মিন্নির রিমান্ড বাতিল চেয়ে আবেদন, সাড়া মেলেনি হাইকোর্টে

স্টাফ করেসপন্ডেন্ট
১৮ জুলাই ২০১৯, বৃহস্পতিবার
প্রকাশিত: ০১:৩৮ আপডেট: ০২:১৫

মিন্নির রিমান্ড বাতিল চেয়ে আবেদন, সাড়া মেলেনি হাইকোর্টে

বরগুনায় বহুল আলোচিত রিফাত শরীফ হত্যা মামলায় গ্রেফতার তার স্ত্রী আয়েশা সিদ্দিকা মিন্নির রিমান্ড বাতিল চেয়ে করা মৌখিক আবেদনে কোনও সাড়া দেননি হাইকোর্ট। 

এ বিষয়ে আবেদনকারী আইনজীবী মো. ফারুক হোসেরের উদ্দেশ্যে আদালত বলেছেন, ‘মামলাটির তদন্ত বিভিন্ন পর্যায়ে হচ্ছে। আর রিমান্ডও তারই একটি অংশ। সুতরাং এই পরিস্থিতিতে আমরা এ বিষয়ে হস্তক্ষেপ করবো না। তবে আপনি চাইলে বিষয়টি অন্য ফোরামে তুলতে পারেন।’

বৃহস্পতিবার (১৮ জুলাই) বিচারপতি এফ আর এম নাজমুল আহাসান ও বিচারপতি কেএম কামরুল কাদেরের হাইকোর্ট বেঞ্চ এ মন্তব্য করেন।

মিন্নির রিমান্ডের বিষয়ে বিভিন্ন পত্রপত্রিকায় প্রকাশিত প্রতিবেদন নিয়ে এদিন সকালে হাইকোর্টের আইনজীবী মো. ফারুক হোসেন বিষয়টি আদালতে উত্থাপন করেন। পরে  আদালত তার এই আবেদনে কোনও সাড়া দেননি।

আইনজীবী ফারুক হোসেন সাংবাদিকদের বলেন, ‘আমরা বলতে চেয়েছিলাম মামলার বাদী 
তার সর্বোচ্চ আস্থাভাজন ব্যক্তিকে মামলার এক নম্বর সাক্ষী করেন। অথচ সেখানে এক নম্বর সাক্ষীকে ঘুরিয়ে-পেঁচিয়ে তাকেই উল্টো এ মামলার আসামি বানানো হচ্ছে।’

তিনি বলেন, ‘আমরা আদালতের কাছে বলেছি, এ মামলার চার্জশিটভুক্ত পাঁচ আসামিকে এখনও গ্রেফতার করা হয়নি। সেখানে মামলার এক নম্বর সাক্ষীকে জিজ্ঞাসাবাদের জন্য রিমান্ড চাওয়া হয়েছে।’

মিন্নির আইনজীবী বলেন, ‘মিন্নিকে রিমান্ডে নেয়ার কারণে মামলাটি অন্যদিকে চলে যেতে পারে। এ কারণে আমি বিষয়টি এই কোর্টে এনেছিলাম। যেহেতু কোর্টে এ বিষয়ে একটি সো-মোটো রুল আছে। আমি চেয়েছিলাম ওইটার মধ্যেই এ বিষয়টি যুক্ত করে আদেশ যাতে আদালত দেন।’

উল্লেখ্য, গতকাল বুধবার বরগুনা আদালতে মিন্নিকে হাজির করে মামলার তদন্ত কর্মকর্তা পরিদর্শক মো. হুমায়ুন কবির ৭ দিনের রিমান্ড আবেদন করলে আদালত ৫ দিনের রিমান্ড মঞ্জুর করেন।

এর আগে গত মঙ্গলবার সকাল সোয়া ১০টার দিকে বরগুনা পৌরসভার মাইঠা এলাকার নিজ বাসা থেকে মিন্নিকে পুলিশ লাইনে নেয়া হয়। প্রায় ১১ ঘণ্টা জিজ্ঞাসাবাদের পর রাতে তাকে গ্রেফতার দেখায় পুলিশ। 

ব্রেকিংনিউজ/এসআর/এমআর