যশোরে শিশু ইমরান হত্যা মামলায় ২ জনের মৃত্যুদণ্ডাদেশ

কাজী আশরাফুল আজাদ, যশোর প্রতিনিধি
৩ জুলাই ২০১৯, বুধবার
প্রকাশিত: ০৭:১৯ আপডেট: ০৭:২০

যশোরে শিশু ইমরান হত্যা মামলায় ২ জনের মৃত্যুদণ্ডাদেশ
ফাইল ছবি

যশোর সদর উপজেলার ঘোড়াগাছা গ্রামের শিশু ইমরান হত্যা মামলায় সৎ পিতাসহ দুইজনকে মৃত্যুদণ্ডের আদেশ দিয়েছেন যশোরের স্পেশাল জজ আদালত। 

বুধবার (৩ জুলাই) দুপুর ১২টার দিকে বিচারক মোহাম্মদ ফারুক হোসেন এ রায় দেন। একইসাথে এ মামলার অপর দুই আসামিকে বেকসুর খালাস দিয়েছেন বিচারক। 

দণ্ডিতরা হলো- ঘোড়াগাছা গ্রামের আন্দাউল্লাহ আজিজের ছেলে সবেদুল ও আব্দুল মজিদের ছেলে আব্দুল হাকিম। খালাসাপ্রাপ্তরা হলেন- একই গ্রামের দাউদ মোড়লের ছেলে ইদ্রিস আলী ও খোড়া কাশেমের ছেলে ইকবাল হোসেন।

স্পেশাল জজ আদালতের পিপি এসএম বদরুজ্জামান পলাশ জানিয়েছেন, ২০০১ সালের ২৪ এপ্রিল খুন হয় শিশু ইমরান (১২)। তার বাবার সাথে মা কোহিনূর বেগমের বিবাহ বিচ্ছেদের পর আসামি সবদুলকে পুনরায় বিয়ে করে তার মা। বিয়ের পর থেকে প্রথম ঘরের সন্তান ইমরানকে কোহিনূর বেগমের তার দ্বিতীয় স্বামী সবদুলের প্রায় ঝগড়া বিবাদ হতো। ঝগড়ার সময় সবদুল একাধিকবার ইমরানকে হত্যার করার হুমকি দেয়। কোহিনূর বেগম সন্তানের নিরাপত্তার কথা চিন্তা করে সবদুলের সঙ্গে বিবাহ-বিচ্ছেদ ঘটায়। এতে ক্ষিপ্ত হয় সবদুল। 

বিচ্ছেদের প্রায় ৭ মাস পর ২০০১ সালের ২৪ এপ্রিল বিকেলে ইমরান খেলতে বের হয়ে আর বাড়ি না ফেরায় তার নানার বাড়ির লোকজন খোঁজাখুজি শুরু করে। একপর্যায়ে গ্রামের কুদ্দুস মোল্লার পানের বরজের পাশ থেকে তার লাশ উদ্ধার করে পুলিশ। এ ঘটনায় ইমরানের নানা হায়াৎ আলী মল্লিক সবদুল, আব্দুল হাকিম, ইদ্রিস আলী ও ইকবাল হোসেনকে আসামি করে কোতোয়ালী থানায় হত্যা মামলা করেন।

পিপি আরও জানান, দীর্ঘ বিচার প্রক্রিয়া শেষে আজ (বুধবার) স্পেশাল জজ আদালতের বিচারক সবদুল ও আব্দুল হাকিমকে মৃত্যুদণ্ড ও ২০ হাজার টাকা করে জরিমানার আদেশ দেন। এছাড়া ইদ্রিস আলী ও ইকবাল হোসেনের বিরুদ্ধে অভিযোগ প্রমাণিত না হওয়ায় তাদের বেকসুর খালাস দেন। 

রায় ঘোষণা শেষে দণ্ডিত আব্দুল হাকিমকে কারাগারে পাঠানোর নির্দেশ দেন এবং সবদুল পলাতক থাকায় তার বিরুদ্ধে গ্রেফতরি পরোয়ানা জারির নির্দেশ দেন বিচারক।

ব্রেকিংনিউজ/জেআই

bnbd-ads