বিচার শুরু, নিজেকে নির্দোষ দাবি মোয়াজ্জেমের

স্টাফ করেসপন্ডেন্ট
১৭ জুলাই ২০১৯, বুধবার
প্রকাশিত: ০৬:০৫ আপডেট: ০৬:০৫

বিচার শুরু, নিজেকে নির্দোষ দাবি মোয়াজ্জেমের

আলোচিত ফেনীর মাদরাসাছাত্রী নুসরাত জাহান রাফির বক্তব্য ভিডিও করে ছড়িয়ে দেয়ার অভিযোগে সোনাগাজী মডেল থানার সাবেক ওসি মোয়াজ্জেম হোসেনের বিরুদ্ধে করা মামলার অভিযোগ গঠন করেছেন ট্রাইব্যুনাল। এর মধ্য দিয়ে আসামির বিরুদ্ধে আনুষ্ঠানিক বিচার শুরু হয়েছে। পরবর্তী সাক্ষ্যগ্রহণের জন্য আগামী ৩১ জুলাই তারিখ ধার্য করেন আদালত। 

বুধবার (১৭ জুলাই) সাইবার ক্রাইম ট্রাইব্যুনালের বিচারক মোহাম্মদ আসসামছ জগলুল হোসেন আসামির অব্যাহতির আবেদন নাকচ করে চার্জ গঠনের আদেশ দেন। 

এদিন ওসি মোয়াজ্জেমকে কাশিমপুর কারাগার থেকে আদালতে হাজির করে হাজতখানায় রাখা হয়। দুপুর ২টার দিকে তাকে সাইবার ক্রাইম ট্রাইব্যুনালে হাজির করা হয়।

দুপুর ২টার দিকে চার্জ শুনানি শুরু হয়। আসামিপক্ষে ফারুক আহম্মেদ, আবু সাঈদ সাগর অব্যাহতির আবেদন করে শুনানি করেন। শুনানিতে তারা ওসি মোয়াজ্জেমকে নির্দোষ দাবি করে তার জামিন ও অব্যাহতির আবেদেন করেন।

তবে জামিন ও অব্যাহতির বিরোধিতা করে রাষ্ট্রপক্ষের পাবলিক প্রসিকিউটর নজরুল ইসলাম (শামীম) চার্জ গঠন করার আবেদন করেন। 

উভয়পক্ষের শুনানি শেষে আদালত বলেন, আপনার (ওসি মোয়াজ্জেম) বিরুদ্ধে ডিজিটাল নিরাপত্তা আইনের ২৬, ২৯ ও ৩১ ধারায় চার্জ গঠন করা হয়েছে। আপনি দোষী না নির্দোষ। জবাবে ওসি মোয়াজ্জেম বলেন, আমি নির্দোষ এবং তিনি ন্যায়বিচার চান। এরপর আদালত চার্জ গঠনের আদেশ দিয়ে আগামী ৩১ জুলাই সাক্ষ্য গ্রহণের তারিখ ধার্য করেন।

সুপ্রিম কোর্টের আইনজীবী সৈয়দ সায়েদুল হক সুমন গত ১৫ এপ্রিল আদালতে মামলাটি দায়ের করেন।  মামলায় গত ২৭ মে তদন্ত কর্মকর্তা পিবিআইয়ের সিনিয়র সহকারী পুলিশ সুপার রীমা সুলতানা মোয়াজ্জেমের বিরুদ্ধে প্রতিবেদন দাখিল করেন। ওই প্রতিবেদন আমলে নিয়ে মোয়াজ্জেম হোসেনের বিরুদ্ধে গ্রেফতার পরোয়ানা জারি করেন আদালত। পরোয়ানা জারির ২০ দিন পর ১৬ জুন মোয়াজ্জেম হোসেনকে ঢাকা থেকে গ্রেফতার করে পুলিশ। পরদিন তাকে একই ট্রাইব্যুনালে হাজির করা হলে কারাগারে পাঠানোর আদেশ দেন একই বিচারক। এরপর থেকে তিনি কারাগারেই আছেন।

ব্রেকিংনিউজ/ এসএ