সংবাদ শিরোনামঃ
bnbd-ads
bnbd-ads

নতুন ‘শাটডাউন’ এড়ালো আমেরিকা

আন্তর্জাতিক ডেস্ক
১২ ফেব্রুয়ারি ২০১৯, মঙ্গলবার
প্রকাশিত: ১১:৫৫ আপডেট: ১১:৫৬

নতুন ‘শাটডাউন’ এড়ালো আমেরিকা

যুক্তরাষ্ট্রে নতুন করে আরো একটি অচলাবস্থা এড়িয়ে যেতে ডেমোক্র্যাট এবং রিপাবলিকানরা একটি চুক্তিতে পৌঁছেছেন। আইনপ্রণেতারা জানিয়েছেন, ওয়াশিংটনে একটি রুদ্ধদ্বার বৈঠকে সরকারের আরেকটি অচলাবস্থা এড়াতে সীমান্ত নিরাপত্তায় তহবিলের বিষয়ে একটি চুক্তি চুক্তি হয়েছে।

ব্রিটিশ সংবাদমাধ্যম বিবিসি’র এক প্রতিবেদন থেকে এ তথ্য জানা যায়। প্রতিবেদনটিতে বলা হয়, সোমবার (১১ ফেব্রুয়ারি) রাতে ডেমোক্র্যাট ও রিপাবলিকানদের এক বৈঠকে চুক্তিটি হয়েছে। তবে চুক্তিতে প্রেসিডেন্ট ডোনাল্ড ট্রাম্পের ৫.৭ বিলিয়ন ডলারের বিষয়টি অন্তর্ভুক্ত নেই। এই চুক্তির মাধ্যমে ১৫ ফেব্রুয়ারির পর মার্কিন সরকারে নতুন করে অচলাবস্থায় পড়ার সংকট আপাতত কাটিয়ে উঠলো।

রিপাবলিকান সিনেটর রিচার্ড শেলবি গণমাধ্যমকে বলেছেন, আমরা একটি সমঝোতায় পৌঁছেছি।

তবে চুক্তির বিষয়ে বিস্তারিত কিছু জানানো হয়নি, এতে আদৌ কি ট্রাম্প তার মেক্সিকো সীমানে দেয়াল নির্মাণের জন্য অর্থ পাচ্ছে কিনা তাতে স্পষ্ট কিছু বলা হয় নি।

শুরু থেকেই মেক্সিকো সীমান্তে দেয়াল নির্মাণের জন্য অর্থ বরাদ্দ দাবি করে আসছেন ট্রাম্প। কিন্তু মার্কিন কংগ্রেসের প্রতিনিধি পরিষদ নিয়ন্ত্রণকারী ডেমোক্রেট সদস্যরা ট্রাম্পের প্রস্তাবিত ৫৭০ কোটি ডলার অনুমোদন দেয়ার বিষয়টি প্রত্যাখ্যান করে আসছে।

অভিবাসী আটকের বিষয়ে ডেমোক্রেটরা চায় মার্কিন ইমিগ্রেশন অ্যান্ড কাস্টমস এনফোর্সমেন্টের (আইসিই) ডিটেনশন সেন্টারগুলোতে যে পরিমাণ বিছানা আছে তা কমানো হোক এবং ভিসার মেয়াদ শেষের পরও যারা অবস্থান করছে তাদের বদলে যেসব অভিবাসীর বিরুদ্ধে অপরাধের রেকর্ড আছে তাদের আটক করা হোক। কিন্তু এই প্রস্তাবে ট্রাম্পের সম্মতি ছিল না।

টেক্সাসের এল পাসোতে সমর্থকদের উদ্দেশে ট্রাম্প বলেন, চুক্তি পড়ার এতো সময় তার কাছে নেই। তবে তিনি জোর দিয়ে বলেছেন, সহিংস অপরাধীদের গণমুক্তির বিষয়ে কোন চুক্তিতে তিনি স্বাক্ষর করবেন না।

মার্কিন সরকারের ফেডারেল এজেন্সিগুলো চালিয়ে নেয়ার জন্য শুক্রবারের মধ্যে এই বিলে অনুমোদন প্রয়োজন। গত মাসে হওয়া তিন সপ্তাহের চুক্তির সময়সীমা শুক্রবারই শেষ হয়ে যাবে। এর আগে একটানা ৩৫ দিন অচলাবস্থা কাটাতে হয়েছে ট্রাম্প সরকারকে। যুক্তরাষ্ট্রের ইতিহাসে এটাই ছিল সর্বোচ্চ অচলাবস্থা। 

ব্রেকিংনিউজ/এনকে

bnbd-ads
bnbd-ads