী বরিস জনসন এবার পালার্মেন্টে আগাম নির্বাচনের প্রস্তাব দিলেও এমপিরা তা নাকচ করে দিয়েছে। এরই মধ্যে আজ থেকে ৫ সপ্তাহের জন্য স্থগিত হচ্ছে ব্রিটিশ পার্লামেন্ট।

পার্লামেন্টে আনা জনসনের আগাম নির্বাচনের প্রস্তাবে ২৯৩ জন এমপি পক্ষে ভোট দেয়। কিন্তু তা প্রয়োজনীয় ভোটের সংখ্যার তুলনায় তা অনেক কম।

বিরোধী এমপিরা এর আগে নিশ্চিত করে যে, ১৫ অক্টোবর আগাম নির্বাচন অনুষ্ঠানের জন্য আনা প্রস্তাবে সমর্থন দেবেন না তারা। বরং তারা ‘চুক্তিহীন ব্রেক্সিট’ বন্ধে একটি আইন পাসের ওপর জোর দিচ্ছে। আর তাদের দাবি অবজ্ঞা করলে ব্রিটিশ প্রধানমন্ত্রীর বিরুদ্ধে আইনি ব্যবস্থা নেয়ারও হুঁশিয়ারি দেন এমপিরা।

যুক্তরাজ্যের বর্তমান আইন অনুযায়ী, ব্রাসেলসের সঙ্গে চুক্তি হোক আর না হোক, ৩১ অক্টোবরের মধ্যে ইউরোপীয় ইউনিয়ন ত্যাগ করতে হবে ব্রিটেনকে। কিন্তু সোমবার রাজকীয় সম্মতি পাওয়া নতুন আইন অনুযায়ী, ১৯ অক্টোবরের মধ্যে এমপিরা চুক্তিসহ অথবা চুক্তিহীন ব্রেক্সিটে সম্মতি না দিলে প্রধানমন্ত্রীকে ২০২০ সালের ৩১ জানুয়ারি ব্রেক্সিট পেছানোর জন্য সময় চাইতে হবে।

এদিকে বরিস জনসন বলেন, পার্লামেন্ট বন্ধ থাকার সময়টিকে ইউরোপীয় ইউনিয়নের সঙ্গে চুক্তিতে পৌঁছানোর কাজে ব্যবহার করবে সরকার। একই সঙ্গে চুক্তি ছাড়া ইউরোপীয় ইউনিয়ন ত্যাগের বিষয়েও প্রস্তুতি নেয়া হবে।

তিনি বলেন, এই পার্লামেন্ট আমার হাত বেঁধে দেয়ার জন্য যত চেষ্টাই করুক না কেন, জাতির স্বার্থে আমি একটি চুক্তিতে পৌঁছানোর সর্বোচ্চ চেষ্টা করব। এই সরকার ব্রেক্সিট কার্যকরে আর বিলম্ব করতে চায় না।

ব্রেকিংনিউজ/এসএসআর