সৌদি তেল স্থাপনায় হামলা, আমেরিকার নতুন ঘোষণা

আন্তর্জাতিক ডেস্ক
১৬ সেপ্টেম্বর ২০১৯, সোমবার
প্রকাশিত: ০৭:৪৯

সৌদি তেল স্থাপনায় হামলা, আমেরিকার নতুন ঘোষণা

বিশ্ববাজারে তেলের দাম স্থিতিশীল রাখতে নিজের ‘কৌশলগত জ্বালানী ভাণ্ডার’ ব্যবহার করতে প্রস্তুত রয়েছে বলে জানিয়েছে মার্কিন সরকার। সৌদি আরবের সবচেয়ে বড় তেল শোধনাগারে ড্রোন হামলার জের ধরে বিশ্ববাজারে তেলের দাম বেড়ে যাওয়ার আশঙ্কা দেখা দেওয়ায় এ ঘোষণা দিল ওয়াশিংটন।

মার্কিন প্রেসিডেন্ট ডোনাল্ড ট্রাম্পের উপদেষ্টা কেলিয়ান কোনওয়ে ফক্স নিউজকে দেয়া এক সাক্ষাৎকারে বলেন, সৌদি আরবের তেল স্থাপনায় হামলার পর বিশ্ববাজারে স্থিতিশীলতা ধরে রাখার প্রয়োজনে নিজের ‘কৌশলগত জ্বালানী ভাণ্ডার’ ব্যবহার করতে প্রস্তুত রয়েছে মার্কিন জ্বালানী মন্ত্রণালয়।

গত শনিবার (১৪ সেপ্টেম্বর) সকালে ইয়েমেনের সেনাবাহিনী ও গণ কমিটি দায় স্বীকার করেছে সৌদি আরবের দু’টি তেল স্থাপনায় তারা হামলা চালিয়েছে। 

 ইয়েমেনের সেনাবাহিনী ও গণ কমিটি বলছে, সৌদি আরবের জাতীয় তেল কোম্পানি আরামকো পরিচালিত ‘বাকিক’ ও ‘খারিস’ তেল শোধনাগারে ১০টি পাইলটবিহীন বিমান বা ড্রোনের সাহায্যে এ হামলা চালানো হয়েছে।

এ ঘটনায় তেল স্থাপনা দু’টির মারাত্মক ক্ষতি হয় এবং সৌদি তেলমন্ত্রী স্বীকার করেন যে, ওই হামলার কারণে সৌদি আরবের তেল উৎপাদন ক্ষমতা অর্ধেকে নেমে এসেছে। বিশ্বের অন্যতম বড় তেল রফতানিকারক দেশের উৎপাদন কমে যাওয়ায় বিশ্ববাজারে তেলের ঘাটতি এবং এর জের ধরে তেলের দাম বেড়ে যাওয়ার আশঙ্কা দেখা দিয়েছে।

এদিকে, ডোনাল্ড ট্রাম্পের উপদেষ্টা কেলিয়ান কোনওয়ে ফক্স নিউজকে দেয়া সাক্ষাৎকারে আরও বলেন, নিউ ইয়র্কে জাতিসংঘ সাধারণ পরিষদের বার্ষিক অধিবেশনে ট্রাম্পের সঙ্গে ইরানের প্রেসিডেন্ট হাসান রুহানির সাক্ষাতের সম্ভাবনা উড়িয়ে দেয়া যাচ্ছে না। তিনি এমন সময় এ দাবি করলেন যখন ইরান এখন পর্যন্ত বহুবার সাফ জানিয়ে দিয়েছে, আমেরিকার সঙ্গে কোনো ধনের আলোচনায় বসবে না তেহরান।

ব্রেকিংনিউজ/এসএসআর

bnbd-ads